বাগেরহাটে স্পে পার্টিরা সক্রিয় একই পরিবারের গর্ভবতী মহিলা সহ অজ্ঞান ৫  

বাগেরহাট: বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে চেতনানাশক পার্টির তৎপরতায় সন্তান সম্ভবা গৃহিনীসহ এক পরিবারের ৫ জন অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিতে কুঠিবাড়ি এলাকার ভাড়াটিয়া প্রভাষক আল আমিনের বাড়িতে চুরির উদ্দেশে চেতনানাশক স্প্রে করে দুর্বৃত্তরা।

এতে কচুয়ার মাধবকাঠি আহ্মদিয়া ফাজিল মাদরাসার প্রভাষক আল আমিন(৪৫), তার সন্তান সম্ভবা স্ত্রী কাঠালতলা গিয়াসিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষিকা নাজমা বেগম(৩৮), ছেলে হাসনাইন(৪), শ্বাশুড়ি আমেনা ইসলাম(৬৮),মাহমুদা আক্তার খুকি(৪৫) শালী জেসমিন আক্তারকে(৩০) বুধবার বেলা ৯টার দিকে অজ্ঞান অবস্থায় রাইসা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা স্প্রে করার পরে দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢোকে। তারা ঘর থেকে কি মালামাল নিয়েছে তা এখনো জানা য়ায়নি। একই সময় অধ্যাপক সাহাবুদ্দিন তালুকদারের ঘরের জানালা ভেঙ্গে একটি মোবাইল ফোন ও ৪ হাজার টাকা নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এর পূর্বে গত রবিবার রাতে বিশারীঘাটা গ্রমের সোহাগ হাওরাদারের ঘরে স্প্রে করে জানালার গ্রিল খুলে মায়ের কোলের মধ্য হতে আড়াইমাস বয়সী শিশু আব্দুল্লাহকে চুরি করে নিয়ে দুর্বৃত্তরা। একই রাতে নিশানবাড়িয়া গ্রামের সালাম হাওলাদার ও আলম হাওলাদারের ঘরে চেতনানাশক স্প্রে দিয়ে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

২৯ ফেব্রæয়ারি মধ্যবরিশাল গ্রামের ডা. আব্দুস ছালামের বাড়িতে স্প্রে দিয়ে মালামাল হাতিয়ে নেয় দুর্বৃত্তরা। গেল বছরের ২৯জুলাই মাসে ভাষান্দল গ্রামের মাষ্টার মজিবর রহমানের বাড়িতে, অক্টোবর মাসে পূর্ব চিপাবারইখালী গ্রামের মেম্বার মিজানুর রহমান ও এআর খান কলেজের উপাধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক খানের বাড়িতে চেতনানাশক স্প্রে করে দুর্বৃত্তরা।
রবিবার রাতে সন্তান চুরির ঘটনার পরে এলাকায় পুলিশের অভিযান চলা অবস্থায় পৌরসভার কুঠিবাড়ি এলাকায় চেতনানাশক স্প্রে দিয়ে এক পরিবারের ৫জনকে অজ্ঞান করার ঘটনায় সকলে হতবাক হয়েছেন। প্রতিটি পরিবারে দেখা দিয়েছে চেতনানাশক স্প্রে আতঙ্ক।

আপনার মতামত জানানঃ