দাকোপে সাংবাদিক ছাব্বির ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রচারনায় এগিয়ে

দাকোপ প্রতিনিধি : আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দাকোপে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে অনেক আগে থেকেই গনসংযোগে আছেন বিভিন্ন সামাজিক সংগঠক দাকোপ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজগর হোসেন ছাব্বির।  জনগন সুষ্টভাবে ভোটাধীকার প্রয়োগের সুযোগ পেলে তিনি বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।
এক সময়ের খুলনা জেলা জাতীয় ছাত্র সমাজের প্রভাবশালীনেতা, সাবেক খুলনা জেলা জাপার সাংগঠনিক সম্পাদক ও দাকোপ উপজেলার সাবেক সাধারণ সম্পাদক দাকোপের সিনিয়র সাংবাদিক আজগর হোসেন ছাব্বির আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী বেশ আগে থেকেই গনসংযোগে আছেন। বর্তমানে রাজনীতিতে নিষ্কিৃয় দাকোপ প্রেসক্লাবসহ উপজেলার সাংবাদিক সমাজের একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোটের মাঠে আছেন। সমাজ উন্নয়নে সব সময় প্রতিবাদী কন্ঠস্বর আজগর হোসেন ছাব্বির চালনাস্থ সুতারখালী যুবকল্যান পরিষদের সভাপতি, দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য সেবা গ্রহীতা ফোরামের সভাপতি, শিশুদের জন্য আমরা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা, চালনা কম্বাইন্ড বয়েজ ক্লাব ও নলিয়ান শহীদ এস এম এ রব স্মৃতি সংঘের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, চালনা মোল্যা মেহেদী হাসান এতিমখানার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক মানবাধিকার সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে দাকোপের গনমুখী সকল কাজে গুরুত্বপূর্ন অবদান রেখে চলেছেন। গত প্রায় ৫ মাস তিনি প্রার্থী হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি উপজেলার ৯ টি ইউনিয়ন ও চালনা পৌরসভায় ব্যাপক গনসংযোগ করেছেন। বিগত শারদীয় উৎসবে পোষ্টার প্যানাসহ নানা কৌশলে তিনি অন্যান্য প্রার্থী অপেক্ষা প্রচারনায় একধাপ এগিয়ে আছেন। “বদলে যাও বদলে দাও” এই শ্লোগানে ইতিমধ্যে তিনি উপজেলার নতুন প্রজন্ম তথা তরুন ভোটারদের মাঝে বেশ সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছেন। বর্তমানে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান গৌরপদ বাছাড়ের পাশাপাশি তারই নাম ব্যাপক আলোচনায় আছে। এ ছাড়াও বেশ কয়েকজন প্রার্থী হতে পারে এমন আভাষ পাওয়া গেলেও ভোটের মাঠে তাদেরকে দেখা যাচ্ছেনা। দাকোপ উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে আজগর হোসেন ছাব্বিরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দেশের অপরাপর উপজেলা অপেক্ষা দাকোপ উন্নয়নে অনেক পিছিয়ে বলা যায় বঞ্চিত জনপদ। বিগত ১০ বছর জনগন ভাইস চেয়ারম্যান পদের কোন দায়িত্বশীল ভুমিকা দেখেছে কিনা সংশয় প্রকাশ করে তিনি বলেন, উপজেলার বঞ্চনার বিষয়গুলো তুলে ধরে সরকারের কাছ থেকে অধিকার আদায় এবং ন্যায় ভিত্তিক সমাজ গঠনে বিজয়ী হলে এই পদের সর্বোচ্চ ক্ষমতা প্রয়োগ করতে চাই।

আপনার মতামত জানানঃ