গোপালগঞ্জে বখাটের নির্যাতনে প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জে বখাটে যুবকের মানসিক নির্যাতনে এক প্রবাসীর স্ত্রী সোনিয়া বেগম (৩২) আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার নিজড়া ইউনিয়নের বটবাড়ি গ্রামে। এ ঘটনায় গোপালগঞ্জ সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনার পর অভিযুক্ত যুবক রুবেল গা ঢাকা দিয়েছে।
স্থানীয় একাধিক সুত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের মো: এনায়েত উকিল ১৩ বছর ধরে সৌদি প্রবাসী। স্ত্রী সোনিয়া বেগম দু’ মেয়ে ইমা সুলতানা দোলা (১৩) ও তমা সুলতানাকে (১০) নিয়ে গ্রামের বাড়িতে বসবাস করতেন। একই গ্রামের দবির খানের ছেলে বখাটে রুবেল খান প্রবাসীর স্ত্রী সোনিয়া বেগমকে বোন ডেকে তার কাছ থেকে ৮ মাস আগে তাদের পুকুর ইজারা নিয়ে মাছের চাষ শুরু করে।
এরই সূত্র ধরে সেনিয়ার বাড়িতে রুবেল নিয়মিত যাতায়াত শুরু করে। রুবেল সোনিয়ার বাড়ির বাজার করে দিতো। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে ঘনিষ্টতার সৃষ্টি হয়। রুবেল সোনিয়াকে বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে নিয়ে গিয়ে অন্তরঙ্গ ছবি তোলে। এ সব ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে সোনিয়ার কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় রুবেল। পরে ৪০ হাজার টাকা আদায়ের জন্য সোনিয়া রুবেলকে চাপ দেয়। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এ সময় রুবেল সোনিয়াকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়। এ ছাড়া তাদের ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দেবে বলে হুমকি দেয়।
এক পর্যায়ে রুবেলের ফোন নম্বর বন্ধ করে দেয় সেনিয়া। এতে আরো আরো ক্ষিপ্ত হয় রুবেল। রুবেল গ্রামে সোনিয়ার বিরুদ্ধে নানা প্রপাকান্ডা ছড়ায়। বিষয়টি সেনিয়ার বাড়ির লোকজন জেনে যায়। এ ঘটনায় সোনিয়া মুষড়ে পরে। লোকলজ্জার ভয়ে রবিবার বিকেলে নিজের ঘরে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে সোনিয়া।
পুলিশ ময়না তদন্ত শেষে সোনিয়ার লাশ পরিবারের সদস্যদের হাতে হস্তান্তর করে। সোমবার বটবাড়ি গ্রামের করবস্থানে সোনিয়ার লাশ দাফন করা হয়।
গৃহবধূ সোনিয়া বড় মেয়ে ইমা সুলতানা দোলা জানান, রুবেল তার মাকে মানসিক নির্যাতন করেছে। পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছে। আম্মুর কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। টাকা চাইতে গেলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছে। তার কারণেই বাধ্য হয়ে আম্মু আত্মহত্যা করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
অভিযুক্ত রুবেল খানের স্ত্রী শিমু বেগম বলেন, আমার স্বামীর সোনিয়ার বাড়িতে যাতায়াত ছিলো। সোনিয়াও আমাদের বাড়িতে আসতো। আমার স্বামী তাকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা করেছে বলে আমার বিশ্বাস হয় না। এ ঘটনায় আমার স্বামীকে ফাঁসাতে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।
গোপালগঞ্জের বৌলতলী পুলিশ ফাঁড়ীর এস আই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো: ফরিদুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে একটি ইউডি মামলা হয়েছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করছি। আশাকরি দ্রুত এ ঘটনার রহস্য উদঘাটন করতে পারবো।

