আশাশুনির নদীর বেঁড়িবাধ ভেঙে গ্রাম প্লাবিত

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার আশাশুনির বিছটে প্রবল জোয়ারের চাপে খোলপেটুয়া নদীর বেঁড়িবাধ ভেঙে একটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।
এতে পানিতে তলিয়ে গেছে শতাধিক মৎস্য ঘের ও ফসলি জমি। পানি বন্দী হয়ে পড়েছে অর্ধ শতাধিক পরিবার। বৃহস্পবিার দুপুরে উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের বিছট গ্রামের সরদার বাড়ির সামনে ৭/২ পোল্ডার সংলগ্ন এলাকায় খোলপেটুয়া নদীর তিনটি স্থানে প্রায় দেড়’শ ফুট বেঁড়িবাধ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়।
স্থানীয়রা জানান, আগে থেকেই বাধটি ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। প্রবল জোয়ারের চপে হঠাৎ করেই দুপুরে বাঁধটি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। এতে অর্ধ শতাধিক পরিবার পানি বন্দী হয়ে পড়েছে, পানিতে তলিয়ে গেছে শতাধিক মৎস্য ঘের ও ফসলি জমি।
তারা আরো জানান, বেড়িবাধটি সংস্কার করা না গেলে পরবর্তী জোয়ারে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হবে।
আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আলমগীর আলম জানান, প্রায় ৬ মাস ধরে বাঁধটি ঝুঁকিপূর্ণ থাকলেও বাঁধ সংস্কারে পানি উন্নয়ন বোর্ড কোন উদ্যোগ নেননি। পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলাতির কারণেই প্রতাপনগর ইউনিয়নবাসীর আজ এই দুর্দশা। তিনি জানান, এখনই বাঁধটি সংস্কার করতে না পারলে পরবর্তী জোয়ারে আনুলিয়া, নয়াখালী, বল্লপপুর, বাসুদেপুরসহ নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হবে বলে।
তিনি আরো জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত কেউ ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেননি।

আপনার মতামত জানানঃ