ডুমুরিয়ায় মাথার খুলি বিহীন শিশু ভূমিষ্ঠ

ডুমুরিয়া(খুলনা)প্রতিনিধি: খুলনার ডুমুরিয়া জনতা হাসপাতালে শুক্রবার সকালে মাথার খুলি বিহীন জীবিত নবজাতক শিশু ভূমিষ্ঠ হয়। সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে জীবিত অব¯হায় ভূমিষ্ঠ হলেও ঘন্টা খানেক পরে শিশুটি মারা যায়। রোগির স্বজন ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে ডুমুরিয়া উপজেলার কুকিয়া গ্রামের কৃষক হাফিজুর রহমানের স্ত্রী হেনা বেগম (২২) ৮ মাস আগে প্রথম সন্তান সম্ভাবা হন। অজ্ঞতা বশত গত ৮ মাসেও গর্ভবতী স্ত্রীকে কোন ডাক্তার দেখাননি তারা। সম্প্রতি হেনা বেগমের শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে গত ২৪ মার্চ যশোর জেলার কেশবপুরে একটি ডায়াগনিষ্ট সেন্টারে তার আল্ট্রা সনোগ্রাম করানো হয়। এতে রিপোর্টে তার বাচ্চার মাথার খুলি নেই বলে রিপোর্ট পাওয়া যায়। বিষয়টি হাফিজুরের পরিবারের কাছে বিশ্বাস যোগ্যে মনে না হওয়ায় তার গত ২৬ মার্চ তারিখে খুলনার একটি ডায়গনিষ্ট সেন্টার আবারও আলাট্রাসনোগ্রাম করালে সেখান থেকেও একই রিপোর্ট পাওয়া যায়। এরপর তারা গত বুধবার বিষয়টি নিয়ে ডুমুরিয়া জনতা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে সিজারিয়ান অপারেশনের সিদ্ধান্ত নেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাফিজুর রহমান জানান, ভূমিষ্ট হওয়া কন্যা শিশুটি আমাদের দ¤পতির প্রথম বাচ্চা। সবই আমাদের নসিব। কি আর বলবো। তবে তার স্ত্রীর শারীরিক অব¯হা ভাল আছে বলে তিনি জানান। জনতা হাসপাতের মালিক জি,এম জুলফিকার আলী (ভুট্রো জানান, আমরা রোগির দুই দফা আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্টে বাচ্চার মাথার খুলি বিহীন দেখে অপারেশন করতে প্রথমে রাজি ছিলাম না। কিন্তু রোগির স্বজন ও তার এলাকার একজন জনপ্রতিনিধির অনুরোধ ও সম্মতিতে খুলনা শহর থেকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার এনে সিজারিয়ান অপারেশন করার ব্যব¯হা করি। শিশুটি ভূমিষ্ট হওয়ার সময় জীবিত থাকলেও ঘন্টা খানেক পরে মারা যায়।

আপনার মতামত জানানঃ