দাকোপে পাল্টা হামলায় নব্য চেয়ারম্যান পুত্র হাসপাতালে : মামলার প্রস্তুতি

দাকোপ প্রতিনিধি : দাকোপে এবার নবনির্বাচীত উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসভবনে পাল্টা হামলা ভাংচুরের অভিযোগ বর্তমান চেয়ারম্যান পুত্রের বিরুদ্ধে। চেয়ারম্যান পুত্রসহ ৩ জন হাসপাতালে ১০ লক্ষাধীক টাকার মালামাল লুটের অভিযোগে মামলার প্রস্তুতি। প্রতিবাদে সাবেক সাংসদের কার্যালয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
থানায় দাখিলকৃত এজাহার সুত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে চালনা বাজারে অবস্থিত দাকোপ উপজেলার নবনির্বাচীত চেয়ারম্যান মুনসুর আলী খানের বাসভবনে প্রতিপক্ষ বর্তমান চেয়ারম্যান দাকোপ উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আবুল হোসেনের পুত্র মাসুম শেখের নেতৃত্বে ১৪/১৫ জনের সন্ত্রাসীদল দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা করে। হামলাকারীরা গেটের দারোয়ান খোকন শেখকে মারপিট করে ঘরে প্রবেশ করে। এ সময় চেয়ারম্যান পুত্র ইমরান খানকে ঘরের ভীতর থেকে বেদড়ক মারপিট করতে করতে উঠানে এনে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় লোহার রড দিয়ে আঘাত করে রক্তাত্ব জখম করে। হামলাকারীদের হাত থেকে ইমরানকে রক্ষা করতে গিয়ে দারোয়ার খোকন এবং সবুজপল্লী গ্রামের সাজ্জাদ গাজীর পুত্র ইমরানের বন্ধু শাহিন গাজী ও গুরুত্বর আহত হয়। এ সময় হামলাকারীরা ১০ লক্ষাধীক টাকার মালামাল ভাংচুর ও লুটপাট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করা হয়। পরবর্তীতে ইমরানসহ আহত ৩ জনকে দাকোপ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় মাসুম শেখ, আরিফুল গাজীসহ ১০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জনকে আসামী করে ইমরান বাদী হয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ দিকে নির্বাচীত চেয়ারম্যান মুনসুর আলী খানের বাসভবনে হামলা ভাংচুর লুটপাট ও চেয়ারম্যান পুত্রকে আহত করার প্রতিবাদে স্থানীয় আওয়ামীলীগের একাংশের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় ডাকবাংলাস্থ সাবেক এমপি ননী গোপাল মন্ডলের কার্যালয়ে উপজেলা আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অসিত বরন সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তৃতা করেন, উপজেলা আ’লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ জি এম কামরুজ্জামান, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক গোলাম মোস্তফা খান, সাবেক মেয়র অধ্যক্ষ ড.অচিন্ত্য কুমার মন্ডল, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ যুবরাজ, শেখ সাব্বির আহম্মেদ, সুরঞ্জন রায়, যুবলীগনেতা আফজাল হোসেন খান, গোলাম রসুল, শেখ বাবুল আকতার, বিধান চন্দ্র ঘোষ, বিপ্লব বিশ্বাস, বিলাস বিশ্বাস, সুকৃতি রায়, অনুপ বাগচী প্রমুখ। উল্লেখ্য এর আগে বুধবার দুপুরে ইমরানের নেতৃত্বে মাসুমের অফিসে হামলার অভিযোগে পৃথক একটি এজাহার দাখিল হয়।

বটিয়াঘাটার কাজীবাছা নদীতে মৎস্য অধিদপ্তর ও কোষ্ট গার্ডের অভিযান

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি : বটিয়াঘাটা মৎস্য অধিদপ্তর ও কোষ্ট গার্ড পশ্চিম জোন এর যৌথ সমন্বয়ে বুধবার সকাল ৮ টার দিকে কাজীবাছা নদী মৎস্য সংরক্ষণ আইনের আওতায় এক ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে রেনু পোনা ধরার ৯টি জাল, ৬টি বেহুন্দি জাল ও ৩টি বেড় জাল সহ সর্বমোট ৫ হাজার মিটার জাল জব্দ করে। পরে তা এক ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। আদালত পরিচালনা কালে উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ জিয়াউর রহমান, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল মামুন, কোষ্ট গার্ডের পেটি অফিসার জাহাঙ্গীর আলম, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ হাবিবুর রহমান,যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোনায়েম খান, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রজিৎ টিকাদার সাংবাদিক মহিদুল ইসলাম শাহীন, সাংবাদিক পরিতোষ রায় প্রমূখ।

ডুমুরিয়ায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে দিনমজুরের মৃত্যু

