জীবনকে বিকশিত করতে লেখাপড়ার বিকল্প নেই -নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি

ফুলতলা অফিসঃ সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি বলেছেন, জীবনকে বিকশিত করতে হলে লেখাপাড়ার বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে স্বপ্ন দেখেছিলেন। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সে স্বপ্ন বাস্তবায়নে শিক্ষা ক্ষেত্রে অভ‚তপূর্ব উন্নয়ন করেছেন। শিক্ষার্থীদের মাদক ও ইন্টানেটের অবাধ ব্যবহারের ক্ষতি সস্পর্কে সচেতন হতে হবে। প্রতিষ্ঠান প্রধানরা সততা এবং দক্ষতার সাথে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করলে সুনাম বাড়বে। দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়ার লক্ষে সকলে এক যোগে কাজ করলে দেশ আরও উন্নতি লাভ করবে।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় ফুলতলা এম এক কলেজ মিলনায়তনে অনার্স প্রথম বর্ষের নবীনবরণ ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শেখ আকরাম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত ইউএনও রুলী বিশ্বাস, ওসি মোঃ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক সরদার শাহাবুদ্দিন জিপ্পী, পরিচালনা কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আনোয়ারুজ্জামান মোল্যা, মুক্তিযোদ্ধা কাজী আশরাফ হোসেন আশু, মৃনাল হাজরা, সেলিম আহমেদ, আবু তাহের রিপন। সহকারী অধ্যাপক প্রদ্যুৎ রুদ্র চৈত্রীর পরিচালনায় বক্তৃতা করেন শিক্ষক প্রতিনিধি প্রভাষক গাজী মামুনার রশিদ, সহকারী অধ্যাপক ড. মোঃ জাকির হোসেন খান, প্রেসক্লাব সভাপতি তাপস কুমার বিশ্বাস, সহকারী অধ্যাপক মোঃ নেছার উদ্দিন, বণিক নেতা রবিন বসু, প্রভাষক চিরঞ্জীব চ্যাটার্জী, শিক্ষার্থী তানভীন জেরিন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক প্রতিনিধি সহকারী অধ্যাপক ফিরোজা আক্তার বানু, ফুটলাল দত্ত, প্রভাষক দুরাফসান ফারহানা শুরভী, রুমানা আফরোজ জুই, শহিদুল ইসলাম, মোঃ সেলিম খান, আনোয়ারা রুলি, প্রসেনজিৎ রায়, মনিরা পারভীন, নিপা হালদার, সানজিদা খানম, হালিমা রোজী, রবিউল ইসলাম মোল্যা, আশরাফুল আলম মোড়ল, জীম বিশ্বাস, কাজী শান্ত, আলাউদ্দিন আক্তার, আরিফ সরদার প্রমুখ। প্রধান অতিথি নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এম এক কলেজ পরিচালনা কমিটির এক সভায় যোগদান করেন।

খুলনায় র‌্যাবের অভিযানে কোটি টাকার অবৈধ মোবাইল জব্দ : আটক ৫

খুলনা অফিস : খুলনা মহানগরীর নিউ মার্কেটে ০৬ টি দোকানে অভিযান চালিয়ে কোটি টাকার অবৈধ মোবাইল জব্দ করেছে র‌্যাব-৬ । এসময়ে সরকারী রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে বিদেশী মোবাইল বিক্রির অপরাধে পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে।

বোরবার (০৮ ডিসেম্বর) বিকেল ৫ টায় থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত নগরীর সোনাডাঙ্গা থানাধীন নিউ মার্কেট বাজার এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। সোমবার দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে র‌্যাব-৬।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়েছে, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নিউ মার্কেট এলাকার ০৬টি অবৈধ মোবাইলের দোকানে র‌্যাব-৬ অভিযান চালায়। এসময়ে ওই দোকানগুলো থেকে ১৭৯ টি বিভিন্ন ব্রান্ডের মোবাইল ফোন, ৪টি হেড ফোন এবং ১টি এ্যাপোল ওয়াচসহ ৫জন অবৈধ মোবাইল ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। জব্দকৃত মালামালের বাজার মূল্য প্রায় এক কোটি টাকা। জব্দকৃত মালামালগুলো হলো, ১৩৫টি রেডমি ব্রান্ডের মোবাইল, ১৫টি রিয়েলমি ব্রান্ডের মোবাইল, ১৪টি আই ফোন, ১১টি স্যামস্যাং, ৩টি ওয়ান প্লাস, ১টি ভিভো, ১টি ৯এন-ওনার, ১টি অ্যাপল স্মার্ট ওয়াচ ও ৪টি অ্যাপল হেড ফোন।