তীব্র গরমের মধ্যেও প্রচারণা তুঙ্গে

শ্রমিকদের পাশে থাকার অঙ্গীকার খালেক-মঞ্জু’র

খুলনা : খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি) নির্বাচন আগামী ১৫ মে। প্রার্থীদের হাতে আছে মাত্র ৫ দিন। ভোটারদের মন জোগাতে কাকডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দ্বারে দ্বারে ছুটে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা। গতকাল বুধবার খুলনায় তাপমাত্রা ছিল ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তীব্র গরমের মধ্যেও প্রচারণায় কোন কমতি নেই। বরং নেতাকর্মীদের পদচারণায় প্রতিদিনই নতুন নতুন মাত্রা পাচ্ছে প্রচারণায়। স্থানীয় নেতাদের সাথে কেন্দ্রীয় নেতারাও গরম উপেক্ষা করে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এক কথায় খুলনা মহানগর জুড়ে নির্বাচনী আমেজ।
আওয়ামী লীগ সূত্র জানায়, গতকাল বুধবার খালিশপুরের ৮, ১০ ও ১১নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেন মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক। সকাল ৮টায় তিনি খালিশপুরস্থ খুলনা বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এরপর ৮, ১০ ও ১১নং ওয়ার্ডের ক্রিসেন্ট জুট মিল, স্টাফ কোয়ার্টার, বিআইডিসি রোড, প্লাটিনাম জুবিলী জুট মিল সংলগ্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন। এছাড়া তিনি ক্রিসেন্ট জুট মিল শ্রমিক কার্যালয়ের সামনে ও প্লাটিনাম জুবিলী জুট মিলে পথসভায় বক্তব্য রাখেন।
পথসভায় মেয়র প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, খুলনার পাটকলসহ সব ধরণের শিল্প কলকারখানার শ্রমিক ও তাদের সন্তানদের ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে ‘শ্রমিক কল্যাণ ট্রাস্ট’ গঠন করা হবে। যথা সময়ে শ্রমিকের বেতন-ভাতা প্রদানসহ তাদের নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য ও সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে সব ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হবে।
তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ কোনদিন শ্রমিককের স্বার্থবিরোধী কাজ করেনি আর ভবিষ্যতেও করবে না। শ্রমিকবান্ধব বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা সব সময়ে শ্রমিকের কল্যানে কাজ করছেন। ১৫ মে’র সিটি নির্বাচনে তাকে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী করলে মজুরী কমিশন বাস্তবায়নসহ শ্রমিদের কল্যাণে সরকার প্রধানের সাথে আলোচনার পথ সুগম হবে। তালুকদার খালেক সবার জন্য বসবাস যোগ্য একটি আধুনিক নগরী গড়তে স্বাধীনতা ও উন্নয়নের প্রতীক নৌকায় ভোট দেয়ার জন্য সকালের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
গণসংযোগকালে মেয়র প্রার্থীর সাথে উপস্থিত ছিলেন জাসদ খুলনা মহানগর শাখার সভাপতি ও ১৪ দল নেতা রফিকুল হক খোকন, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন খান, খালিশপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম বাশার, ক্রিসেন্ট জুট মিল সিবিএর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ পান্নু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা আঃ মজিদ বকুল, আঃ রহমান, ফিরোজ আহমেদ, আবু হানিফ, হেমায়েত উদ্দিন আজাদী, মুরাদ হোসেন, আবু জাফর, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ সাহিদুর রহমান সাহিদ, সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী রেহানা গাজী, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আঃ সাত্তার লিটন, সাধারণ সম্পাদক বাবলু মিয়া, ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কাউন্সিলর প্রার্থী মুন্সি আব্দুল ওয়াদুদ, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী পারভীন আক্তার, নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুর রহমান পলাশ, প্লাটিনাম জুট মিলের সিবিএ’র সাবেক সভাপতি কওছার আলী মৃধা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, হামিদ ফারুক, ওমর ফারুক, দ্বীন ইসলাম, ইউসুফ মোল্লা, ওসমান গনি, ইমরুল হোসেন, ওয়াহিদ, হাসিবুর রহমান, মাসুদুর রহমান, মুনসুর আহমেদ প্রমুখ।
অপরদিকে গতকাল বুধবার সকালে কেসিসির ২নং ওয়ার্ড এলাকায় গণসংযোগ, পথসভা ও মতবিনিময় সভা বক্তৃতা করেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু। এসময় নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, দলীয় প্রার্থীদেরকে জিতাতে রাষ্ট্রিয় প্রতিষ্ঠানকে কাজে লাগাতে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে। আইনশৃংখলা এবং দলীয় বাহিনী দিয়ে জনগণের ভোটাধিকার ছিনিয়ে নিতে গভীর পরিকল্পনা চলছে। তিনি এ সকল পরিকল্পনা প্রতিহত করতে সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে দলীয় সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীকে প্রস্তুত থাকতে বলেন। তিনি শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, নির্বাচিত হলে শ্রমিকদের সকল ন্যায় সঙ্গত দাবী এবং তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় তার সর্বোচ্চ সহযোগিতা থাকবে।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ২০ দলীয় জোটের বিজেপির সভাপতি মোঃ লতিফুর রহমান, সাতক্ষিরার সাবেক এমপি কাজী আলাউদ্দিন, জাতিয় পার্টি (জাফর) সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামাল, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুর রশিদ, মহানগর নেতা সিরাজউদ্দিন সেন্টু, খানজাহান আলী থানা বিএনপির সভাপতি মীর কায়ছেদ আলী, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি শেখ ইকবাল হোসেন, মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তরিকুল ইসলাম, শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক ওয়াহিদুজ্জামান, আবু সাঈদ হাওলাদার আব্বাস, গোলাম রসুল খান, শেখ আব্দুস সালাম, আনছার চৌধুরী, রফিকুল ইসলাম শুকুর, এনামুল হাসান ডায়মন্ড, শরীফ মোজাম্মেল হক, শেখ হাসিবুল হাসান, তোকাচ্ছের আলী, মোল্যা সোহাগ হোসেন প্রমুখ। এ সময় ওয়ার্ডের বিএনপি মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ সাইফুল ইসলাম এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী লায়লা আঞ্জুমান বানু তার সাথে গণসংযোগে উপস্থিত ছিলেন।

