সাতক্ষীরায় এখনও পাওয়া যায় ৫০ পয়সার সিংড়া ও ১ টাকার পরেটা !

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সারা দেশে যখন পঞ্চাশ পয়সার কয়েন বা এক টকার নোটের ব্যবহার প্রায় নেই বললেই চলে, ঠিক তখনই সাতক্ষীরার প্রত্যন্ত অঞ্চলের একটি গ্রাম্য বাজারে দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে বিক্রি হচ্ছে ৫০পয়সার সিংড়া ও এক টাকার পরেটা। দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির বাজারে উৎপাদন খরচ বাড়লেও এই দোকানে কখনো বাড়েনি সিংড়া ও পরেটার দাম।
জানা গেছে, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভোমরা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর বাজারের উপর অবস্থিত এই ছোট্ট দোকানটি। যেটি স্থানীয়দের কাছে পরিচিত আট আনার দোকান (৫০পয়সা) নামে। একটি ভাজা আলুর সিংড়া যে কোন দোকানে বিক্রি হয় ৪ থেকে ১০ টাকায়। অথচ এই দোকানে সেই সিংড়া বিক্রি হয় মাত্র ৫০পয়সায়! সাথে আছে এক টাকা ও দুই টাকার পরেটা ও আলুর চপ। শুরুটা আজ থেকে প্রায় ৩০ বছর আগে। সেই প্রথম থেকেই ৫০ পয়সা দামে সিংড়া বিক্রি হয় এই দোকানে। বর্তমানে দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতি থাকা সত্বেও কখনো দাম বাড়েনি এই সিংড়া ও পরেটার। এখানকার সিংড়া সকলের কাছে বেশ জনপ্রিয়, চাহিদাও আছে বেশ। সারাদিনই ভিড় জমে থাকে এই দোকানটিতে। বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ দেখতে আসেন এই আট আনার দোকান। দোকানের মালিক মালেক বিশ্বাস, এলাকায় সহজ, সরল ও সৎ হিসেবে পরিচিত। এক সময় এই ব্যবসার লাভের টাকা দিয়ে কিছু জমি কিনেছিলেন তিনি। সেই জমির ফসল ও ইজারার টাকায় সংসার চলে তার। এই ব্যবসার প্রতি ভক্তি ও শ্রদ্ধা ধরে রাখতেই ৫০ পয়সার ব্যবসাটা তিনি এখনও চালিয়ে যাচ্ছেন। এতে সল্প আয় হলেও পরিবারের সদস্যরা তার প্রতি খুবই খুশি।
দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির এই বাজারে উৎপাদন খরচ বাড়লেও প্রত্যন্ত অঞ্চলের এই দোকানে দীর্ঘ ৩০ বছর ধরে একই দামে বিক্রি হচ্ছে এই সব পণ্য।
দোকান মালেক বিশ্বাস জানান, যতদিন বেঁচে থাকবেন দাম না বাড়িয়েই এই ব্যবসা চালাবেন। অসাধু ব্যবসায়ীরা যখন খাদ্যে ভেজাল ও পণ্য গুদামজাত করে কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে মুল্য বাড়াতে ব্যস্ত ঠিক তখনই মালেক বিশ্বাসের মত ব্যবসায়ীরা সমাজে উজ্জল দৃষ্টান্ত।

আপনার মতামত জানানঃ