পাইকগাছায় ৬৫ বছরের বৃদ্ধ কর্তৃক ৬ বছরের শিশুকন্যা নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

পাইকগাছা প্রতিনিধিঃ পাইকগাছায় ৬৫ বছরের বৃদ্ধ কর্তৃক ৬ বছরের শিশুকন্যাকে শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হওয়ায় বাদী ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। মামলা প্রত্যাহারের জন্য প্রভাবশালী নারী লিপ্সু, চরিত্রহীন ব্যক্তির লোকজন বাদী ও তার পরিবারকে চাপ অব্যাহত রেখেছে। ঘটনাটি উপজেলার সোনাতনকাটি গ্রামে ২২ ফেব্র“য়ারি সকাল ১১টায়। মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২২ ফেব্র“য়ারি সকাল ১১টায় উপজেলার সোনাতনকাটি গ্রামের আবুল হোসেন গাজীর ৬ বছরের নাতনীকে লোভ দেখিয়ে একই গ্রামের প্রভাবশালী মেছের গাজীর পুত্র সোবহান গাজী (৬৫) তার বাড়ীতে নিয়ে যায়। শিশু কন্যার নানা-নানী বাড়ীতে না থাকার সুবাদে লম্পট সোবহান গাজী তার ঘরের মধ্যে আটকিয়ে রেখে শারীরিক নির্যাতন চালায়। শিশুকন্যার আত্মচিৎকার করতে থাকলে সোবহান এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য ভয়-ভীতি দেখিয়ে তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। নির্যাতনের ঘটনায় রক্তক্ষরণের কারণে শিশুকন্যাকে প্রথমে পাইকগাছা হাসপাতালে পরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসরত রয়েছে। উল্লেখ্য, ইতোপূর্বে বৃদ্ধ সোবহান, আবুল হোসেনের বাড়ীতে এসে শিশুকন্যার সাথে গল্পগুজব সহ লোভনীয় মিষ্টি খাওয়াতো। শিশু বিধায় তারা বিষয়টি কোন কিছু মনে করত না। এহেন ন্যাক্কারজনক ঘটনা এলাকাবাসীকে হতবাক করেছে। এ ঘটনায় শিশু কন্যার নানা বাদী হয়ে পাইকগাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (৪) (খ) ধারায় মামলা দায়ের করেছে, যার নং- জি.আর ৩৬/১৮। মামলা দায়েরের এক সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও আসামী গ্রেপ্তার না হওয়ায় হতদরিদ্র আবুল গাজীর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। অপরদিকে, প্রভাবশালী এ ব্যক্তির পক্ষে এক শ্রেণীর লোক অর্থের বিনিময়ে মামলা প্রত্যাহারের জন্য আবুলের পরিবারের প্রতি চাপ অব্যাহত রেখেছে।

আপনার মতামত জানানঃ