কেশবপুরে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : কেশবপুরে মঙ্গলবার রাতের আধারে ১টি পালসার ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল ও নগদ আড়াই লাখ টাকা ছিনতাই করে যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দূবৃত্তরা। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
কেশবপুর পৌরসভার সফরাবাদ গ্রামের মৃত সিফাত উল্লাহ মোড়লের পূত্র সিদ্দিকুর রহমানের কচুখেতে বুধবার সকালে কুপিয়ে হত্যা করা হিজালডাঙ্গা গ্রামের সোহরাব মোড়লের পূত্র আব্দুল্লাহ আল মামুন (৩৫)-এর লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসি থানা পুলিশ কে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ উক্ত লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
এব্যাপারে খুন হওয়া আব্দুল্লাহ আল মামুনের ছোট ভাই মুন্না মোড়ল জানায়, তার ভাই মামুন ব্যাবসায়িক কাজে মঙ্গলবার বিকাল থেকে মঙ্গলকোট বাজারে অবস্থান করছিলেন। রাত ৯ টার দিকে তার বাড়ি ফেরার কথা ছিল। বাড়িতে না ফেরায় রাত ১০ টার দিকে তাকে মোবাইলে ফোন করলে কয়েকবার রিংটোন বেজে বন্ধ হয়ে যায়। তার ভাইয়ের নিকট ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা ছিল এবং তার ব্যবহৃত একটি ১৫০ সিসি অন টেস্ট পালসার মোটর সাইকেল ছিল। রাতে বাড়িতে না ফেরায় তারা সম্ভাব্য সকল জায়গায় মোবাইল করে তার কোন খোঁজ পায়নি। তিনি আরো জানান, তার ভাইয়ের মালবাহি ৩টি ট্রাক রয়েছে। তবে পাঁচপোতা গ্রামের জলিল নামে জনৈক ব্যক্তির সাথে পার্টসার শিপে আরো একটি ট্রাকের ব্যাবসা ছিল। যা নিয়ে বিরোধ দেখা দেওয়ায় গত সপ্তাহে তার ভাই ট্রাকটি আব্দুল জলিলকে ধরে দেয় এবং জলিলের নিকট তার ভাইয়ের ১ লাখ টাকা পাওনা ছিল। তবে আব্দুল্লাহ আল মামুনের হত্যার ব্যাপারে তিনি নিশ্চিত করে কোন কিছু বলতে পারেননি।
এব্যাপরে কেশবপুর থানায় ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ শাহাজাহান আহম্মেদ জানান, ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