জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান আর নেই

ঢাকা অফিস : সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান মারা গেছেন। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

গত ২৭ এপ্রিল হৃদরোগ সমস্যার পাশাপাশি কিডনি ও ফুসফুসে জটিলতা, পারকিনসন্স, প্রোস্টেটের সমস্যা ও রক্তে সংক্রমণের সমস্যা নিয়ে অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকে রাজধানীর ইউনিভার্সেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গত শনিবার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বৃহস্পতিবার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ক্রিটিক্যাল কেয়ার সেন্টারে স্থানান্তর করা হয়। বিকেল পাঁচটায় মৃত্যুবরন করেন এই ভাষা আন্দোলন, মহান মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন সহ দেশের সব ক্রান্তি লগ্নে অসামান্য অবদান রাখা এই শিক্ষাবিদ।

কেশবপুরে ১শত শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ

এস আর সাঈদ, কেশবপুর : যশোরের কেশবপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় হতে ১০১৯-২০ অর্থ বছরে বড় পাথরা মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ১ শত জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৫ লাখ টাকার শিক্ষাবৃত্তি, শিক্ষা উপকরণ, স্বাস্থ্য উপকরণ, ক্রিড়া ও সাংকৃতিক সামগ্রী এবং মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে র ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উপকরণ, ক্রিড়া ও সাংকৃতিক উপকরণ এবং বাইসাইকেল বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত জাহান। বিতরণকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সিএ আব্দুস সালাম, কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, বড় পাথরা মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি মনোহর গাইন, প্রভাষক জয়দেব বৈরাগ্য, সমিতির সহ-সভাপতি বলয় চন্দ্র বিশ্বাস প্রমুখ।

কেশবপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় ৭টি বসতবাড়ি ভাংচুর-লুটপাট : আহত ১১

এস আর সাঈদ, কেশবপুর : যশোরের কেশবপুরের চাঁদড়া গ্রামে মামলা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষে উপর হামলা, ৭টি বসতবাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় ১১ জন আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এব্যাপারে ১৪ মে থানায় অভিযোগ হয়েছে।
কেশবপুর থানায় লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার চাঁদড়া গ্রামে বিভিন্ন বিষয়ে পূর্ব থেকে বিরোধ ও আদালতে মামলা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে মণিরামপুর উপজেলার হাজরাকাটী গ্রামের মহির উদ্দীন, তৌহিদ, মোরশেদ, রেজোয়ান, আব্দুল বারিক, আব্দুল করিম, হারুন, কামাল উদ্দীন, তরিকুল, মোসলেম, সোহাগ হোসেন ও ফজলু এবং কেশবপুর উপজেলার চাঁদড়া গ্রামের আব্দুল আহাদ, খলিল, আলাউদ্দীন, ইব্রাহীম, আব্দুল মজিদ, আব্দুস সামাদ, ইসমাইল, ইব্রাহীম. হাসাইন, ফয়সাল, আব্দুর রহিম-সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৩০/৩৫ জন বে-আইনীভাবে সংগবদ্ধ হয়ে বাঁশের লাঠি, লোহার রড, ধারালো গাছি দা, শাবল-সহ দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ১২ মে বিকাল সাড়ে ৩ টায় প্রতিপক্ষ তোফাজ্জেল মোড়লের পূত্র লিটন মোড়লের বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে হামলা চালায়। হামলায় লিটন (৩৮), পিতা তোফাজ্জল হোসেন (৫৫), ভাই রুবেল (২৮), ভাইয়ের বৌ আঞ্জুয়ারা বেগম (২৪), অন্তস্বত্তা চাচাতো বোন সোনিয়া খাতুন (২০), চাচা বদর উদ্দীন (৫৭), চাচাতো ভাই ওলিয়ার (২৬), চাচাতো ভাবি হামিদা বেগম (২১), চাচা নজরুল ইসলাম (৫০), চাচী ফেরদৌসি বেগম (৪৫) চাচাতো ভাই বাবুল (২৮) কে মারপিট করে আহত করে। হামলাকারীরা এসময় ৭টি বসত-বাড়ি ভাংচুর করে স্বার্নালংকার ও নগদ অর্থ লুটপাট করে হত্যার হুমকী দিয়ে চলে যায়। মারাত্নক আহতাবস্থায় এলাকাবাসি তাদেরকে উদ্ধার করে কেশবপুর হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। এব্যাপারে লিটন মোড়ল বাদী হয়ে আসামীদের নাম উল্লেখ করে ১৪ মে কেশবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। থানার অফিসার ইনচার্জ জসিম উদ্দীন জানান, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মোংলায় বিদেশী প্রতিষ্ঠানের ১৫৪ জন শ্রমিককে পূর্ব ঘোষিত নোটিশ ছাড়া চাকরিচুত্য

