গরু কোরবানির সময় শিশুর মৃত্যু

মাদারীপুর : মাদারীপুরে কোরবানির গরু জবাই করার সময় কসাইয়ের হাত থেকে চাপাতি ছুটে গিয়ে পেটে ঢুকে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সকালে সদর উপজেলার দুধখালি ইউনিয়নের বড়কান্দি এ ঘটনা ঘটে। নিহত মৌমিতা আক্তার দুধখালী ইউনিয়নের উত্তর দুধখালী বড়কান্দি গ্রামের আনোয়ার বেপারীর মেয়ে। সে দুধখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী ছিলো।

পুলিশ জানায়, সকালে বাড়ির উঠানে কোরবানির গরু জবাই করার সময় কয়েকজন শিশু দাঁড়িয়ে তা দেখছিলো। এক পর্যায়ে গরু নাড়াচাড়া করলে কসাইয়ের হাতে থাকা চাপাতি ছুটে গিয়ে শিশুটির পেটে ঢুকে যায়। এতে গুরুতর আহত হয় শিশুটি। পরে বাড়ির লোকজন তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৌমিতাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি ২ হাজার ৯৩ জন

ঢাকা অফিস : এবার ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের বেডেই কাটছে অনেকের ঈদ, আজও সারা দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত ২ হাজার ৯৩ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের সেবা দিতে ডাক্তারসহ সংশ্লিষ্ট সবারই ঈদ কাটছে কর্মব্যস্ততায়।

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে রোগীর চাপ। আর সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব থাকতে পারে, এমন আশংঙ্কা থেকে সরকারি হাসপাতালগুলো প্রস্তুতি নিচ্ছে। তবে ঈদের ছুটিতে সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, গত তিন দিনে রোগী ভর্তির হার কম।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সূত্র অনুযায়ী সারা দেশে ডেঙ্গুর সামগ্রিক অবস্থা:

২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বর্তমানে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ছাড়পত্র প্রাপ্ত রোগী
২০৯৩ ৪০ ৮০০৬ ৩৫২২৫

বিভাগ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত রোগী বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ০১-০১-২০১৯ হতে     অদ্যাবধি মৃত্যু ছাড়পত্র প্রাপ্ত রোগী
ঢাকা ২৯৮ ৮০৩ ৪০ ২৯৫৭
চট্টগ্রাম ২৩৯ ৭০০ ২২০০
খুলনা ১৭৯ ৬১৮ ১৫৩৪
রংপুর ৯৪ ২৫৪ ৬৮০
রাজশাহী ১৩২ ৪৬৫ ১১৫৯
বরিশাল ২০৩ ৬১৪ ১১৪৪
সিলেট ১৬ ৮৪ ৪০৮
ময়মনসিংহ ৯০ ২৩৯ ৯০৩

এ বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪৩ হাজার ২৭১জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা: আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, ঈদ উপলক্ষ্যে অনেক লোক ঢাকার বাইরে গেলেও ডেঙ্গু ছড়িয়ে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

তিনি আরও জানান, যদি মুষলধারে বৃষ্টি হয় তাহলে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে যাবে, তবে থেমে থেমে বৃষ্টি হলে ডেঙ্গুর প্রভাব বাড়বে।

খুলনায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উদযাপিত

খুলনা : যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে আজ সারা দেশের মতো খুলনায় পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উদযাপিত হয়।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সরকারি ও বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। মহানগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও সড়কদ্বীপ বাংলা ও আরবীতে ঈদ মোবারক খচিত ব্যানারে সজ্জিত করা হয়।

মহানগরী খুলনায় প্রধান ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় টাউন জামে মসজিদে সকাল আটটায়। এ বিশাল জামাতে ইমামতি করেন খুলনা টাউন জামে মসজিদের ভারপ্রাপ্ত খতিব আলহাজ্ব মাওলানা আবু দাউদ। এছাড়া কোর্ট জামে মসজিদে সকাল সাড়ে আটটায় একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

