কোটালীপাড়ায় ১৪৪ ভঙ্গ করে সংখ্যালঘুর জমি দখলের চেষ্টা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় আদালতের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে এক সংখ্যালঘু পরিবারের জমি-জমা জবর দখলের চেষ্টা করে খুন-জখমের হুমকি দিয়েছে একটি প্রভাবশালী মহল। বর্তমানে ওই পরিবারটি রয়েছে চরম নিরাপত্তাহীনতায়।
মামলা সূত্রে জানা যায়, কোটালীপাড়া উপজেলার ৫৮নং বটবাড়ী মৌজার বিআরএস ৩১৭ নং খতিয়ানের ৩২১৭ নং দাগের ৭৬ শতাংশ জমির মধ্যে ৪৭ শতাংশ জমি, শিতাইকুন্ড গ্রামের মৃত ছত্তার শেখের ছেলে সালাম শেখ ক্রয় করে। বাকী ২৯ শতাংশ জমি বটবাড়ী গ্রামের মৃত সুধীর সরকারের ছেলে সঞ্জীব সরকার সিএস, আরএস, বিআরএস পৈত্রিক সূত্রে ভোগ দখল করে আসছে। আসিতেছে। গত ১৩ জানুয়ারী দিবাগত রাতে সালাম শেখ ২টি মাটি খনন যন্ত্র লাগিয়ে ৫০/৬০ জন লোকের সহায়তায় সম্পূর্ন ৭৬ শতাংশ জমিতেই মাটি কেটে জোর পূর্বক দখল করার চেষ্টা চালায়। এ সময় সঞ্জীব সরকার বাধা দিতে গেলে তাকে খুন-জখম করিয়া গুম করার হুমকি প্রদান করে সালাম শেখ ও তার দলবল। ক্ষতিগ্রস্থ সঞ্জীব সরকার গোপালগঞ্জ বিজ্ঞ আদালতে ১৪৪ ধারা জারীর জন্য মামলা করলে আদালত ওই জমির উপর ১৪৪ ধারা জারি করেন। মামলা নং- ৬৩/২০১৭।
বর্তমানে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে সালাম শেখ তার লোকজন নিয়ে ওই জমিতে গাছের চারা রোপন করে। এ সময় কোটালীপাড়া থানার এস আই সুজিৎ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের লোকজন দিয়ে গাছের চারাগুলি সরিয়ে দেয়।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সালাম শেখের ব্যবহৃত মোবাইল ০১৯৬৬-৪৫০৬৮৩ নম্বরে যোগযোগ করা হলে হুমকি দেওয়ার কথা অস্বীকার করে তিনি বলেন, আমি ৪৭ শতাংশ জমি কিনেছি, সে টুকুই ভোগ করব। তিনি আরও বলেন, আমি সঞ্জীব সরকারকে খুন-জখমের হুমকি দেই নাই।
এ বিষয়ে কোটালীপাড়া থানার এস আই সুজিৎ কুমার দাস এর সঙ্গে যোগযোগ করা হলে তিনি বলেন, ১৪৪ ধারা জারির নোটিশের পরে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি সালাম শেখ জবর দখল করে গাছ লাগিয়েছে। আমি যাবার পরে তাদের লোকজন দিয়ে গাছ গুলি সরিয়ে নেওয়াই

আপনার মতামত জানানঃ