গোপালগঞ্জে বাস-মটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গীপাড়া উপজেলার জিটি স্কুলের সামনে মঙ্গলবার সন্ধায় বাস ও মটরসাইকেলের সংঘর্ষে ফরহাদ শেখ (৩০) নামে এক ব্যক্তি নিহত ও সাহিনুজ্জামান (৩২) নামে এক ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধা ৭টার দিকে ঢাকা থেকে টুঙ্গীপাড়া গামী গোল্ডেন লাইন বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, দুর্ঘটনার পর পর আহতদের কে উদ্ধার করে টুঙ্গীপাড়া ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে নেয়ার পর গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত ডাক্তার ফরহাদ শেখ (৩০) কে মৃত ঘোষণা করেন এবং পা বিচ্ছিন্ন সাহিনুজ্জামান (৩২) কে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
নিহত ফরহাদ শেখ (৩০) গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী উপজেলার চরভাটপাড়া গ্রামের মৃত আনোয়ার শেখের ছেলে এবং পা বিচ্ছিন্ন সাহিনুজ্জামান (৩২) নড়াইল জেলার ধলইতলা গ্রামের গাজী আব্দুল জলিলের ছেলে। খোজ নিয়ে জানা গেছে বর্তমানে সাহিনুজ্জামানের অবস্থা ও আশংকা জনক।

