নিখোঁজের ৪ মাস পর প্রবাসীর স্ত্রী ও সন্তান উদ্ধার

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ থেকে নিখোঁজের ৪ মাস পর স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে ফিরে পেলেন মুকসুদপুর দুবাই প্রবাসী আমিনুল ইসলাম। শুক্রবার রাতে উদ্ধারের বিষয়টি আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা ও রাত ৯টার দিকে স্বামীর কাছে স্ত্রী ও শিশুটিকে হস্তান্তর করে পুলিশ।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও মুকসুদপুর থানার এস আই শাহাজামাল জানিয়েছেন,গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকার যাত্রাবাড়ি এলাকা থেকে নিখোঁজ মা ও ছেলেকে উদ্ধার করা হয়। নিখোঁজ শিউলি সুলতানা গত বৃহস্পতিবার সকালে তার ছোট ভাই শাকিল আহম্মেদের কাছে মুঠোফোনে জানায় সে ঢাকার যাত্রাবাড়ি এলাকায় আছে এবং সেখান থেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলে। কিন্তু পুলিশ মোবাইল ট্রাকিং করে জানতে পারে শিউলি নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের সিরাজপুর এলাকার নেটওর্য়াকে আছে। পরে শিউলীর সাথে ফোনে যোগাযোগ করে যাত্রাবাড়ি বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে ছেলেসহ তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পরে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে অফিসিয়াল কাজ সেরে শিউলি ও তার ২ বছর বয়সী ছেলে আরাফাদ মোল্যাকে শিউলীর স্বামীর জিম্মায় বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, শিউলির স্বামী আমিনুল ইসলাম গত বছরের ৩ ডিসেম্বর দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে তার স্ত্রী ও ছেলে মুকসুদপুর থেকে ফরিদপুর যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়েছে বলে সাধারণ ডায়রী করে। তখন পরিবারের লোকজন মনে করেছিলেন ওই প্রবাসীর স্ত্রী-সন্তানকে অপহরন করা হয়েছে। কিন্তু উদ্ধারের পর প্রবাসীর স্ত্রী শিউলি সুলতানা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে যে, সে পারিবারিক কলহের কারনে নিজেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়ে আত্মগোপন করে ছিল।

আপনার মতামত জানানঃ