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি : ডুমুরিয়ায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে এক দিনমজুর মারা গেছে। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কুলবাড়িয়া গ্রামে। থানা পুলিশ লাশের সুরোতহাল রির্পোট শেষে মর্গে প্রেরণ করেছে।
পুলিশ ও পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার আটলিয়া ইউনিয়নের কুলবাড়িয়া গ্রামের আফছার গাজীর ছেলে আবু তাহের গাজী (২৫) বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মারা গেছে। সে প্রতিবেশি সামছুর শেখের ছেলে আলতাপ হোসেন শেখের বাড়িতে দিনমজুর হিসেবে বৃহস্পতিবার সকালে ধানের কাজ করতে গিয়েছিল। এ সময় মালিক আলতাপ তাকে বৈদ্যুতিক মিটারটি সরিয়ে অন্য ঘরে লাগানোর নির্দেশ দেন। আর এ কাজটি করতে গিয়েই সে মারা যায়।
এ প্রসঙ্গে ডুমুরিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান, বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে নিহত তাহেরের লাশ উদ্ধার ও সুরোতহাল রির্পোট শেষে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়েছে যার নং-১৯।

শেষ ধাপের ১৭ উপজেলার নির্বাচন ১৮ জুন

ঢাকা অফিস : কয়েক ধাপে চলমান উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ ধাপের ১৭ উপজেলার নির্বাচন ১৮ই জুন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ৬টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ হবে ইভিএম-এ। আজ বৃহস্পতিবার, রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে পঞ্চম ধাপের তফসিল ঘোষণা শেষে এসব তথ্য জানান নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ।

তিনি বলেন, এই ধাপ শেষ ধাপ নয়। অক্টোবরে আরেকটি ধাপের নির্বাচন হবে। যদিও শেষধাপে অল্প কয়েকটি উপজেলায় ভোটের মাধ্যমে পঞ্চম উপজেলা পরিষদের নির্বাচন শেষ হবে।

তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিন ২১ মে, যাচাই বাছাই ২৩ মে এবং প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৩০ মে। এই তফসিলে ১৭টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ হবে।

প্রসঙ্গত, দলীয়ভাবে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে বিএনপিসহ বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল বর্জন করেছে। ফলে উপজেলা নির্বাচনে জৌলুস নেই বললেই চলে। গত ১০ মার্চ প্রথমধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গত ১৮ মার্চ দ্বিতীয় ধাপে, ২৪ মার্চ তৃতীয় ধাপে এবং ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

বাজারে ভেজাল পণ্য: দুই সংস্থার প্রতিধিনিকে হাইকোর্টের তলব

ঢাকা অফিস : বাজারে ৫২টি প্রতিষ্ঠানের ভেজাল পণ্যের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, এর ব্যাখ্যা দিতে বিএসটিআই ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের দুইজন প্রতিনিধিকে তলব করেছে হাইকোর্ট। এই বিষয়ে করা রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষ, আদেশ রবিবার।

বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেয়। কনসাস কনজ্যুমার সোসাইটি বিএসটিআইয়ের পরীক্ষার মাধ্যমে নির্ধারণ করা প্রাণ, এসাই, ডানকান, ড্যানিশসহ ৫২টি প্রতিষ্ঠানের পণ্য জব্দ করার নির্দেশনা চেয়ে রিট দায়ের করেন। এসব কোম্পানির কিছু পণ্য নিম্নমানের ও অস্বাস্থ্যকর, যা বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় উঠে এসেছে। আদালত এসব বিষয়ে উদ্বেগ জানিয়ে বলে, সব যদি আদালত দেখে তাহলে অন্যদের কাজটা কী?

এর আগে, বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্স অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) পরীক্ষায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি মানহীন ও নিম্নমানের পণ্য জব্দ এবং এসব পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশনা চেয়ে রিট আবেদন করা হয়েছে। রিটে পণ্যের গুণগত মান উন্নত না হওয়া পর্যন্ত উৎপাদন বন্ধেরও নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে, হাইকোর্টে ভোক্তা অধিকার সংস্থা কনসাস কনজুমার্স সোসাইটির (সিসিএস) পক্ষে জনস্বার্থে সংগঠনের আইন উপদেষ্টা আইনজীবী ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান এই রিট করেন।

রিটের বিবাদীরা হলেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্স অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) মহাপরিচালক (ডিজি), বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

এর আগে ৬ই মে বিএসটিআই কর্তৃক বাজারে এসব পণ্যে ভেজাল ধরা পড়ার পরও জব্দ না করা, সেগুলো বাজার থেকে প্রত্যাহারের ব্যবস্থা না নেয়া ও প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় দুই মন্ত্রণালয়ের সচিব ও তিন প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে আইনি নোটিশ পাঠান ভোক্তা অধিকার সংস্থা কনসাস কনজুমার্স সোসাইটি (সিসিএস)। নোটিশের পরও যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় এ রিট আবেদন করা হয়।

ইয়াঙ্গুনে বিমান দুর্ঘটনায় ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুনে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিমান দুর্ঘটনা তদন্তে ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর খিলক্ষেতে বাংলাদেশ বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকায় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জনসংযোগ শাখার মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ।

মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ আরও জানান, ‘আহতদের চিকিৎসার যে কার্যক্রম চলছে, সেটা বিমানের পক্ষ থেকে আমরা পুরোপুরি সাপোর্ট দিচ্ছি। এর পরবর্তিতে যদি আরও উন্নত চিকিৎসা লাগে আমরা সেটার ব্যবস্থাও করবো। সব যাত্রীই এখন শঙ্কা মুক্ত আছেন।’

তিনি জানান, ‘পুরো বিষয়টি তদন্ত করার জন্য বিমানের পক্ষ থেকে একটি ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। যার নেতৃত্বে আছেন বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেইফটি কেপ্টেন শোয়েব চৌধুরী। তিনি খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে এর প্রতিবেদন দিবেন। প্রতিবেদন প্রকাশের সময়টা পরে জানানো হবে।’

এর আগে, আজ বৃহস্পতিবার ভোর সোয়া পাঁচটায় মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন থেকে ১৭ যাত্রী নিয়ে দেশে ফিরে বাংলাদেশে বিমানের বিশেষ ফ্লাইট। বিশেষ ফ্লাইট বিজি ১০৬১- এ করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন তারা। তবে তাদের মধ্যে ইয়াঙ্গুনে দুর্ঘটনা কবলিত বিমানের কোনও যাত্রি নেই।

বুধবার সন্ধ্যায় মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বৈরি আবহাওয়ার মধ্যে অবতরণের সময় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-০৬০ ফ্লাইটটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। এ ঘটনায়, বিমানটির পাইলটসহ অন্তত চারজন গুরুতর আহত হন।

বিজি জিরো সিক্স জিরো ফ্লাইটটিতে মোট যাত্রী ছিল ৩৫ জন। এদের মধ্যে ইয়াঙ্গুনের নর্থ ওক্কালাপা হাসপাতালে ১৯ জন ভর্তি ছিলেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাতেই ৫ জনকে ছুটি দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ফ্লাইটটিতে ১৫ জন বাংলাদেশি ও ১৩ জন বিভিন্ন দেশের যাত্রী ছিলেন। এই দুর্ঘটনায় ২৯ যাত্রী এবং পাইলট ক্রুসহ ৩৫ জনই কমবেশি আহত হয়েছিলেন।

ওই ফ্লাইটের যাত্রীদের স্বজনরা জরুরি তথ্যের জন্য একটি হেল্প লাইন খুলেছে বিমান কর্তৃপক্ষ। যার নাম্বার ০২৮৯০১৫৩০

বুধবার বোম্বারডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ ৪০০ বিমানটি বিকেল ৩.৪০ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পর সন্ধ্যা ৬.২২ মিনিটে ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। অবতরণের সময় বিমানটিতে, এক শিশুসহ ২৯ জন যাত্রী ছিলেন।

কানাডায় প্রস্তুতকৃত বিমানটি সর্বোচ্চ ৭৪ জন যাত্রী নিয়ে ৫৫৬ কিলো/ঘন্টা গতিতে ২৭০০০ ফুট উঁচুতে উড়তে সক্ষম ছিল। বাংলাদেশ বিমানের বহরে এ ধরনের তিনটি বিমান রয়েছে যার দু’টি মিশরের স্মার্ট এভিয়েশন কোম্পানি থেকে ২০১৫ সালে পাঁচ বছরের চুক্তিতে ভাড়ায় আনা হয়।

উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেয়া হলো মওদুদকে

ঢাকা অফিস :  হৃদরোগে আক্রান্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে, বাংলাদেশ বিমানের একটি নিয়মিত ফ্লাইটে তিনি সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের সঙ্গে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী হাসনা জসীম উদ্দীন মওদুদ।

হৃদরোগের আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসকদের পরামর্শেই উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপু্র নেয়া হয় মওদুদকে। সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের অধ্যাপক ডা. চার্লস এর অধীনে চিকিৎসা নেবেন মওদুদ।

ব্যারিস্টার মওদুদের ব্যক্তিগত সহকারী মমিনুর রহমান সুজন বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। সেই সঙ্গে, মওদুদ আহমদের দ্রুত সুস্থতা কামনায় স্ত্রী হাসনা মওদুদ দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

গত ৫ই মে দুপুরে, হাইকোর্টে থাকাকালীন বুকে ব্যথা তীব্র হয় এবং তিনি ফ্লোরে পড়ে যান। এরপরই তাকে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে নেয়া হয়। তখন, দায়িত্বরত চিকিৎসকেরা মওদুদকে সিসিইউতে ভর্তি করেন। এরপর থেকে সেখানেই চিকিৎসাধীন ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ।

একা অধিকারী ডাক্তার হতে চায়

একা অধিকারী ২০১৯ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় বটিয়াঘাটা থানা হেড কোয়াটার মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে। সে বটিয়াঘাটা বাজারের বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী স্বপন কুমার অধিকারীর একমাত্র কন্যা। একা অধিকারী ডাক্তার হতে চায়। সে সকলের কাছে আর্শিবাদ প্রার্থী।