লখনউতে মহরম পালন হবেই, সাহস থাকলে গ্রেফতার করুন: পুলিশকে হুমকি মৌলানার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা সংক্রমণকে মাথায় রেখে এবছর লখনউতে মহরম অনুষ্ঠান পালনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন পুলিশ কমিশনার৷ কিন্তু ওই নিষেধাজ্ঞাকে ‘অসাংবিধানিক এবং বেআইনি’ বললেন শিয়া মৌলানা কালবে জাওয়াদ৷ বৃহস্পতিবার প্রচ্ছন্ন হুমকির সুরে বলেন, ‘‘কোভিড বিধি মেনেই ইমামবড়ায় মজলিস হবে৷ পুলিশ মনে করলে আমায় গ্রেফতার করতে পারে৷’’

লখনউ পুলিশের নির্দেশিকা দেখে ক্ষুব্ধ হন কালবে৷ তিনি লিখিতভাবে পুলিশ কমিশনারের কাছে অভিযোগ করে জানিয়েছেন যে এই নির্দেশ থেকে মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াবে৷ এই নির্দেশিকা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের গাইডলাইনের বিরোধী৷

তাঁর কথায়, কোভিড বিধি মেনে ইমামবড়ায় মজলিস পালনের অনুমতি দিয়েছে মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক সরকার এবং কাশ্মীর প্রশাসন৷ সেখানে নতুন করে লখনউতে এই নির্দেশিকা কেন? নতুন গাইডলাইন অবিলম্বে প্রত্যাহার করে নেওয়া উচিৎ৷ শুক্রবার থেকে ইমামবড়ার ভেতরে মজলিস শুরু হবে৷ তবে ৫০ জনের বেশি মুসলিম যেন জড়ো না হয়৷ সেখানে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে৷ আগতদের মাস্ক পরে আসতে হবে৷ শারীরিক দুরত্ববিধি বজায় রাখতে হবে৷ জোর দেওয়া হবে স্যানিটাইজেশনে৷ পুলিশ চাইলে ওই অসাংবিধানিক নির্দেশিকার পরিপ্রেক্ষিতে তাঁকে গ্রেফতার করতে পারে৷ তবে তিনি গ্রেফতার হলে তার প্রতিবাদ যেন মুসলিমরা না করেন সেটাও আগে থেকে জানিয়ে দেন৷

এদিকে তাজিয়ার জন্য ছোটো অনেক দোকান খুলেছে শহরে৷ মৌলানা কালবে এবং শিয়া পার্সোনাল ল বোর্ডের সাধারণ সম্পাদক মৌলানা আব্বাসের অভিযোগ, পুলিশ হুমকি দিচ্ছে যাতে তাজিয়া তৈরি বা বিক্রি না হয়৷

আপনার মতামত জানানঃ