নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে বান্ধবী গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা কলেজের প্রথম বর্ষের এক কলেজ ছাত্রীর নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে তার বান্ধবী রিনি খাতুনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে সদর উপজেলার রামেরডাঙ্গা গ্রামের তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।
এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই কলেজ ছাত্রীর ছবি পোষ্ট করায় ক্ষোভে অপমানে রশিতে নিজেকে ঝুলিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে বর্তমানে সে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার শারিরীক অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
গ্রেপ্তারকৃত রিনি খাতুন সদর উপজেলার রামেরডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রকিব।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুস্তাফিজুর রহমান জানান, কলেজ ছাত্রীকে সম্প্রতি বিয়ের জন্য দেখতে আসে পাত্রপক্ষ। এর প্রস্তুতিস্বরুপ প্রতিবেশি বান্ধবী রিনি খাতুন তাকে গোসলে সহায়তার সময়ে কৌশলে নগ্ন ছবি ধারণ করে। পরে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে কয়েকদফা কলেজছাত্রীর নিকট থেকে টাকা আদায় করে। এক পর্যায়ে চাহিদাকৃত মোটা অংকের টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় রিনি খাতুন তার নগ্ন ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে। এই খবর জানাজানি হলে ক্ষোভে অপমানে শুক্রবার রশিতে ঝুলিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ওই কলেজ ছাত্রী। এঘটনায় কলেজছাত্রীর পিতা শুক্রবার রাতে সদর থানায় রিনি খাতুনের নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত

ঢাকা অফিস : উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের প্রভাবে দেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এর প্রভাবে আগামী কয়েকদিন রাজধানীসহ সারাদেশে বৃষ্টিপাত বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

দাকোপে ডাক্তার ও নার্সদের অবহেলায় প্রসুতি মায়ের মৃত্যু

গোলাম মোস্তফা খান,দাকোপ(খুলনা) : ডাক্তার ও নার্সদের অবহেলার কারণে দাকোপে তানিয়া খাতুন(৩৫) নামের এক প্রসুতি মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
মৃতের পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, প্রসুতি মা তানিয়াকে গত ৫ জুলাই শুক্রবার বিকাল ৪টায় বাচ্চা প্রসবের জন্য দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গাইনী ডাক্তার সন্তোষ মজুমদার প্রতি শুক্রবার বাজুয়াতে রুগী দেখতে যান, তিনি হাসপাতালে ছিলেন না। মোবাইল ফোনে তার কথামত রুগী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তি করানোর পর ডাক্তার এসে বলেন নরমাল ডেলিভারি হবে। সেভাবে রাত কেটে যায়। রাত্রে রুগী চিৎকার চেচামেচি করলেও ডাক্তার ও নার্সদের ডেকে পাওয়া যায়নি। নার্সরা বলে, রুগী নরমাল ডেলিভারি হবে কোনো সমস্যা নেই। পরদিন অর্থাৎ ৬ জুলাই শনিবার সকালে রুগীর প্রচন্ড পেইন উঠলে ডাক্তার দ্রুত রুগীকে ওটিতে নিতে বলেন এবং সিজার করেন। সিজারে অনেক সময় লাগায় রগীর আত্মীয়রা চিন্তিত হয়ে পড়েন। সিজারের মাধ্যমে সন্তান প্রসবের পর রগীর অবস্থা খারাপ হলে ডাক্তার জরুরী রুগী খুলনাতে নেওয়ার কথা বলেন। সকাল ১০টার দিকে রুগী গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করে।
এ বিষয়ে তথ্য জানার জন্য ডাক্তার সন্তোষ মজুমদারকে হাসপাতালে না পেয়ে মোবাইল ফোনে বারবার সংযোগ দেওয়ার চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া সম্ভব হয়নি। মৃতের ভাসুর মামুনুর রশিদ সাংবাদিকদের জানান ডাক্তার ও নার্সদের অবহেলার কারণে তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। সময়মত চিকিৎসা দিলে রুগীর মৃত্যু হত না।এর আগে এই একই ডাকতার সন্তোষ মজুমদারের ভুল চিকিৎসার কারনে কয়েকজন প্রসুতি মায়ের মৃত্যু হয়।

