ফুলতলায় এতিম শিশু হত্যাকারীদের আটকের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশঃ কালা জাহাঙ্গীর আটক

ফুলতলা অফিসঃ খুলনার ফুলতলায় চাঞ্চল্যকর এতিম শিশু ইয়াসিন আরাফাত (৯) হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের আটকের দাবিতে সচেতন এলাকাবাসির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। এদিকে আরাফাত হত্যা ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ মঙ্গলবার সকালে ফুলতলার খানজাহানপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর বিশ্বাস ওরফে কালা জাহাঙ্গীর (৫৫) কে আটক করে।
মঙ্গলবার বেলা ১১টায় স্থানীয় পায়গ্রাম কসবা ফেরীঘাট চত্বরে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি কাজী জহির রায়হানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা আওয়ামীলীগ নেতা এ্যাড. কাজী তারিখ হাসান মিন্টু। যুবলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম পিন্টুর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শেখ আসলাম হোসেন, প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার বিশ্বাস, মাদ্রাসা সুপার শহিদুল ইসলাম, নিহত আরাফাতের মা শাহিনা বেগম, শেখ আঃ সালাম, শেখ শাকির হোসেন, কবি রাজু খন্দকার, ডাঃ মোহন, কাজী মোস্তাইীন, লেলির সরদার, হাফিজুর রহমান, শেখ তোসলিম হোসেন প্রমুখ। অপরদিকে পুলিশ মঙ্গলবার সকালে ফুলতলার খানজাহানপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর বিশ্বাস ওরফে কালা জাহাঙ্গীর (৫৫) কে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

দাকোপ প্রেসক্লাবে জেলা তথ্য অফিসের প্রেস ব্রিফিং

দাকোপ প্রতিনিধি : দাকোপে খুলনা জেলা তথ্য অফিসের উদ্যোগে “উন্নত রাষ্ট ও জাতি গঠন” বিষয়ে স্থানীয় লক্ষীখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আলোচনা সভা উপলক্ষে দাকোপ প্রেস ক্লাবে এক প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় দাকোপ প্রেসক্লাব’র নিজস্ব দ্বীতল ভবনে দাকোপ প্রেসক্লাবের সভাপতি শচীন্দ্র নাথ মন্ডলের সভাপতিত্বে ব্রিফিং করেন জেলা তথ্য অফিসের উপ পরিচালক গাজী জাকির হোসেন। তিনি বলেন বর্তমান সরকার তৃতীয় মেয়াদসহ বিগত বছরে দেশবাসীর প্রত্যাশা অনুযায়ী একটি সুখী, সমৃদ্ধ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে। সরকার দেশকে নি¤œ-মধ্যম আয়ের দেশে পরিনতসহ নানা বিষয়ে উন্নতি সাধন করেছে। প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন দাকোপ প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক জি, এম রেজা, সাবেক সভাপতি শিপন ভূঁইয়া, সাবেক সাধারন সম্পাদক আজগর হোসেন ছাব্বির, কোষাধ্যক্ষ বিধান চন্দ্র ঘোষ, দপ্তর সম্পাদক জি এম, আজম, সহ সম্পাদক গাজী আবুল বাশার, দিপক রায় ,এস এম,মামুনুর রশিদ, জিএম, জাকির হোসেন, পারুল বেগম, জেলা তথ্য অফিসের সহকারী তথ্য কর্মকর্তা আব্দুল্যা আল মাসুদ, মোঃ খন্দকার আরিফুল ইসলাম, মোঃ জাহাঙ্গির আলম প্রমুখ।

