বটিয়াঘাটার বরণপাড়ায় রানা রিসোর্ট এন্ড এমিউজমেন্ট পার্কের উদ্বোধন

খুলনা অফিস : খুলনা জেলার বটিয়াঘাটার বরণপাড়ায় অবস্থিত রানা রিসোর্ট এন্ড এমিউজমেন্ট পার্কের (ওয়ান্ডারফুল কিংডম) আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু হয়েছে।  আজ শুক্রবার দুপুরে বটিয়াঘাটার বরণপাড়ায় অবস্থিত পার্কটির উদ্বোধন করেন ওয়েষ্টার্ণ গ্রুপের চেয়ারম্যান ও পার্কের কর্ণধার এ.এস.এম আলাউদ্দিন ভূঁইয়া। রানা রিসোর্ট এন্ড এমিউজমেন্ট পার্কটি ওয়েষ্টার্ণ গ্রুপের একটি অংগ প্রতিষ্ঠান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিল ভিন্ন ধাঁচের ছোঁয়া। চোখ ধাঁধানো আয়োজন নয়, বরং সাবলীল আনন্দ উপভোগকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছিল। এ রিসোর্টে থেকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ অরণ্য সুন্দরবন ভ্রমনে যাওয়ার সুয়োগ রয়েছে। রিসোর্টের প্রবেশ মূল্য ধরা হয়েছে ৩ শ টাকা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পার্কের কর্ণধার এ.এস.এম আলাউদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, পদ্মার এ পাড়ে সবচেয়ে বড় পার্ক এটি। আমার একমাত্র অকাল প্রয়াত ছেলে রানার স্মৃতিকে স্মরণীয় করে রাখতে রানা রিসোর্ট এন্ড এমিউজমেন্ট পার্কটি নির্মাণ করা হয়েছে। এটি নির্মানের উদ্দেশ্য হলো আমার ছেলের স্মৃতিকে জড়িয়ে এ অঞ্চলের কর্মসংস্থান ও বিনোদনের ব্যবস্থা করা। এ প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত ব্যক্তিদের ৯৫ ভাগই স্থানীয় লোকজন। এটি খুলনার বটিয়াঘাটার পশুর নদের অববাহিকায় অবস্থিত। এখানে রয়েছে অত্যাধুনিক কটেজ, আধুনিক ও জনপ্রিয় রাইড সম্বলিত এমিউজমেন্ট পার্ক ও ওয়াটার কিংডম, পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ সুন্দরবন ভ্রমন (রিভারক্রুজ)। এই পার্কে বিশেষ আকর্ষণ সুনামিপুল যা বাংলাদেশে প্রথম, যেখানে কৃত্রিমভাবে সৃষ্ট সাগরের উত্তাল ঢেউ এবং ওয়াটার স্লাইড ও ডিজে মিউজিক এবং বিভিন্ন আকষর্নীয় রাইড ও বিনোদনের ব্যবস্থা থাকছে।

তিনি আরও বলেন, এমিউজমেন্ট পার্কটিতে রয়েছে ক্যারোসেল, অক্টোপাস রাইড, নাগরদোলা, বাম্পার কার, সেল্ফ কন্ট্রোল্ড প্লেন, ট্রেন, ফ্লাইং কার, জাম্পিং ফ্রগ, লেডি বাগ, মটর রাইড, কেবল কার, সুনামি পুল, ওয়াটার স্লাইড রাইন্ড। ৯.২৫ একর জায়গা নিয়ে গড়ে ওঠা এই অসাধারণ পার্কটির মধ্যে মির্মাণ করা হচ্ছে পাঁচ তারকা মানের হোটেল। জাকজমক পূর্ণ এই হোটেলটি পরিবেশ বান্ধব ভাবে নির্মিত হবে। এ হোটেলে রয়েছে সকল আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন অত্যাধুনিক ব্যবস্থা, এতে পরিবার নিয়ে নিশ্চিন্তে বিশ্রাম ও রাত্রি যাপন করা যাবে। এর মাধ্যমে সুন্দরবনে বৃদ্ধি পাবে পর্যটক। সরকারের বাড়বে রাজস্ব।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ওয়েষ্টার্ণ গ্রুপের পরিচালক কামরুন নাহার, ফারজানা আক্তার, নাহিদ আক্তার, জেহনাসিব ইমরান কায়রা, সায়ান সারওয়ার ও সাইফুল ইসলাম অপু।