ঈদের জামাতে খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ এবং জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লীগণ অংশগ্রহণ করেন। নামাজ শেষে দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। পরে মুসল্লীরা পরস্পর ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

নগরীতে ঈদের দ্বিতীয় ও শেষ জামাত অনুষ্ঠিত হয় খুলনা টাউন জামে মসজিদে সকাল ন’টায়। নিউমার্কেট সংলগ্ন বায়তুন-নুর-জামে মসজিদ, ডাকবাংলা জামে মসজিদ ও ময়লাপোতা বায়তুল আমান জামে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া নগরীর খুলনা ইসলামাবাদ ঈদগাহ ময়দান, খালিশপুর ঈদগাহ ময়দান, আলিয়া কামিল মাদ্রাসা, কাস্টমস ঘাট জামে মসজিদ, পিটিআই জামে মসজিদ, কেডিএ নিরালা জামে মসজিদ, সিদ্দিকীয়া মাদ্রাসা, তালিমুল মিল¬াত মাদ্রাসা, দারুল উলুম মাদ্রাসা, আন্ত:জেলা বাস টার্মিনাল মসজিদ, শিপইয়ার্ড, লবনচরা, চাঁনমারী, রূপসা, টুটপাড়া, মিয়াপাড়া, শেখপাড়া, বসুপাড়া, করবস্থান জামে মসজিদ, জোড়াগেট সিএন্ডবি কলোনি মসজিদ, বয়রা মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন, খালিশপুর ক্রিসেন্ট জুট মিলস, বিএল কলেজ, দেয়ানা ঈদগাহ, সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকা, খানজাহান নগর খালাসী মাদ্রাসা ঈদগাহ এবং দৌলতপুর ঈদগাহ ময়দানসহ নগরীর বিভিন্ন মসজিদ ও ময়দানে ঈদের জামাত অনুুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের সকল ওয়ার্ডে পৃথকভাবে ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের তত্ত্বাবধানে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন হাসপাতাল, জেলখানা, শিশু সদন, ভবঘুরে কেন্দ্র ও দুঃস্থ কল্যাণ কেন্দ্রে বিশেষ খাবার পরিবেশন করা হয়। ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে বাংলাদেশ বেতার, খুলনা বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করে।

গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য জনগণকে ত্যাগ স্বীকার করতে হবে : মির্জা ফখরুল

ঠাকুরগাঁও : বাংলাদেশ জাতীতাবাদী দলের পক্ষ থেকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে দেশবাসীসহ সর্বস্থরের মানুষকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন বড় কিছু পেতে হলে ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। তিনি ঈদ-উল-আযহার তাৎপর্য তুলে ধরে বলেন এই মহান দিনে হযরত ইব্রাহী যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করে ছিলেন তা সমগ্র বিশ্বের মানুষের কাছে হাজার বছর ধরে উজ্জল হয়ে থাকবে।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় ঠাকুরগাঁও জেলা স্কুল বড় মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করেন। পরে নামাজ শেষে ঠাকুরগাঁও শহরের তাতীঁপাড়াস্থ পৈত্রিক বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে সামগ্রীক ভাবে দেশের যে অবস্থা জাতির কাছে আমাদের আহবান একটাই থাকবে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া তিনি গণতন্ত্রের প্রতিক। তার মুক্তির জন্য এবং গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য মানুষকে প্রস্তুত থাকার আহবান জানান তিনি।

এ সময় জেলা ও পৌর বিএনপির দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এবার গণধর্ষণের শিকার প্রতিবন্ধি কিশোরী