নয়ন বন্ডের ইন্ধনদাতাদের শাস্তি দাবি

ঢাকা অফিস : বরগুনায় চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার পর এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।মেধাবী ছাত্র নয়ন কীভাবে নয়ন বন্ড হয়ে উঠল, কারাই-বা নয়ন বন্ডের কারিগর, আর কী ছিল এর কারণ? এসব নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন। নয়ন বন্ড নিহত হওয়ার পর সন্তোষ প্রকাশ করলেও অনেকেই বলছে, নয়নকে মেরে তার ইন্ধনদাতাদের আড়াল করা হয়েছে।

গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় হলেও বাবার চাকরির কারণে পরিবারের সাথে বরগুনা শহরে আসে নয়ন বন্ড। শহরের সরকারি কলেজের পাশে নিজেদের বাড়িতেই বসবাস করতো সে।

পঞ্চম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে, অষ্টম শ্রেণিতে সাধারণ বৃত্তি আর এসএসসিতে ‘এ’ গ্রেড পাওয়া নয়নের এমন পরিণতি হবে কেউ কি ভেবেছিল তখন! এমন আক্ষেপ নয়নের মা সাহিদা বেগমের। অপরাধ ও অপরাধীদের সঙ্গে জড়িয়ে যাচ্ছে বুঝতে পেরে ছেলেকে ফেরাতে চেষ্টা করেছেন বহুবার। কিন্ত শেষ রক্ষা হয়নি। আর নয়ন বন্ডের সহপাঠী ইমাম হোসেনর আকুতি, ‘নয়ন বন্ডকে যারা তৈরী করেছেন তাদের মুখোশ উন্মোচন করা হোক এটা আমাদের একান্ত কামন।’

নয়নের নিহতের খবরে স্বস্তি প্রকাশ করলেও অনেকেই বলছেন, তাকে আইনের আওতায় আনা হলে বেরিয়ে আসতো অজানা অনেক তথ্য। বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর বলেন,’আমাদের মতো নেতারাই লালন পালন করে নয়ন বন্ড তৈরী করেছে। নয়তো নয়ন বন্ড এমন কেউ না যে বরগুনাতে ত্রাস সৃষ্টি করতে পারবে।’

বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি যুবায়ের আদনান অনিক ক্রসফায়ার জানান, ‘মূলতথ্য না নিয়ে যদি ক্রসফায়ারে দেয়া হয়, তাহলে আরও নয়ন বন্ড সূষ্টি হতে পারে।’

এদিকে, অনেকের অভিযোগ, এই ঘটনায় আড়াল করা হচ্ছে তার ইন্ধনদাতাদের। বরগুনার ফারিয়া লারা ফাউন্ডেশনের সমন্বয়ক চিত্তরঞ্জণ শীল বলেন, ‘কোন মহল বা কার ছত্রছায়ায় এরা বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তাদেরও চিহ্নিত করা উচিত।’ জাতীয় মহিলা পরিষদের বরগুনা জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক কাজল রানী মনে করেন, ‘ইন্ধনদাতাদের বিচারের আওতায় আনা উচিত এবং তাদের সমূলে নির্মূল করা উচিত।’

তবে, তদন্ত চলছে জানিয়ে বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি বলেন, প্রমাণ পেলে জড়িত কাউকে ছাড়া দেয়া হবে না। বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম জানান, ‘অপরাধকে আমরা অপরাধ হিসেবে দেখবো। এর পিছনে যে থাক না কেন, সবাইকে আমরা আইনের আওতায় আনবো।’

সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে, নয়নকে বন্ড বানানোর নেপথ্যে থাকাদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন অনেকে।

চীন সফর শেষে দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা অফিস : পাঁচ দিনের চীন সফর শেষে বেইজিং থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় বেইজিং ছেড়েছে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের ভিভিআইপি ফ্লাইট। দুপুরের পর শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে তার।

চীন সফরে প্রেসিডেন্ট জিং জিনপিং এবং প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং’র সঙ্গে বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যোগ দিয়েছেন ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম সম্মেলনে। সফরে রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরাতে ঢাকাকে আশ্বস্ত করেছে বেইজিং। রোহিঙ্গা সমস্যা দ্রুত সমাধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে একমত হয়েছে দেশটি। এই সফরে ঢাকা এবং বেইজিং’র মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা সংক্রান্ত ৯টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