আটককৃত অবৈধ মোবাইল ব্যবসায়ীরা হলেন, আমিনুল ইসলাম রনি(৩৫), আসলাম (২৫), রাসেল শেখ (২৫), মিরাজ হাসান (২০) ও রতন বাড়ৈ (২২)। তারা সকলে খুলনা মহানগরীর বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

র‌্যাব আরো জানায়, অভিযুক্তরা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অবৈধভাবে সরকারী কর ফাঁকি দিয়ে মোবাইল এনে জনসাধারণের কাছে কম মূল্যে বিক্রয় করছে। যার ফলে প্রতিদিন সরকার বিপুল পরিমান রাজস্ব হারাচ্ছে। তাদেরকে সোনাডাঙ্গা থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন মঙ্গলবার

খুলনা অফিস : পাঁচ বছর পর একই মঞ্চে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন। আওয়ামী লীগের শুদ্ধি অভিযান এই সম্মেলনে নতুন মাত্রা যোগ করেছে। ফলে, যোগ্যতার ভিত্তিতে প্রবীন ও নবীনদের সমন্বয়ে গ্রহণযোগ্য কমিটি দেখতে চায় তৃণমূলের আওয়ামী লীগ।
২০১৪ সালে খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সবশেষ সম্মেলনে সভাপতি নির্বাচিত হন তালুকদার আব্দুল খালেক আর সাধারণ সম্পাদক হন মিজানুর রহমান মিজান। দীর্ঘদিন পর আবার সম্মেলনকে ঘিরে সরব নেতাকর্মীরা। এরই মধ্যে শেষ হয়েছে প্রস্তুতি। তবে নগরীর অধিকাংশ ওয়ার্ডের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও ৫টি থানার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি।

খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, ‘যেহেতু তাদের মেয়াদ শেষ হয়নি। তাই এই মুহুর্তে থানা কমিটি হবে না। ৩৬টি ওয়ার্ড কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে।’

অন্যদিকে ২০১৫ সাল থেকে জেলায় দলকে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন শেখ হারুনুর রশিদের কমিটি। তবে সম্মেলনের আগে কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের সব কমিটি গঠনের নির্দেশ থাকলেও খুলনা জেলার ৯ টি উপজেলার মধ্যে সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে মাত্র একটির।

খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হারুনুর রশিদ বলেন, ‘কেন্দ্রের নির্দেশে আমরা একটি উপজেলার সম্মেলন করেছি। সেটি হলে পাইকগাছা। বাকিগুলো কেন্দ্রীয় সম্মেলন জেলা সম্মেলন হবার পর করবো।’

নবীন ও প্রবীণের সমন্বয়ে দলে ও দলের বাইরে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নেতৃত্বে দেখার প্রত্যাশায় তৃণমূল আওয়ামী লীগ। সভাপতি পদে এবার প্রবীণরা প্রার্থী হলেও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হচ্ছেন সাবেক ছাত্রনেতারা। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী অসিত বরন বিশ্বাস জানান, ‘আমি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী। আমার নেত্রী আমরা বিষয়টি বিবেচনা করবেন বলে আমি মনে করি।’

নগর আওয়ামীলীগে সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান বলেন, ‘আমাকে যদি দায়িত্ব দেয়া হয়, তবে যাদের স্বপ্ন পুরণে কাজ করা উচিত তাদেরকে সাথে নিয়ে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত কাজ করে যেতে চাই।’

সদর থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম জানান, ‘শেখ হাসিনার বার্তা ঘরে ঘরে পৌঁছানোর মধ্য দিয়ে আগামী দিনে আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করবো সেটিই আমার প্রত্যাশা।’

নগরীর সার্কিট হাউজ ময়দানে মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সম্মেলনের মধ্য দিয়ে ত্যাগী ও দলকে সুসংগঠিত করার মতো নেতা বেরিয়ে আসবে এমনই প্রত্যাশা দলের নেতা-কর্মীদের।

