ক্যাসিনোকান্ডের অন্যতম হোতা দুই ভাই এনু ও রূপন গ্রেপ্তার

ঢাকা অফিস : ক্যাসিনোকাণ্ডের অন্যতম হোতা গেন্ডারিয়ার আওয়ামী লীগ নেতা এনামুল হক এনু ও তার ভাই রূপন ভুঁইয়াকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ-সিআইডি। গত বছর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকেই এই দুই ভাই আলোচনায় আসেন। তখন থেকেই তারা পলাতক ছিলেন।
সোমবার দুপুরে তাদের গ্রেপ্তারের তথ্য জানান পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি। তবে কখন ও কোথা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা জানা যায়নি। বেলা ২টায় সিআইডি সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এনামুল হক ও রূপন ভূঁইয়াকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে বিস্তারিত জানাবে সিআইডি।

তাদের দুজনের নামে একানব্বইটি ব্যাংক একাউন্ট পাওয়া গেছে, এগুলোতে ১৯ কোটি টাকা রয়েছে। এগুলো আগেই জব্দ করে রাখা হয়েছে । তবে গ্রেপ্তারের সময় তাদের সঙ্গে থাকা নগদ চল্লিশ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। তারা বিদেশে পালনোর চেষ্টা করছিল বলে জানায় সিআইডি।

গত বছরের ২৪শে সেপ্টেম্বর এনামুল ও রূপনসহ তাদের দুই কর্মচারীর বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। সেখান থেকে পাঁচ কোটি টাকা এবং সাড়ে সাত কেজি সোনা উদ্ধার করা হয়। পরে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় তাদের ১৫টি বাড়ির সন্ধানের তথ্য পাওয়া যায়। এ ঘটনায় গেণ্ডারিয়া ও ওয়ারী থানায় সাতটি পৃথক মামলা করা হয়।

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বলছে, এনু ও রুপন মতিঝিলে ওয়ান্ডারার্স ক্লাবে ক্যাসিনোকাণ্ডের অন্যতম হোতা। স্থানীয়ভাবেও তাদের পরিবার ‘জুয়াড়ি পরিবার’ হিসেবে চিহ্নিত। পরে একাধিকবার অভিযান চালিয়েও এত দিন তাদের ধরা যায়নি।

এনামুল হক ওরফে এনু ভূঁইয়া গেণ্ডারিয়া থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও রূপন একই ইউনিটের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, তারা দুই ভাইসহ পুরো পরিবারের অন্তত নয়জন সংগঠনের বিভিন্ন পদে রয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