ভুট্টাক্ষেতে জরুরি অবতরণ, রাষ্ট্রীয় পদক পেলেন পাইলট

আন্তর্জাতিক : পাখির ঝাঁকের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর ভুট্টাক্ষেতে জরুরি অবতরণ করে ২৩৩ আরোহীর জীবন বাঁচিয়েছেন রুশ পাইলট দামির ইয়ুসুপভ। এই ঘটনায় তাকে জাতীয় বীরের মর্যাদা দিয়ে দেশটির সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পদকে ভূষিত করা হয়েছে। খবর আরব নিউজের।

৪১ বছর বয়সী অভিজ্ঞ পাইলট দামির ইয়ুসুপভের বুদ্ধিমত্তায় উড়োজাহাজটি ইঞ্জিন বন্ধ অবস্থায় ভুট্টাক্ষেতে অবতরণ করেছে। এ সময় বিমানের চাকাগুলোও খোলেনি। শুধু তাই নয়, ল্যান্ডিং এতই ভালো হয়েছিলো যে মাত্র একজন যাত্রী সামান্য আঘাত পেয়েছেন। বাকিরা সবাই অক্ষত অবস্থায় বিমান থেকে নামেন।
আর এ কারণেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ওই পাইলটকে জাতীয় বীর ঘোষণা করে শুক্রবার তার হাতে দেশটির সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পদক তুলে দেন।

এর আগে, পাখির একটি ঝাঁকের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর রাশিয়ার ওই যাত্রীবাহী বিমান মস্কোর কাছে একটি ভুট্টা ক্ষেতে জরুরি অবতরণ করে। ইউরাল এয়ারলাইনসের ৩২১ এয়ারবাসটি ক্রাইমিয়ার সিমফেরোপলে যাচ্ছিল। বিমানটি ওড়ার অল্পক্ষণের মধ্যেই এক ঝাঁক চিলের সাথে ধাক্কা খায় এবং ফলে বিমানের ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এই অবতরণকে ”রামেনস্কে অলৌকিক অবতরণ” বলে বর্ণনা করেছে।

পরে বিমানটি ঝুকোভস্কি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে একটা ভুট্টা ক্ষেতে নামে।

আপনার মতামত জানানঃ