ফুলতলায় ছাত্রদলের ঈদ সামগ্রী বিতরণ

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ ফুলতলা উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন আহবায়ক আসাদুজ্জামান জুয়েলের আর্থিক সহায়তায় শুক্রবার করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন, অসহায় দরিদ্র ৫০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান শিপলু, উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন আহবায়ক মোতালেব হোসেন তারেক, গাউসুল আজম, আলীমুল ইসলাম, সাগর গাজী, রাসেল শেখ, সদস্য হাসিবুর রহমান, আবির হোসেন, হাফিজুর রহমান, শেখ সোহেল রানা, রাকিবুল ইসলাম, যুবনেতা ফজর আলী প্রমুখ।

মোংলায় ঘূণিঝড় আম্পান ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি : ত্রাণ বিতরণ শুরু 

নিজস্ব প্রতিনিধি : ঘূণিঝড় আম্পান ব্যাপক তান্ডব চালিয়েছে । তান্ডব আতঙ্কে নিঘূম রাত কাটছে উপক‚লবাসীর। প্রায় সারা রাত ধরেই চালায় এই তান্ডব । এর ফলে ভেঙ্গে গেছে অনেক কাঁচা ঘরবাড়ি । ভেসে গেছে  চিংড়ি ঘেরের মাছ । জোয়ার ও বৃষ্টির পানিতে  নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে । ঝড়ের কবলে পড়ে ঘোরি নামের একটি লাইটারের জাহাজ ডুবে চরে আটকে তলা ফেটে যায়। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে ত্রাণ বিতরণ শুরু করেছে উপজেলা প্রশাসন। এসময় উপস্থি ছিলেন মংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাহাত মান্নান,মংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়র মোঃ জুলফিকার আলী, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মোঃ নাহিদুজ্জামান, কাউন্সিলর তালুকদার আঃ কাদের প্রমুখ । এদিকে আবহাওয়া অফিস ১০ নম্বার বিপদ সংকেত নামিয়ে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে ।
মংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাহাত মান্নান জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে ত্রাণ বিতরন শুরু হযেছে । যারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এমন ১৫ শ পরিবারের মাঝে তাৎক্ষনিক ভাবে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে । এসময় তিনি দাবি করেন,এই ঝড়ে ১২৫টি ঘর সম্পুর্নভাবে বিধস্থ হযেছে ৫২৫টি ঘর আংশিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে । ১৫শ লোক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে । মংলাতে কোন প্রাণ হানির ঘটনা ঘটেনি এবং কেউ আহত হয়নি । কানাইনগর এলাকায় একটি ভেড়ি বাধ আংশিক ভেঙ্গে ভিতরে পানি প্রবেশ করেছে । বহু মাছের ঘের পানিতে তলিয়ে ঘেছে । তবে কি পরিমান ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা নিরুপনের কাজ চলছে । ২/১ দিনের মধ্যে পুরোপুরি জানা যাবে ।
বুধবার রাতে মংলার ১০৬টি সাইক্লোন সেল্টারে আশ্রয় নেয়া ৮ হাজারের অধিক লোককে নিজ হাতে রান্না করে খাবার বিতরন করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার । খাবার বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রাহাত মান্নান, উপজেলা ভাইস চেযারম্যান মোঃ ইকবার হোসেন, উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মোঃ নাহিদুজ্জামান প্রমুখ ।
মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার ফকর উদ্দিন জানিয়েছেন ,মংলা বন্দরে অবস্থানরত ১১টি বানিজ্যিক জাহাজের পণ্য ওঠা-নামার কাজ বন্ধ রয়েছে। তবে তিনি দাবি করেন, স্টিভিডরসগন তাদের সুবিধা মতো সময় পণ্য খালাস কাজে শ্রমিক পাঠানো জন্য অনুমতি দেওয়া হযেছে । রাতের পালাতে পণ্য ওঠা-নামার কাজ শুরু হতে পারে ।
বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) মো. কামরুল ইসলাম জানান, বাগেরহাট জেলায় প্রায় ২ লাখ ৬৮ হাজার মানুষ আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করার কারনে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি । বাগেরহাট  জেলার জন্য ২০০ মেট্রিক টন চাল, নগদ ৩ লাখ টাকা, শিশু খাদ্যের জন্য ২ লাখ টাকা , গো-খাদ্যের জন্য ২ লাখ টাকা ও ২ হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার বরাদ্দ দেওয়া  হয়েছে।
অপরদিকে ,পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৩৫/১ পোল্ডারের শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের বগী এলাকার  বেড়িবাঁধ ভেঙে কয়েকটি এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বাগেরহাট জেলার সবকটি উপজেলায় প্রায় ১৮ ঘন্টা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।
বাংলাদেশ লাইটারেজ শ্রমিক ইউনিয়নের  সহ-সভাপতি মাইনুল হোসেন মিন্টু জানায়,ঝরের কবলে পড়ে ডুব চরে আটকে যায়  লাইটারের জাহাজ এমভি ঘোরি ।পরে জাহাজটি উদ্ধার করা হয়েছে । তবে কোন ক্ষযক্ষতি হযনি ।