দাকোপে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস পালিত

দাকোপ প্রতিনিধি : দাকোপে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উদ্যোগে নানা আয়োজনে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস পালিত হয়েছে।
মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় “মর্যাদা ও অধিকার স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রসূতি সেবায় অঙ্গিকার” এই শ্লোগানে ব্যানার প্লাকার্ডসহ এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী হাসপাতাল চত্বর থেকে বের হয়। র‌্যালীটি উপজেলা সদরের গুৃরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে হাসপাতাল সেমিনার কক্ষে ফিরে এক আলোচনা সভার মাধ্যমে শেষ হয়। হাসপাতালের গাইনী জুনিয়র কনস্যালটেন্ট ডাঃ সন্তোষ কুমার মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দাকোপ উপজেলা চেয়ারম্যান মুনসুর আলী খান। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল ওয়াদুদ। ইউএসএআইডির খাদ্য নিরাপত্তা উন্নয়ন কার্যক্রম নবযাত্রা, ওয়ার্ল্ডভিশন বাংলাদেশ, সুশীলন, রুপসা সংস্থা, এ্যাডরা বাংলাদেশ, সূর্যের হাসি এবং ফ্রেন্ডশীপ এনজিও’র অংশ গ্রহন সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যন্যের মধ্যে আলোচনা করেন ডাঃ সাইফুদ্দিন আহম্মেদ, সংশ্লিষ্ট এনজিও প্রতিনিধি নাজমিন আরা, হিরন্ময় মন্ডল, হাসিবুল হোসেন টুটুল, চম্পা দাস, রীনা বিশ্বাস, কাজী ওয়াহিদুজ্জামান, আব্দুল খালেক, সুস্মিতা রায়, আজিজুর রহমান প্রমুখ।

পলাশবাড়ীতে চোরাই মোটর সাইকেলসহ আটক ১

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ীতে চোরাই মোটর সাইকেলসহ চোর আটক করেছে থানা পুলিশ।
আজ ২৭ মে সোমবার দুপুর আড়াইটার ঘটিকার সময় পলাশবাড়ী জনতা ব্যাংকের সামন হতে মোটর সাইকেল চোর জামাত আলীকে মোটর সাইকেল চুরি করবার সময় মোটর সাইকেলসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয় এবং তার হেফাজত হতে চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়। এদিন দুপুরে সোনালী ব্যাংকের সামনে হতে একটি বাজাজ ১০০ সিসি মোটর সাইকেল চুরি হয়। এ মোটর সাইকেলটি খুজতে থাকে পুলিশ এসময় সদরের জনতা ব্যাংক মোড় এলাকায় আরো একটি মোটর সাইকেল চুরির সময় হাতে নাতে গ্রেফতার হয় মোটর সাইকেল চোর জামাত আলী।
গ্রেফতারকৃত জামাত আলী (৪৫) স্যাদুল্যাপুর উপজেলার বৈষ্ণবদাস গ্রামের মৃত হাকিম উদ্দিনের ছেলে।
এখবর নিশ্চিত করে থানা অফিসার ইনচার্জ জানান,এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে ।