পলিথিনের নৌকায় বাড়ি যাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : সবেমাত্র বোরো ধান কাটা শুরু। আকাশে প্রচুর মেঘ, একটু মেঘ হলেই নামে অঝোড়ে বৃষ্টি। ঝড়ো হাওয়াতো সাথে থাকছেই। এখানকার কৃষকের কোটি টাকার স্বপ্ন তরমুজ ফসলতো শেষ করে দিয়েছে আগেই। বাকি আছে ইরি বোরো ধান। হয়তো এটাও বুঝি নষ্ট হওয়ার পালা। তবুও কি করা যাবে সবই তো প্রকৃতির হাত। চারিদিকে বৃষ্টির পানিতে থৈ থৈ। কোটালীপাড়া উপজেলার কিছু নিচু এলাকায় বৃষ্টি ও খালের পানি এক হয়ে পাকা ধান পানিতে তলানো প্রায়। কৃষকরা অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে পাকা ধান ঘড়ে তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। কিছু কিছু নিচু এলাকায় অল্প পানি হওয়াতে না চলে নাও না চলে পাও। আবার মাথায় করে কাটা ধান তুলতে সমস্য হচ্ছে পা নরম মাটিতে ঢুকে যাচ্ছে। তাই এখানকার কৃষকরা অল্প খরচে পাকা ধান কাটার পরে জমি থেকে পরিবহনের জন্য একটা অভিনব কায়দা তৈরি করছেন। এই কায়দাটা হল পলিথিনের নৌকা। বাজার থেকে দুই থেকে তিন কেজি পলিথিন কিনে লম্বা করার পরে ভিতরে কিছু হাওয়া ঢুকিয়ে দুই পাশে শক্ত হরে বেধে দেওয়া হয়। এরপর পলিথিনের মাঝের যায়গাটায় ধানের আটি ভর্তি করে রাখা হয় ঠিক যেন একটি নৌকা। ব্যাস হয়ে গেল পলিথিনের নৌকা।
এবার পানিতে ভাসালেই হল। আগে থেকে কিছু হাওয়া আটকানোতে পানিতে এই নৌকা ভাসালেই ওই হাওয়ায় ভারসাম্য রক্ষা করে। যতই ভর্তি করা হয় ততই নৌকা পানিতে ভাল চলে। এই কাটা ধান হাটু পানি থেকে শুরু করে খালের গভীর পানির মধ্য দিয়ে পলিথিনের নৌকা দুই-চার জনে বেয়ে নিয়ে যায় কৃষকের বাড়িতে। নৌকা ডুবে যাওয়ার কোন ভয় থাকেনা।
এ ব্যাপারে কলাবাড়ী ইউনিয়নের বুরুয়া গ্রামের কৃষক পরিতোষ বিশ্বাস বলেন, এই পলিথিনের নৌকা তৈরির আগে কাটা ধান পরিবহনের জন্য আমাদের অনেক ঝামেলা হত যেমন নৌকা সহসা পাওয়া যেত না আর পাওয়া গেলেও গুনতে হত অনেক টাকা বা ধান। প্রতিদিন নৌকা প্রতি এক থেকে দুই মণ ধান দিতে হত যা কৃষকের জন্য অত্যান্ত ব্যয় বহুল ছিল আবার সময় ও বেশী লেগে যেত। আর এখন পলিথিনের নৌকা ব্যবহার করে কাটা ধান পরিবহনের জন্য অনেক সময় কম লাগে এবং ব্যয় ও অনেক কম।
পলিথিনের নৌকা ব্যবহারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রথীন্দ্রনাথ বিশ্বাস বলেন, পলিথিনের নৌকায় কাটা ধান পরিবহনের জন্য ভাল। যেখানে অল্প পানিতে কাঠের নৌকা চলাচল করতে সমস্য হয় সেখানে পলিথিনের নৌকা ব্যবহার করে কৃষকরা কাটা ধান পরিবহন করতে সুবিধা হয়, তার পরও পলিথিন ফেটে যেতে পারে বলে এইটার ব্যবহারে ভয় থাকে।