আটোয়ারীতে ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ সমিতি গঠন

মনোজ রায় হিরু, আটোয়ারী(পঞ্চগড়) : পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ সমিতি গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২১ মে) বিকেলে উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদে দুই শতাধীক ইমাম ও মুয়াজ্জিনের উপস্থিতিতে কন্ঠভোটে উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব ক্বারী মোঃ তাহেরুল ইসলামকে সভাপতি ও ছোটদাপ তাহফিজুল কুরআন মাদরাসার পরিচালক হাফেজ মোঃ মখলেছুর রহমান মেসবাহকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট উপজেলা ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ সমিতির কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি গঠনের পুর্বে ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পঞ্চগড় জেলা ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ পরিষদের সদস্য সচিব হাফেজ মোঃ বেলায়েত হোসেন। তিনি বলেন, ইমাম ও মুয়াজ্জিনরা বড় অসহায়, দিন রাতে পাঁচবার সময়মত মুয়াজ্জিনদের আযান দিতে হয় আর সময়মত ইমামদের মুসল্লিদের নিয়ে নামাজ আদায় করতে হয়। রোদ ,ঝড় ,বৃষ্টি উপেক্ষা করে এই মহান দায়িত্ব পালন করে আসছি । আমাদের না আছে কোন সুযোগ সুবিধা ,না আছে কোন সঠিক নীতিমালা। যুগ যুগ ধরে ইমামতি, মুয়াজ্জিনি খেদমতে নিয়োজিত থাকার পর বয়সের ভারে যেভাবে হোক না কেন আমরা যখন অবসরে যাই, আমাদের না আছে কোন পেনশন, না আছে কোন ইমাম মুয়াজ্জিন ভাতা। অথচ এই অধুনা বিশ্বে সব শ্রেণি পেশার মানুষের কর্ম অথবা চাকুরী জীবনে আছে অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা আর অবসর জীবনে আছে পেনশন ভাতা সহ অঢেল সুযোগ সুবিধা। তাহলে ইমাম মুয়াজ্জিনদের বেলায় এই বৈষম্য কেন ? তিনি সকল ইমাম মুয়াজ্জিনদের সুসংগঠিত হওয়ার আহবান জানান। তিনি অবহেলিত ইমাম মুয়াজ্জিনদের কল্যাণে সরকারের নেক দৃষ্টি কামনা করছেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন,পঞ্চগড় জেলা ইমাম মুয়াজ্জিন কল্যাণ পরিষদের অর্থ সচিব মুফতি মুহিবুর রহমান, সদস্য মাওলানা মোঃ মকছেদুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব ক্বারী মোঃ তাহেরুল ইসলাম, ছোটদাপ তাহফিযুল কুরআন হাফেজিয়া মাদরাসার পরিচালক হাফেজ মাওলানা মোঃ মখলেছুর রহমান মেসবাহ প্রমুখ।#

আটোয়ারীতে ইমাম-মুয়াজ্জিনগণকে অর্থ সহায়তা

মনোজ রায় হিরু, আটোয়ারী(পঞ্চগড়) : পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় মহামারী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় অস্বচ্ছল ইমাম ও মুয়াজ্জিনগনের মাঝে অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল হতে এ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়। বৃহস্পতিবার ( ২১ মে) বিকেলে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ তৌহিদুল ইসলাম তার কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিজন ৩৫০/- টাকা হারে ২০৮ জনকে মোট ৭২,৮০০/- টাকা ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ পরিষদের নেতৃবৃন্দের হাতে তুলে দেন। এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো: ওয়ালিফ মন্ডল সহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে নেতৃবৃন্দ উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদে তালিকা মোতাবেক ইমাম ও মুয়াজ্জিনগনের মাঝে নির্ধারিত অর্থ বিতরণ করেন। এসময় পঞ্চগড় জেলা ইমাম মুয়াজ্জিন কল্যাণ পরিষদের সদস্য সচিব হাফেজ মোঃ বেলাল হোসেন, অর্থ সচিব মুফতি মুহিবুর রহমান, সদস্য মাওঃ মকছেদুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব ক্বারী মোঃ তাহেরুল ইসলাম, ছোটদাপ তাহফিযুল কুরআন হাফেজিয়া মাদরাসার পরিচালক হাফেজ মোঃ মখলেছুর রহমান সহ গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।