খুলনায় এক সপ্তাহের অভিযানে মাদকসহ আটক ১৮

কামরুল হোসেন মনি : খুলনার কয়েকটি উপজেলায় ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকায় রয়েছে। এ সব ভারতীয় সীমানা দিয়ে চোরাই পথে মাদক ঢুকে পড়ে বাংলাদেশে। চোরাই পথে ভারত থেকে আসা মাদকের মধ্যে রয়েছে ফেন্সিডিল, গাঁজা, ইয়াবা ও বিভিন্ন ধরনের মদ। খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকায় মাদক বিক্রেতারা কৌশল অবলম্বন করছে। আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চোরাচালান ও মাদকপ্রবণ এলাকায় মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানের লক্ষ্যে ১৬ সদস্যের বিশেষ টিম গঠন করেছেন। এদিকে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর খুলনা জেলা ও সিটিতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে মাদকসহ ১৮ জনকে আটক করেছেন।
খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় এর উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামান বলেন, আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উদ্যাপন উপলক্ষে মাদকদ্রব্যের বিক্রয়, পাচার, চোরাচালান ও মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধসহ মাদক অপরাধ জনিত কারণে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি যেন বিঘিœত না হয় সে ব্যাপারে ১৬ সদস্যের বিশেষ টিম গঠন করা হয়েছে। তিনি বলেন, নিয়মিত মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এর পাশাপাশি আগামী ২ জুন থেকে সপ্তাহব্যাপী মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান ও টহল জোরদার করার জন্য এই টিম গঠন করা হয়।
জানা গেছে, খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে “ক” ও “খ” সার্কেল এবং খুলনা বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের স্টাফের সমন্বয়ের মাধ্যমে অধিক্ষেত্রের মাদকপ্রবণ এলাকায় ও লাইসেন্স প্রিমিসেসের আশপাশ এলাকায় কঠোর নজরদারী ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ এবং সপ্তাহব্যাপী মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান ও টহল কার্যক্রম জোরদার করার জন্য ১৬ সদস্যের টিম গঠন করা হয়। সংস্থার ‘ক’ সার্কেলের পরিদর্শক হালাদার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামকে আহবায়ক করে এই টিম গঠন করা হয়েছে। এদিকে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে ‘ক’ ‘খ’ ও বিভাগীয় গোয়েন্দা সংস্থা মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন।
এর মধ্যে গত ২২ মে সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামান এর তত্ত্বাবধানে ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ সাইফুর রহমান রানার নেতৃত্বে তেরখাদা থানার মির্জাপুর গ্রাম থেকে মোঃ জাহাঙ্গীর শেখের পুত্র মোঃ ইমরান শেখকে ২০ পিস ইয়াবাসহ আটক করা হয় এবং তার বিরুদ্ধে তেরখাদা থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়। ২৩ মে খুলনা গোয়েন্দা এর পরিদর্শক পারভীন আক্তার এর নেতৃত্বে খুলনা সদর থানাধীন দক্ষিণ টুটপাড়ার মহিরবাড়ির খালপাড় থেকে আমিরুল সরদারের পুত্র মোঃ হুমায়ুন কবিরকে ৩০ পিস ইয়াবাসহ আটক করেন। এছাড়া ‘ক’ সার্কেলের পরিদর্শক হাওলাদার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টিম নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মাদকসহ মোট ১৬ মাদক বিক্রেতাকে আটক করেন। অভিযানের সময় ইয়াবা, গাঁজা ও ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।
গোয়েন্দা বিভাগের পরিদর্শক পারভীন আক্তার এ প্রতিবেদককে বলেন, মাদক বিক্রেতারা একের পর ভিন্ন কৌশল পরিবর্তন করে মাদক বিক্রি করছেন। আবাসিক এলাকায় ও বাসা বাড়িতে ধনী পরিবারের সন্তানরা মাদক সেবনের পাশাপাশি তারাই মাদক বিক্রির সাথে জড়িয়ে পড়ছেন।
‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ সাইফুর রহমান রানা এ প্রতিবেদককে বলেন, একাধিক মাদক বিক্রেতাকে ইয়াবা ও ফেনসিডিলসহ আটক করা হয়েছে। আটকের পর আদালত থেকে জামিনে বেরিয়ে আবারও এই মাদক বিক্রির সাথে জড়িয়ে পড়ছে। তিনি বলেন, বেশির ভাগ মাদক বহনের ক্ষেত্রে মহিলাদের ব্যবহার করা হচ্ছে।

অভিনয় শিল্পী নওশাবার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

ঢাকা অফিস : শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় অভিনয় শিল্পী কাজী নওশাবা আহমেদের বিরুদ্ধে পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্র ঢাকার হাকিম আদালতে তোলা হবে আগামীকাল মঙ্গলবার।

নওশাবার আইনজীবী এএইচ ইমরুল কাওসার জানিয়েছেন, ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত থেকে এ মামলার নথিপত্র বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা রয়েছে।