সূর্যালোক গুণীসাংবাদিক সম্মাননা পাচ্ছেন চাঁদ ও আক্কাস সিকদার

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদান রাখায় ঝালকাঠিতে ‘সূর্যালোক গুণীসাংবাদিক সম্মাননা ২০১৮’ এর জন্য শামসুল ইসলাম চাঁদ (মরণোত্তর) ও মোঃ আক্কাস সিকদার মনোনীত হয়েছেন। সৃজনশীল সাংবাদিকতা উৎসাহিত করতে ‘মানুষ মানুষের জন্য’ স্লোগানে প্রতিষ্ঠিত স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘সূর্যালোক ট্রাস্ট’ প্রথমবারের মতো এ সম্মাননা দিচ্ছে। বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে আয়োজন করা হবে ‘সম্মাননা অনুষ্ঠান’। গুণী সাংবাদিককে সম্মাননা স্মারক, সনদপত্র, ১০ হাজার টাকার চেক ও উপহার সামগ্রী দেয়া হবে। মনোনয়নের ক্ষেত্রে শুধু ঝালকাঠি জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের বিবেচনা করা হয়। এছাড়া পেশার মর্যাদা রক্ষা ও সত্যের পথে নির্ভীক থাকা এবং মানবাধিকার, দুর্নীতি ও এলাকার জনগুরুত্বপূর্ণ সমস্যা সংক্রান্ত রিপোর্ট গুরুত্ব পায়।

দৈনিক ইত্তেফাক ও বাংলাদেশ বেতারের সাবেক প্রতিনিধি মরহুম শামসুল ইসলাম চাঁদের জন্ম ১৯৪৪ সনের ১ জানুয়ারি। সাংবাদিকতা করেছেন দীর্ঘ ৪০ বছর। যা শুরু হয়েছিল ১৯৬৭ সনে সাপ্তাহিক পূর্বদেশ পত্রিকার মাধ্যমে। তিনি ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের ১১ বছর সভাপতি ও ২০ বছর সাধারণ সম্পাদক পদের দায়িত্ব পালন করেন। তার মূল পেশা ছিল শিক্ষকতা এবং তিনি ‘চান স্যার’ হিসেবেই বেশি পরিচিত ছিলেন। এছাড়াও তিনি ছিলেন কবি, সাহিত্যিক, সংস্কৃতিজন। ২০০৭ সালের ৮ জানুয়ারি তিনি ইন্তেকাল করেন।

আক্কাস সিকদার দৈনিক যুগান্তর, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), দীপ্ত টিভি ও দৈনিক আজকের বার্তার জেলা প্রতিনিধি। জন্ম ১৯৭৬ সনের ১ জানুয়ারি। সাংবাদিকতা শুরু ১৯৯৭ সনে আজকের বার্তার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে। পরে দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক ভোরের ডাক, দৈনিক জনতা, বৈশাখী টিভি, ইনডিপেন্ডেট টিভি, একাত্তর টিভি ও সিএসবি টিভিতে কাজ করেন। বর্তমানে তিনি ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সহসভাপতি। আগে সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষ পদের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি আইন পেশায়ও জড়িত।

পুলিশের হাতে দলীয়নেতা লাঞ্চিতের ঘটনায় চালনা পৌর ছাত্রলীগের প্রতিবাদ

দাকোপ প্রতিনিধি : নিজ স্বজনদের কাছে পাওনা টাকা চাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট কথা কটাকাটির মাঝে দাকোপের কামিনিবাসীয়া পুলিশ ফাঁড়ীর কর্মকর্তা প্রভাষ মিত্র অযাচিতভাবে তিলডাঙ্গা ইউনিয়ন বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সভাপতি রাজিব মন্ডলকে স্থানীয় তেতুল বাজারে লাঞ্চিত করে। পুলিশের অনৈতিক হস্তক্ষেপ এবং একজন রাজনৈতিক কর্মীকে অন্যায়ভাবে প্রকাশ্যে লাঞ্চিতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চালনা পৌরসভার সভাপতি রাসেল কাজী, সাধারন সম্পাদক রাহুল রায়, ছাত্রনেতা নাইম ইসলাম জামিল, অচিন্ত্য রায়, মামুন সরদার, মাসুম হাওলাদার, তানভীর শেখ, সোহেল হাওলাদার, আসাদুল ইসলাম, সৌরভ মন্ডল, লিটন শেখ, দেব মন্ডল, রাব্বি শেখ, সত্য রায় প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ রাজিব মন্ডলকে লাঞ্চিত করায় পুলিশ কর্মকর্তা প্রভাষ মিত্রের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনে পুলিশের উর্ধর্তন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে। বিবৃতিতে অন্যথায় এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে অভিযুক্ত পুলিশের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামার ঘোষনা দেওয়া হয়েছে।