বিশ্ব কন্যা শিশু দিবসে দুই শিশু কন্যার করুন মৃত্যু

নওয়াপাড়া: বিশ্ব কন্যা শিশু দিবসের দিন অভয়নগর উপজেলার বারান্দী গ্রামে দুই কন্যা শিশুর করুন মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার পুকুরের পানিতে ডুবে পৃথক দু’টি শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মৃত ১০ মাস বয়সি শিশু মাছুরা খাতুন পূর্ব বারান্দী গ্রামের আজিবর বিশ্বাসের মেয়ে। অপর মৃত ২ বছর বয়সি শারদা রানী রাজবংশী পাড়ার খোকন বিশ্বাসের মেয়ে। মর্মান্তিক এ মৃত্যুর ঘটনা দু’টি ঘটে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭ টা ও ১০ টায় পায়রা ইউনিয়নের পূর্ব বারান্দী ও রাজবংশী পাড়ায়। শিশু দু’টির মৃতদেহ উদ্ধারের পর এলাকায় শোকের মাতম শুরু হয়। পিতা-মাতার সামনে সন্তানের লাশ পড়ে থাকায় বারে বারে মুর্ছা যেতে থাকে তারা। এ সংবাদ শুনে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনদীপ ঘরাই ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান। মৃত্যুর ব্যাপারে পায়রা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ফিরোজ আলম জানান, পূর্ব বারান্দীর আজিবর বিশ্বাসের ১০ মাস বয়সি শিশু কন্যা মাছুরা খাতুন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭ টায় হামাগুঁড়ি দিয়ে বাড়ির পার্শ্বের পুকুরে পড়ে যায়। কিছুক্ষন পর মাছুরাকে উঠানে না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুজি শুরু করেন। এক পর্যায়ে পার্শ্বের পুকুর থেকে শিশু মাছুরার মৃতদেহ উদ্ধার করে তারা। মাত্র ২ ঘন্টার ব্যবধানে বেলা ১০ টায় একই গ্রামের রাজবংশী পাড়ার খোকন বিশ্বাসের ২ বছর বয়সি শিশু কন্যা শারদা রানীর মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে মৃত শারদা রানীর পিতা জানান, সকাল ১০ টায় বন্ধুদের সাথে খেলাধুলা করবার সময় বাড়ির পার্শ্বের পুকুরে পড়ে যায় শারদা। পরে শারদার এক বন্ধু এ ঘটনা জানালে বাড়ির সদস্য ও এলাকবাসী পুকুর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে। পাশাপাশী দুই পাড়ায় মাত্র ২ ঘন্টার ব্যবধানে অবুঝ ২ শিশু কন্যার মৃত্যুতে গ্রামজুড়ে শোকের ছাঁয়া নেমে আসে। এ এক মর্মবিদারক দৃশ্য। দুই শিশুর মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনদীপ ঘরাই ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং মর্মাহত দুই পরিবারের সদস্যদের সহানুভুতি ও সমবেদনা জানান।

আপনার মতামত জানানঃ