রেজা-সৈকতের ব্যাটে দোলেশ্বর সেমিতে

স্পোর্টস ডেস্ক : বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে দলকে ম্যাচে ফেরালেন ফরহাদ রেজা। গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের খেলোয়াড়দের বাজে ফিল্ডিংয়ের সুযোগ নিয়ে বাকিটা সারলেন সৈকত আলী। নাটকীয় জয়ে প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টির সেমি-ফাইনালে উঠল প্রাইম দোলেশ্বর।

‘ডি’ গ্রুপের ম্যাচে ৩ উইকেটে জিতেছে রেজার দল। ১৪৬ রানের লক্ষ্য ১২ বল বাকি থাকতে পেরিয়ে যায় তারা। গাজী (০.২৯০) ও বিকেএসপির (-০.৯০০) সমান দুই পয়েন্ট হলেও রান রেটে এগিয়ে থেকে চতুর্থ দল হিসেবে শেষ চার নিশ্চিত করে দোলেশ্বর (০.৩৬৩)। আগামি শুক্রবার দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের মুখোমুখি হবে তারা।

টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে ১৮.১ ওভারের মধ্যে জিততে হত দোলেশ্বরের। ১৮তম ওভারে সৈকতের দুটি ক্যাচ ছেড়ে কাজটা সহজ করে দেয় গাজীর ফিল্ডাররা।

সেমি-ফাইনালে যেতে ৭ বলে ১৩ রান প্রয়োজন ছিল দোলেশ্বরের। কামরুল ইসলাম রাব্বির করা ১৮তম ওভারে ডিপ মিডউইকেটের ফিল্ডার সৈকতের ক্যাচ ছেড়ে ছক্কা বানিয়ে দেন। ডিপ পয়েন্টে আরেকটি ক্যাচ হাতছাড়া হলে দুই রান পেয়ে যান ব্যাটসম্যান। ২১ বলে সৈকতের অপরাজিত ২৮ রানের সৌজন্যে দারুণ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দোলেশ্বর।

বৃষ্টির বাধায় রিজার্ভ ডেতে গড়ানো ম্যাচে বৃহস্পতিবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে মেহেদি হাসানের ব্যাটে উড়ন্ত সূচনা পায় গাজী। অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার ২৪ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায় খেলেন ৩৯ রানের ঝড়ো ইনিংস।

তার বিদায়ের পর দ্রুত আরও দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া গাজী লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে শামসুর রহমান ও তৌহিদ তারেকের ব্যাটে। অধিনায়ক শামসুর চারটি চারে ৩০ বলে করেন ৩৬। তারেক ২৪ বলে ফিরেন ২৬ রান করে।

আঁটসাঁট বোলিংয়ে পেস বোলিং অলরাউন্ডার রেজা ২ উইকেট নেন ১৮ রানে।

রান তাড়ায় শুরুটা ভালো হয়নি দোলেশ্বরের। ফরহাদ হোসেনের ২৫ বলে ৩২ রানের পরও দ্বাদশ ওভারে ৭৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দলটি। সৈকতের সঙ্গে ৫১ রানের আক্রমণাত্মক জুটিতে দলকে লড়াইয়ে ফেরান রেজা। দোলেশ্বর অধিনায়ক তিনটি করে ছক্কা-চারে ১৫ বলে করেন ৩৬ রান।

তার বিদায়ের পরও কাজটা ছিল কঠিন। তবে সৈকতের দাপুটে ব্যাটিং আর গাজীর ফিল্ডারদের ব্যর্থতায় সমীকরণ মিলিয়ে ফেলে দোলেশ্বর।

অলরাউন্ড নৈপুণ্যে দলের জয়ে সবচেয় বড় ভূমিকা রাখা রেজা জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

আপনার মতামত জানানঃ