গত ১ জুলাই চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের আমন্ত্রণে সরকারি সফর ও ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের গ্রীষ্মকালীন সম্মেলনে যোগ দিতে দেশটিতে যান প্রধানমন্ত্রী।

কারাগারে পরিণত হয়েছে দেশ

ঢাকা অফিস : বিচার বিভাগ করায়াত্ত্ব করে দেশকে কারাগারে পরিণত করেছে সরকার। এমন অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, ‘আমরা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবো। সে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে দেশনেত্রীকে মুক্ত করবো। আমাদের রাজবন্দীদের মুক্ত করবো। সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলোকে এবং জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে গণজোয়ারের মাধ্য দিয়ে এ সরকারকে আমাদের পরাজিত করতে হবে। অপসারণ করতে হবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ঈশ্বরদীতে ১৯৯৪ সালে আওয়ামী লীগ নিজেদের গোলাগুলির ঘটনায় নতুন চার্জশিট দিয়ে রায় দেয়া হয়েছে। এটি প্রমাণ করে দেশে আইনের শাসন বলে কিছু নেই।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি হলে সেটি হবে গণতন্ত্র ও গণমানুষের মুক্তি। তাকে মুক্ত করতে আইনি লড়াইয়ের পাশাপাশি জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এ সময় গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বাম দলের ডাকা হরতালে বিএনপি সমর্থন রয়েছে বলেও জানান মির্জা ফখরুল।

চাকরির বয়সসীমা ৩৫ করার দাবিতে বিক্ষোভ

ঢাকা অফিস : সরকারি চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ বছর দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে সাধারণ ছাত্র পরিষদ।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। গত ২৫ এপ্রিল জাতীয় সংসদে এ বিষয়ে একটি প্রস্তাব উত্থাপন হলেও কণ্ঠভোটে তা প্রত্যাখ্যান হয়। সংসদে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর অবস্থানের নিন্দা জানান বিক্ষোভকারীরা। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সুপারিশ ও সরকারের ইশতেহারে অঙ্গীকার থাকলেও তা বাস্তবায়নে গড়িমসি করায় ক্ষোভ জানান আন্দোলনকারীরা।

এরশাদের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত

ঢাকা অফিস : জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অবস্থা এখনো অপরিবর্তিত। দুটি উন্নত ডায়ালাইসিস হলেও তিনি শঙ্কামুক্ত নন বলে  জানিয়েছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের। দুপুরে রাজধানীর বনানীতে দলীয় কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান তিনি।

ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের আরও বলেন, ‘তিনি এখনও শঙ্কামুক্ত নন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। যে কোন সময় যে কোন দিকেই যেতে পারে। তবে গত দুদিনের চিকিৎসায় চিকিৎসকরা আশাবাদী। কিছুটা উন্নতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। চিকিৎসকরা মনে করছেন যে, চিকিৎসা চালিয়ে যেতে পারলে দু-তিন দিনের ভেতরে তার অবস্থা স্বাভাবিক হতে পারে।’

জি এম কাদের বলেন, যতদিন দরকার হবে ততদিন এই ডায়ালাইসিস চলবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। সামরিক হাসপাতালের চিকিৎসকরা এরশাদকে বিশ্বমানের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। তারা দেশী-বিদেশী বিশেষজ্ঞের সাথে আলাপ-আলোচনা করেই  চিকিৎসা দিচ্ছেন। তবে এরশাদের ফুসফুসের সংক্রমণ প্রত্যাশা অনুযায়ী কমছে না। প্রয়োজন অনুযায়ী কিডনি কাজ করছে না- এ কারণে তার শরীরে কিছুটা পানি জমেছে। তাই ডাইলাসিস করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তালায় সড়ক দূর্ঘটনায় কলেজ প্রভাষক নিহত