নিজস্ব প্রতিনিধি : মোংলা ইপিজেডে একটি বিদেশী প্রতিষ্ঠানের ১৫৪ জন শ্রমিককে পূর্ব ঘোষিত নোটিশ ছাড়া চাকরিচুত্য করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে ইপিজেড গেটে বিক্ষোভ করেছে চাকরীচুত্য বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। শ্রমিকদের অভিযোগ-মোংলা ইপিজেডে ‘গোনাজুহাত ফাং সাইন্স এ্যান্ড টেকনোলজি বিডি কোম্পানি লিমিটেড’ নামের চীনা এ প্রতিষ্ঠানটি উৎপাদন কার্যক্রম শুরু হয় গত বছর নভেম্বরে। তখন থেকে কম মূল্য বেতনে ৩ শতাধিক শ্রমিক নিয়োগ করা হয় প্রতিষ্ঠানটির সুতা উৎপাদনের কাজে। আর চাকুরিতে যোগদানের ৬ মাস পর তাদের স্থায়ীভাবে নিয়োগ দেয়া কথা থাকলে দীর্ঘদিন থেকে কর্তৃপক্ষ নানা টালবাহানা করে আসছিল। করোনার লকডাউন ঘোষনার আগে প্রতিষ্ঠানটি কয়েক দফায় দেড় শতাধিক শ্রমিককে নানা কারন দেখিয়ে ছাটাই করে। প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শ্রমিকদের স্থায়ীকরন না করে উল্টো হয়রানী সহ সর্বশেষ গতকাল বৃহস্পতিবার বাকি আর ১৫৪ জন শ্রমিককে চাকরিচুত্য করা হয়। কর্তৃপক্ষের এমন আচরন ও সিদ্ধান্তে শ্রমিকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দেয়। ক্ষুব্ধ শ্রমিকরা চাকরি স্থায়ীকরন ও পূনঃ নিয়োগের দাবীতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুরে পর্যন্ত ইপিজেড গেট ও রাস্তায় অবস্থান নিয়ে দফায় দফায় বিক্ষোভ করে। এ সময় ইপিজেডের নিরাপত্তা রক্ষীরা ইপিজেড এড়িয়ায় দাড়াতে না দিয়ে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, ওই প্রতিষ্ঠানের প্রশাসনিক ব্যাবস্থাপক তাজেল ইসলাম, এ্যাডমিন সাইমুন ও প্রধান হিসাব রক্ষক হিরোক সরকারসহ কয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা মিলে এ সকল শ্রমিকদের চাকরী স্থায়ী করণ না করে তাদের পরামর্শে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ আমাদের চাকরীচুত্য করেছে। প্রথম যখন প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ দেয়া হয় সেই সময় এই কর্মকর্তাগন চাকরীর ৬ মাস অতিবাহিত হলে শ্রমিকদের স্থায়ী করণ ও বেতন বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দেয় কিন্ত আজ ৬মাস পরে তাদের চাকরী থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এসকল অসহায় শ্রমিকদের আংশিক বেতন ও রিজাইন লেটারে জোরপূর্বক স্বাক্ষর রেখে বের করে দেয়া হয় তাদের। এ প্রতিষ্ঠানে কাজ করতে পঙ্গু হয়েছেন কেউ কেউ। তাদেরও এ প্রতিষ্ঠানে রাখা হয়নি। তবে ৮ কর্মকর্তা রয়েছেন বহাল তবিয়াতে। স্থায়ীকরন ও বেতন বৃদ্ধি করতে হবে আর তাই এ শ্রমিকদের ছাটাই করে নতুন ভাবে ক্যাজুয়েল শ্রমিক নিয়ে ফের প্রতিষ্ঠানটি উৎপাদন শুরু করার প্রচেষ্টায় কর্তৃপক্ষ লিপ্ত রয়েছে শ্রমিকদের অভিযোগ। তবে এ বিষয় ‘গোনাজুহাও ফাং সাইন্স এ্যান্ড টেকনোলজি বিডি কোম্পানি লিমিটেড’ এর প্রধান হিসাব কর্মকর্তা হিরক সরকারসহ অন্য দুই কর্মকর্তা অন্যদের ম্যানেজ করতে পারলেও স্থানীয় সংবাদর্কীদের সংবাদটি না করার জন্য ভিন্নভাবে ম্যানেজ করার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। এসময় তারা বলেন, আমদানী-রফতানী ও উৎপাদন বন্ধ থাকায় শ্রমিকদের ছাটাই করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান চালু হলে তাদের নিয়োগ দেয়া হবে বলেও জানায় এ কর্মকর্তাগন।