মাদারীপুর : মাদারীপুরে তিন বখাটের ধর্ষণের শিকার হলো বাক প্রতিবন্ধি এক কিশোরী। মামলা না করতে ধর্ষিতার পরিবারকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বখাটে ধর্ষকরা। তাই, ধর্ষণের একদিন পর থানায় এসে মামলা করে চিকিৎসা ও মেডিকেল টেষ্ট করতে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে কিশোরীকে। মামলা হওয়ার পর এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ওই কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (৮ই আগস্ট) দুপুরে, বাড়ির পাশেই নদীতে গোসল করতে যায় বাকপ্রতিবন্ধি ওই কিশোরী। এসময়, বখাটে তন্ময়, জিসান ও হাসান পথ থেকে মুখ চেপে পাশের জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে মুখ ও হাত বেঁধে তাকে ধর্ষণ করা হয়। গোসল করে আসতে দেরি হওয়ায় কিশোরীর মা মেয়েকে খুঁজতে গিয়ে তার মেয়ের ওপর এই অত্যাচার হতে দেখেন। এ দৃশ্য দেখে মা চিৎকার দিলে ধর্ষকরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পালানোর সময় হুমকি দিয়ে যায় মামলা করতে গেলে পরিবারের সবাইকে মেরে ফেলবে। ভয়ে তারা বাড়িতেই থাকে এবং স্থানীয় কয়েকজনকে বিষয়টি জানায়।

স্থানীয়দের পরামর্শে পরদিন শুক্রবার ধর্ষিতার বাবা বাদি হয়ে মাদারীপুর সদর থানায় মামলা করেন। পুলিশ কর্মকর্তাদের পরামর্শে চিকিৎসা ও মেডিকেল টেষ্টের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। বাক প্রতিবন্ধি মেয়েকে যারা ধর্ষণ করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান কিশোরীর বাবা মা।

বখাটেদের ভয়ে স্থানীয় কেউ এ বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হয়নি। তবে, অভিযুক্ত জিসানের মা ও নানীর দাবি তন্ময় ও হাসান ধর্ষণে জড়িত থাকলেও জিসান সেখানে ছিলোনা।

কিশোরীর চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে এবং ধর্ষণের আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানায় সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ঈদে বন্দীদের জন্য ১৫০ টাকার বিশেষ খাবার

ঢাকা অফিস : ৩০ টাকা থেকে বেড়ে বিশেষ দিনের খাবারের বরাদ্দ হয়েছে ১৫০ টাকা। যা এই ঈদ থেকেই কার্যকর হচ্ছে দেশের সব কারাগারে। ফলে বন্দীরা এবারের ঈদে পাচ্ছেন নতুন মানের উন্নত খাবার। কারা কর্তৃপক্ষ বলছে, সরকারের এই উদ্যোগ বন্দিদের মানসিকতায় ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

ঈদ বা বিশেষ দিনগুলোতে কারাগারে থাকা বন্দীদের জন্য বিশেষ খাবার দেয় কারাকর্তৃপক্ষ। কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে শুরু করে সারাদেশেই একই নিয়মে এই উন্নত খাবার দেয়া হয়।

গত ঈদ পর্যন্ত সেই খাবারের জন্য মাথাপিছু বরাদ্দ ছিল ৩০ টাকা। কিন্তু সম্প্রতি সরকারের এক সিদ্ধান্তে বন্দীদের জন্য বিশেষ দিনের খাবারে বাজেট ৩০ টাকা থেকে ১৫০ টাকা নির্ধারন করেছে সরকার। যা এবারের ঈদ থেকেই কার্যকর হচ্ছে।

বিশেষ দিনের খাবারে এমন ভালো আয়োজনের ফলে বন্দীদের মানসিকতায় ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম মোস্তফা কামাল পাশা।

তিনি বলেন, আমি মনে করি এরফলে বন্দীদের মানসিকতায় ইতিবাচক একটা প্রভাব পড়বে। আমরা যারা বাইরে রয়েছি তারা যে বন্দীদের নিয়ে ভাবছি এই মানসিকতাটাও তাদের মধ্যে কাজ করবে।

এরইমধ্যে সকালের নাস্তায় বরাদ্দ বাড়ানো ও বৈচিত্র্য আনায় বন্দীদের মধ্যে তার প্রভাব পড়েছে বলেও জানায় কারাকর্তৃপক্ষ।