সেলিম হায়দার, তালা : সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের তালা উপজেলা পাটকেলঘাটা পল্লীবিদ্যুৎ এর অফিসের সামনে ট্রাকের চাপায় প্রভাষক জাহানারা খাতুন (৪০) নিহত হয়েছে। শনিবার (৬জুলাই) সকাল ১১টর দিকে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত জাহানারা খাতুন পাটকেলঘাটা হারুন আর রশিদ কলেজের বায়োলজি বিভাগের প্রভাষক ও উপজেলার নওয়াড়া গ্রামের শাহাদাৎ হোসেনের স্ত্রী।
স্থানীয়রা জানান,জাহানার খাতুন ভ্যানয়োগে কলেজের যাওয়ার পথে পাটকেলঘাটা পল্লী বিদ্যুৎতের অফিসের সামনে পৌছালে পিছন দিক থেকে মজুমদারের ফিলিং ষ্টেশনের তেলের ট্রাকে (যার নম্বার যশোর ট-১১-৩৬৮১) চাপা দিলে ঘটনা স্থলে তার মৃত্যু হয়। ট্রাকসহ ট্রাকের ড্রাইভার নজরুল ইসলামকে থানা পুলিশ আটক করেছে।
পাটকেলঘটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা রেজাউল ইসলাম রেজা মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওজোপাডিকোর রিবেট নিতে গ্রাহকদেরভোগান্তি রোধে পদক্ষেপ নিতে হবে

বিজ্ঞপ্তি : মাত্র একটি বুথের সামনে সারিবদ্ধ হয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন শত শত গ্রাহক। আর এই গ্রাহকদের জনদুর্ভোগ কমাতে নেই কোন ওজোপাডিকোর উদ্যোগ। বরং জনগনের যৌক্তিক আন্দোলনকে বন্ধ করার জন্য নেওয়া হচ্ছে অশুভ উদ্যোগ। সরকার বিদ্যুৎ বিভাগের দুর্নীতিরোধে যে প্রকল্প গ্রহণ করেছে তা নস্যাৎ করতে বিদ্যুৎ বিভাগের একটি মহল তৎপর হয়ে উঠেছে। ওজোপাডিকোকে করে তুলেছে দুর্নীতির আকড়া। সাধারণ গ্রাহকদের কাছ থেকে বিভিন্ন কায়দায় টাকা হাতিয়ে সরকারকে দেখাচ্ছে লাভজনক। এভাবে চলতে থাকলে বিদ্যুৎ বিভাগের প্রতি গ্রাহকদের আর আস্থা থাকবে না। এসব কথা বললেন প্রিপেইড মিটারের দুর্নীতি প্রতিরোধে সংগ্রাম কমিটির নেতৃবৃন্দ।
শুক্রবার রাত্রে সোনাডাঙ্গাস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে প্রিপেইড মিটারের দুর্নীতি প্রতিরোধে সংগ্রাম কমিটির জরুরী সভা ডাঃ শেখ বাহারুল আলমের সভাপতিত্বে সদস্য সচিব মহেন্দ্রনাথ সেনের পরিচালনায় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন খুলনা উন্নয়ন ফোরামের চেয়ারম্যানও কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক শরীফ শফিকুল হামিদ চন্দন ও মোড়ল নুর মোহাম্মদ, যুগ্ম সদস্য সচিব শাহ মামুনুর রহমান তুহিন , ওয়ার্কার্স পার্টির শেখ মফিদুল ইসলাম দেলোয়ার হোসেন দিলু, মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম, সাংবাদিক এইচ এম আলাউদ্দিন প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত গ্রাহকদের সংকট না মিটবে ততক্ষন পর্যন্ত প্রিপেইড মিটারের দুর্নীতি প্রতিরোধে সংগ্রাম কমিটির আন্দোলন চলবে। নেতৃবৃন্দ বলেন আন্দোলনের ফসল রিবেট আর এই রিবেটের টাকা গ্রাহক যেন সহজে ঘরে বসে পায় তার ব্যবস্থা করতে হবে। গ্রাহককে জিম্মি করা চলবেনা। রিবেটের টাকার সুদ ও গাহকে ফিরিয়ে দিতে হবে। ওজোপাডিকোর সদর দপ্তরকে করতে হবে গ্রাহকবান্ধব। গ্রাহকের টাকায় যারা চলবে তারা হবে গ্রাহকদের প্রভু , এটা হতে পারেনা। নেতৃবৃন্দ বলেন ওজোপাডিকোর মিটার ক্রয়ের দুর্নীতি খতিয়ে দেখতে সরকারের নিকট আহবান জানিয়েছেন।