আলোচিত এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের পরিদর্শক শওকত আলী সরকার গত ১২ই মে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে এ অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

প্রসঙ্গত, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গতবছর ৪ঠা আগষ্ট রাতে রাজধানীর উত্তরা থেকে নওশাবাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তার বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা করা হয়।

খুলনায় গাজাসহ আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক : খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর মাদক বিরোধী অভিযানে পৃথক অভিযান চালিয়ে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন। আটককৃতরা হচ্ছে মোঃ শাহাদৎ হাওলাদার (৪২) ও মোঃ কালাম (২৮)। এদের কাছ থেকে সাড়ে ৪শ গ্রাম গাজা উদ্ধার করা হয়। নগরীর খালিশপুর ও লবনচোরা থানাধীন পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করেন। সোমবার সংস্থার ‘খ’ ও গোয়েন্দা বিভাগ পৃথক অভিযান চালিয়ে আটক করেন।
খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় সূত্র মতে, সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক মোঃ সাইফুর রহমান রানার নেতৃত্বে একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খালিশপুর থানাধীন জোড়াগেট এলাকার বাসিন্দা মৃত হামেজ উদ্দিন হাওলাদারের পুত্র মোঃ শাহাদৎ হাওলাদারকে ৫০ গ্রাম গাজাসহ আটক করেন। এ ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকের আইনে মামলা দায়ের করা হয়। অপরদিকে লবনচরাথানাধীন কৈয়াবাজার এলাকায় গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পরিদর্শক মোসাদ্দেক আলী গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় নগরীর ৫নং ঘাট এলাকার বাসিন্দা শামসুল হকের পুত্র মোঃ কালামকে ৪শ’ গ্রাম গাজাসহ আটক করেন। এ ব্যাপারে উপ-পরিদর্শক মোসাদ্দেক আলী বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করেন।

মোদীর শপথ অনুষ্ঠানের তালিকায় নেই ইমরান খানের নাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ভারতে নরেন্দ্র মোদীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হবে না পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এবার বিমসটেক জোটভুক্ত দেশগুলোর নেতাদেরই শপথ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। নয়াদিল্লির আরেকটি সূত্র রয়টার্সকে জানিয়েছে, শপথ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণের তালিকায় পাকিস্তান নেই।

লোকসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভের পর মোদিকে অভিনন্দন জানান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় মেয়াদে মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে, ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথমবার শপথ নেয়ার সময় প্রতিবেশী দেশগুলোকে গুরুত্ব দিয়ে সার্কভুক্ত সব দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের আমন্ত্রণ জানান মোদী।

ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয় নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিজেপি। আগামী ৩০শে মে দ্বিতীয়বার সরকার প্রধান হিসেবে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদী। ২০১৪ সালে শপথ নেয়ার প্রথমবার শপথ নেয়ার সময় প্রতিবেশী দেশগুলোকে গুরুত্ব দিয়ে সার্কভুক্ত সব দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের আমন্ত্রণ জানান নরেন্দ্র মোদী।

তখন, সার্কের সদস্য রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রতিবেশী দেশটির প্রধানমন্ত্রী অভিষেক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন পাকিস্তানের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ।

সোমবার ভারত সরকারের এক বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশ, মিয়ানমার, শ্রীলংকা, থাইল্যান্ড, নেপাল এবং ভুটানের নেতাদেরকে মোদীর সপথ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বিমসটেক এর সদস্য দেশগুলোকেরি শুধু এবার অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এছাড়া, কিরগিজস্তান এবং মরিশাসের নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

চারটি দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ঢাকা অফিস : চার দিনের সরকারি সফরে জাপানের উদ্দেশে রওনা হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখান থেকে সৌদি আরব ও ফিনল্যান্ড সফর শেষে নয়াদিল্লি হয়ে ৮ই জুন দেশে ফেরার কথা রয়েছে তাঁর।

আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টা ৫৫ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে টোকিওর উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন প্রধানমন্ত্রী।

চার দিনের সফরে জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনঝো আবের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক শীর্ষ বৈঠকে অংশ নিবেন শেখ হাসিনা। এছাড়া এই জাপানের প্রভাবশালী দৈনিক নিক্কেই শিম্বুন আয়োজিত ‘এশিয়ার ভবিষ্যৎ’ শিরোনামের আন্তর্জাতিক ফোরামে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

তাঁর সফরকে কেন্দ্র করে নিজেদের নানা আশা, আকাঙ্খার কথা জানিয়েছেন প্রবাসীরা। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে জাপানে বসবাসরত বাংলাদেশি ব্যবসায়ী, রাজনীতিক ও সাধারণ মানুষ তাদের প্রত্যাশার কথা জানিয়েছেন। প্রবাসে থেকেই তারা বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ চান।

এবারের ২৫তম সমাবেশে অতিথি হিসেবে থাকছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুয়ের্তে, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুনসেন ও লাওসের সরকার প্রধান। এছাড়া সিঙ্গাপুর ও ভিয়েতনামের উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং মঙ্গোলিয়ার পার্লামেন্টের স্পিকারও ফোরামে যোগ দেবেন।

উদ্বোধনী দিনে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করবেন- বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২৮শে মে সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনার আয়োজন করেছেন প্রবাসীরা।

পরে ৩১শে মে জাপান থেকে সৌদি আরব যাবেন প্রধানমন্ত্রী। ওই দিনই ওআইসি সম্মেলনে যোগ দেবেন তিনি। এরপর পবিত্র উমরা পালন ও মহানবীর পবিত্র রওজা জিয়ারত করবেন শেখ হাসিনা।

আগামী ৩রা জুন ফিনল্যান্ডের হেলসিংকির উদ্দেশে রওনা হবেন তিনি। সেখান থেকে ৮ জুন নয়াদিল্লিতে পৌঁছাবেন শেখ হাসিনা। ওইদিনই সন্ধ্যায় ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী

ঢাকা অফিস : বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৭৬ সালের ২৮ মে মৃত্যুবরণ করেন জয়নুল আবেদিন।

দেশের চিত্রশিল্প আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব জয়নুল আবেদিন ১৯১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর বৃহত্তর ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণ করেন। ছবি আঁকার প্রতি তার আগ্রহ ছিল ছোটবেলা থেকেই। এসএসসি পাসের পর বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে ভর্তি হন কলকাতা আর্টস স্কুল অ্যান্ড কলেজে।

কলকাতা আর্টস স্কুল অ্যান্ড কলেজে থেকে স্নাতক সম্পন্ন করে ঢাকায় এসে প্রতিষ্ঠা করেন ‘ইনস্টিটিউট অব আর্টস অ্যান্ড ক্রাফটস’। পরে চারু ও কারুকলা কলেজ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত এ প্রতিষ্ঠান বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারু ও কারুকলা ইনস্টিটিউট নামে পরিচিত।

জয়নুল আবেদিন ১৯৪৩ খ্রিস্টাব্দের দুর্ভিক্ষ চিত্রমালার জন্য বিশেষ খ্যাতি অর্জন করেছেন। এ ছাড়াও তাঁর বিখ্যাত শিল্পকর্মগুলো হল: ১৯৫৭-এ নৌকা, ১৯৫৯-এ সংগ্রাম, ১৯৭১-এ বীর মুক্তিযোদ্ধা, ম্যাডোনা প্রভৃ‌তি বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

তারদীর্ঘ দুটি স্ক্রল ১৯৬৯-এ অংকিত ‘নবান্ন’ এবং ১৯৭৪-এ অংকিত ‘মনপুরা-৭০’ জননন্দিত দুটি শিল্পকর্ম। তার চিত্রকর্মের সংখ্যা তিন হাজারের বেশি।