বটিয়াঘাটায় লোকজ’র কৃষক মাঠ দিবস পালন

১০৪ প্রজাতির স্থানীয় আমন ধান উপস্থাপন : এলাকা উপযোগী আমন ধানের জাত নির্বাচন

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি : কৃষকের অংশগ্রহণে এলাকা উপযোগী আমন ধানের জাত নির্বাচনে বটিয়াঘাটায় অনুষ্ঠিত হলো কৃষক মাঠ দিবস। মিজরিও-জার্মানীর সহায়তায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা লোকজ এবং গঙ্গারামপুর কৃষক সংগঠনের আয়োজনে আজ ০৯ ডিসেম্বর সোমবার গঙ্গারামপুর স্টার ইউনিট ক্লাব মাঠে কৃষক মাঠ দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বটিয়াঘাটা উপজেলা লোকজ মৈত্রী কৃষক ফেডারেশনের সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ম-লের সভাপতিত্বে এবং লোকজ এর নির্বাহী পরিচালক দেবপ্রসাদ সরকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বটিয়াঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ জিয়াউর রহমান, উপজেলা কৃষি অফিসার রবিউল ইসলাম এবং বটিয়াঘাটা এসআরডিআই এর উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা অমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস।
মাঠ দিবসের আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মিহির কান্তি বৈরাগী ও বিষাদ সিন্দু ম-ল, শিক্ষক নিকুঞ্জ বিহারী সরকার ও সমরেন্দ্রনাথ ঢালী, ব্রীডার কৃষক আরুনী সরকার, কৃষক সুব্রত বিশ্বাস, কাকন মল্লিক, অরুন বিশ্বাস, কবিরাজ মো: আইয়ুব আলী হালদার প্রমুখঃ। মাঠ দিবসের কর্মসূচিতে বটিয়াঘাটা সদর, গঙ্গারামপুর, সুরখালী ও ভান্ডারকোট ইউনিয়নের ২৫টি কৃষক সংগঠনের শতাধীক কৃষক ও লোকজ’র কর্মকর্তা কর্মচারীগণ অংশগ্রহণ করেন।
অংশগ্রহণকারীরা আমন ধানের জাত নির্বাচন, সংরক্ষণ ও সম্প্রসারণে ১০৪ প্রজাতির স্থানীয় প্রজাতির ধানের পিভিএস প্লট পরিদর্শন করে র‌্যাংকিং এর মাধ্যমে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন এলাকা উপযোগী ধানের জাত নির্বাচন করেন। পরিদর্শনকালে ব্রীডার কৃষক আরুনী সরকার তার উদ্ভাবিত ১০ প্রজাতির এফ-৯ পর্যায়ের ধানের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে ধারণা প্রদান করেন। স্থানীয় ধানবীজ বিতরণের মাধ্যমে সংরক্ষিত ১০৪ প্রজাতির ধান সম্প্রসারণে ভূমিকা রাখায় স্থানীয় কৃষক ও অতিথিরা লোকজ’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বটিয়াঘাটায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি : বটিয়াঘাটা উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে আন্তর্জাতিক দূর্নীতি বিরোধী দিবস, বেগম রোকেয়া দিবস ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ এর পৃথক পৃথক আলোচনা সভা সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার সময় উপজেলা বিআরডিবি হল মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহম্মেদ জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই চন্দ্র গাইন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান চঞ্চলা মন্ডল, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোনায়েম খান, সমবায় কর্মকর্তা জান্নাতুননেছা, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাসি রাণী রায়, প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম শাহীন, কোডেক এর প্রকল্প সমন্বয়ক কামনা রায় প্রমুখ। সভার পূর্বে পৃথক পৃথক মানব বন্ধন উপজেলা পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত হয়।

দাকোপে আত্মঘাতি ড্রেজারে চলছে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন

আজগর হোসেন ছাব্বির,দাকোপ : দাকোপের শিংজোড়া ছিটেবুনিয়া এলাকায় উন্নয়ন কাজের নামে আত্মঘাতি ড্রেজার দিয়ে চলছে বালি উত্তোলন। যে কারনে বেড়ে চলেছে ভূমি ধসের আশংকা। ঘটনাটি বে আইনী হলেও দেখার যেন কেউ নেই।
উপজেলার কালীনগর ব্রীজ সংলগ্ন দাকোপ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় হতে ধোপাদী হরির ব্রীজ অভিমুখে জনগুরুত্বপূর্ন রাস্তাটি দীর্ঘ ১ বছরের অধিক সময় খুড়ে ফেলে রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার কাজ না করায় সেখানে জন দূর্ভোগ চরমে। এলাকাবাসীর এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে সরেজমিন বিষয়টি দেখতে গেলে আতœঘাতি ড্রেজার ব্যবহারে বালি তুলে ভূমি ধসের ব্যবস্থা হচ্ছে এমন অভিযোগের গুঞ্জন শোনা যায় এলাকাবাসীর মাঝে। গুঞ্জনের সুত্র ধরে সেখানে উপস্থিত হলে দেখা যায়, ছিটেবুনিয়া দক্ষিন শেরের খালে চলছে আতœঘাতি ড্রেজার। দিনরাত সেই ড্রেজার দিয়ে চলছে বালি উত্তোলনের কাজ। কয়েকজন শ্রমিককে সেখানে কাজটি দেখভাল করতে দেখা যায়। তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয় কাজটি কে করাচ্ছে। সকলে মুখে যেন কুলুপ এটে বসে আছে। কেউ মুখ খুলতে চাইলোনা। অগত্য অদুরে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেল সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান দাকোপ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বিনয় কৃষ্ণ রায় কাজটি করাচ্ছেন। যে কারনে সহসা কেউ মুখ খুলতে চাইছেনা। ছোট খালের ভিতর থেকে এভাবে বালি উত্তোলনের ফলে সেখানে ভূমি ধসের সম্ভবনা শতভাগ। অর্থাৎ সেখানকার কৃষি জমি নিশ্চিত হুমকির মুখে। বিষয়টি দাকোপ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল ওয়াদুদের নজরে আনা হয়। তিনি দেখবেন বলে জানালেন। এভাবে বালি উত্তোলন কতটুকু বৈধ জানতে চাওয়া হয় সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যান বিনয় কৃষ্ণ রায়ের কাছে। তিনি বললেন জনগুরুত্বপূর্ন রাস্তাটি ঠিকাদার খুড়ে ফেলে যাওয়ায় আমি সেখানে সামান্য কিছু বালি দিয়ে জনসাধারণের কল্যানে কাজটি করছি। অভিজ্ঞ মহলের প্রশ্ন একটি কল্যাণে যদি আরেকটি অকল্যাণের সৃষ্টি হয় তাহলে সেই কল্যাণের মূল্য কতটুকু থাকে ? শুধু শিংজোড়া নয়, দাকোপের বিভিন্ন এলাকায় এভাবে বিভিন্ন সময় অবৈধপন্থায় বেআইনী বালি উত্তোলন চলতে দেখা যায়। এলাকাবাসীর দাবী অকল্যান দিয়ে কল্যান না করে প্রকৃত উন্নয়ন এবং জনকল্যানে কাজ করা হোক।

খুলনায় ফেনসিডিলসহ ৪ মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক

স্টাফ রিপোর্টার : খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মাদক বিরোধী পৃথক অভিযান চালিয়ে ৪৫ বোতল ফেনসিডিসহ ৪ মহিলা মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন। আটককৃতরা হচ্ছে শাহিদা বেগম (৩০), রেহেনা বেগম (৩৫), সালমা বেগম রিয়া (৩৫) এবং রহিমা বেগম (৩০)। গতকাল রোববার দিনব্যাপী নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করেন। এ সময় তাদের কাছ থেকে মোট ৪৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।
খুলনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সূত্র মতে, সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে ‘ক’ সার্কেলের পরিদর্শক হাওলাদার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে নগরীর নিরালা এলাকায় অভিযান চালান। এ সময় রুস্তুম আলী কন্যা শাহিদা বেগমের কাছ থেকে ১০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে। সে সাতক্ষীরা জেলা পাটকেলঘাটা উপজেলার বাইকবুনিয়া এলাকার বাসিন্দা। এছাড়া সাচিবুনিয়া এলাকা থেকে হাসান গাজীর স্ত্রী রেহানা বেগম এর কাছ থেকে ৫ বোতল, সাইদ হাওলাদারের কন্যা সালমা বেগম রিয়া কাছ থেকে ২০ বোতল এবং খালিশপু থানাধীন এলাকা থেকে মৃত আঃ রহমানের কন্যা রহিমা বেগমের কাছ থেকে ১০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।
‘ক’ সার্কেলের পরিদর্শক হাওলাদার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম জানান, আটককৃত ফেনসিডিল বিক্রেতা সালাম বেগম রিয়ার কাছ ফেনসিডিল নিয়ে উল্লিখিত আটককৃতরা বিভিন্ন এলাকায় ফেনসিডিল সরবরাহ করে আসতেন।