সুন্দরবনে মাছ ধরার পাস নিয়ে চলছে হরিণ শিকার

বাগেরহাট প্রতিনিধি : সুন্দরবনে মাছ ধরার পাস নিয়ে হরিণ শিকারের অপরাধে ৩ দুর্বৃত্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বনবিভাগ। বৃহস্পতিবার ভোরে সুন্দরবনের কাগাখাল এলাকায় ওই দুর্র্বৃত্তরা একটি হরিণ জবাই করলে বনপ্রহরীদের ধাওয়ায় তারা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে জবাইকৃত হরিণ, হরিণ শিকারের ফাঁদ ও একটি নৌকা জব্দ করেছে বনরক্ষীরা। বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের চরাপুটিয়া ক্যাম্প ইনচার্জ মো: ইসমাইল হোসেন জানান, একদল দুর্বৃত্ত বনের কাগাখালের ভারানীতে অবস্থান নিয়ে হরিণ শিকার করছিল। এ সময় ওই এলাকায় টহলরত বনপ্রহরীরা তাদেরকে ধাওয়া করলে বনের গহীনে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশী চালিয়ে ১টি জবাইকৃত হরিণ, ২শ হাত লম্বা নাইলন সুতার ফাঁদ ও ১টি নৌকা উদ্ধার করা হয়েছে।
৫৬ ইঞ্চি লম্বা, ৩৬ ইঞ্চি চওড়া ও ৩১ ইঞ্চি উচ্চতার জবাইকৃত হরিণটি বাগেরহাট-০১ আদালতে পাঠানোর পর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাবেয়া বেগমের উপস্থিতিতে সুরতহাল সম্পন্ন করে মাটি চাঁপা দেয়া হয়েছে। এদিকে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়া দুর্বৃত্ত এখলাছ হাওলাদার (৩৫), ইলিয়াছ হাওলাদার (৩২) ও ইয়াছিন হাওলাদারের (৩০) বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার সকালে বন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন চরাপুটিয়া ক্যাম্প ইনচার্জ মো: ইসমাইল হোসেন।
এ সকল দুর্বৃত্তদের বাড়ী মোংলার মিঠাখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ চাঁদপাই গ্রামে বলে জানায় বনবিভাগ।

আপনার মতামত জানানঃ