মোংলায় পশুর নদী থেকে অজ্ঞাত লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধি : মোংলার সাইলো এলাকার পশুর নদীর থেকে ১ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকালে হাত-পা বাধা ও গলায় পাথর ঝুলানো অবস্থায় একটি মরাদেহ জেরেদেও জালে বাধে। এসময় পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। মোংলা নৌ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল হোসেন শরিফ জানান, বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় জেলেরা অজ্ঞাত ৪৫ বছর বয়স্ক লোকের হাত-পা বাধা অবস্থায় পশুর নদীতে দেখতে পায় স্থানীয় জেলেরা। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মোংলা থানায় নেয়া হয়। মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট মর্গে পাঠানো হয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে কেউ মেরে হাত-পা বেধে নদীতে ফেলে দিয়েছে। তবে এব্যাপারে থানায় একটি সাধারন ডায়রী করা হয়েছে।

তালার জালালপুরে ১৬৩ পরিবারের মাঝে চাল ও সবজি বিতরণ

তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা : তালা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে ১৬৩ টি দুস্থ, অসহায় ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে চাল ও সবজি বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সকালে জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে ইউপি চেয়ারম্যান এম মফিদুল হক লিটু,ট্যাগ অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম ও ইউপি সদস্যরা উপস্থিত থেকে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় ঐসব পরিবারের মাঝে নগদ ৮ হাজার ৭শত টাকার সবজি বিতরণ করা হয়। পরিষদের পক্ষ থেকে দেওয়া খাদ্য তালিকায় ছিল ৮ কেজি চাল, ১ কেজি আলু এবং ১ টি করে মিষ্টি কুমড়া।

সারাদেশে ৩০মে পর্যন্ত গণপরিবহন বন্ধ

ঢাকা অফিস : করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধ এবং পরিস্থিতির উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকার সাধারণ ছুটি আগামী ৩০মে পর্যন্ত বর্ধিত করায় দেশব্যাপী চলমান গণপরিবহন বন্ধের সিদ্ধান্ত আগামী ৩০মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার (১৪ই মে) সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মো. আবু নাছের স্বাক্ষরিত এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, জরুরি পরিষেবা যেমন-বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস ও অন্যান্য জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরসমূহের কার্যক্রম (স্থলবন্দর, নদীবন্দর ও সমুদ্রবন্দর), পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট, ডাকসেবা ও সংশ্লিষ্ট কাজ, খাদ্যদ্রব্য, কাঁচাবাজার, সড়ক ও নৌপথে সকলপ্রকার পণ্য, রাষ্ট্রীয় প্রকল্পের মালামাল, ঔষধ, ঔষধশিল্প, চিকিৎসা সেবা ও চিকিৎসা বিষয়ক সামগ্রী পরিবহন, শিশুখাদ্য, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া, ত্রাণ, কৃষিপণ্য, শিল্পপণ্য, সার, বীজ, কীটনাশক, পশুখাদ্য, মৎস্য ও প্রাণীসম্পদ খাতের উৎপাদিত পণ্য, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত পণ্য এবং জীবনধারণের মৌলিক পণ্য উৎপাদন ও পরিবহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে। এছাড়া, পণ্যবাহী যানবাহনে যাত্রী পরিবহণ করা যাবে না।

তালায় কৃষকের ২বিঘা জমির পাট কেটে দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা

তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা : তালায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক কৃষকের ২ বিঘা জমির পাট কেটে বিনষ্ট করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের ফলেয়া-চাঁদকাটি মাঠে। এতে ঐ কৃষকের প্রায় ৫০ হাজার টাকার মত ক্ষতিসাধিত হয়েছে।
উপজেলার চাঁদকাটি গ্রামের মৃত এরফান আলী সরদারের ছেলে নাজমুল হুদা ওরফে নজরুল সরদার জানান, একই এলাকার নিজাম মোড়ল গংদের সাথে তার জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। তারই জের ধরে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের যে কোন সময় তার ২ বিঘা জমির পাট কেটে সাবাড় করে দিয়েছে। এতে তার প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় তিনি উর্দ্ধতন প্রশাসনের নিকট তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবী জানান। তবে নিজাম মোড়ল জানান, পাট কাটার সাথে তিনি জড়িত নন।
তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল জানান, ঘটনাটি তিনি শুনেছেন, তবে কোন অভিযোগ পাননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

করোনায় আক্রান্তের পরিচর্যা কীভাবে করবেন?

বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বেড়েই চলেছে মৃত্যুর মিছিল। দেশেও প্রতিনিয়ত বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা।

এ অবস্থায় যাদের নিশ্চিত করোনা শনাক্ত হয়েছে বা যাদের হয়েছে বলে সন্দেহ, ঘরে থাকাকালীন অবস্থায় কীভাবে তাদের পরিচর্যা করতে হবে সে বিষয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কিছু পরিমর্শ দিয়েছে। সেগুলো হলো:

  • আক্রান্ত ব্যক্তিকে যথেষ্ট বিশ্রাম নিতে হবে। পুষ্টিকর খাবার খাওয়া, প্রচুর পানি আর তরল পান করতে হবে।
  • আক্রান্ত ব্যক্তি ও পরিচর্যাকারী উভয়কেই মেডিক্যাল মাস্ক পরতে হবে। হাত দিয়ে মাস্ক ধরা যাবেনা না। মুখে হাত দেয়া যাবেনা।কাজ শেষে মাস্ক ফেলে দিতে হবে ময়লার ঝুড়িতে।
  • বারবার সাবান পানি দিয়ে বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুতে হবে। অসুস্থ ব্যক্তির সংস্পর্শে বা এর চারপাশের সংস্পর্শে এলে খাবার তৈরির আগে, খাবার খেতে বসার আগে ও টয়লেট ব্যবহারের পর হাত থুতে হবে।
  • অসুস্থ মানুষের বাসনপত্র, তোয়ালে, বিছানার চাদর এসব জিনিস সাবান দিয়ে ধুতে হবে। অসুস্থ ব্যক্তি যা যা হাত দিয়ে স্পর্শ করবেন, সেগুলো বারবার জীবাণু শোধন করতে হবে।
  • অসুস্থ ব্যক্তির অবস্থা শোচনীয় হলে বা শ্বাসকষ্ট হলে স্বাস্থ্য সেবাকেন্দ্রে ফোন করতে হবে।

সূত্র: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

তালায় অভ্যন্তরীণ ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন

তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা : সাতক্ষীরা তালা উপজেলা খাদ্য গুদামে অভ্যন্তরীণ বোরো ধান/চাল সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪মে) সকালে উপজেলা প্রশাসন ও খাদ্য বিভাগের আয়োজনে তালা উপজেলার পাটকেলঘাটাস্থ খাদ্য গুদামে উক্ত ধান/চাল সংগ্রহ অভিযানের উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ। তালা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আবুহেনা মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার। পাটকেলঘাটা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আবু জাফর,জেলা কৃষকলীগের সভাপতি বিশ্বজিৎ সাধু,সহকারী খাদ্য কর্মকর্তা মোঃ মিকাইল হোসেন, প্রণয় পালসহ চাল মিল মালিক ও কৃষক নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য, চলতি বোরো মৌসুমে তালা উপজেলায় ১ হাজার ৭১৬ মেট্রিকটন ধান ২৬ টাকা কেজি, ১ হাজার ৯৪ মেট্রিকটন সিদ্ধ ও ৬শ৬৯ মেট্রিক টন আতপ চাল ৩৬ টাকা কেজি দরে সংগ্রহ করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়।