ফুলতলায় ইসলামী ব্যাংকে করোনাক্রান্ত ৬ লকডাউন ১৯ জুলাই পর্যন্ত

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ ইসলামী ব্যাংক খুলনার ফুলতলা শাখা লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। করোন ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ায় প্রশাসনের নির্দেশক্রমে সোমবার থেকে আগামী ১৯ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন করা হয়। সম্প্রতি ব্যাংকের এ শাখায় কর্মরত ৬ কর্মকর্তা ও কর্মচারী কোভিড-১৯ রিপোর্টে পজেটিভ আসায় অন্যান্য জনশক্তি এবং গ্রাহকদের মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হওয়ার আশংকায় গতকাল (রোববার) লকডাউন করা হয়। আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন সিনিয়র অফিসার আবুল হাসান খান ও মাসুম বিল্লাহ, জুনিয়র অফিসার আব্দুস সালাম, এসজি নাসির উদ্দিন, এমসিজি আবুল হাসান এবং এমসিজি হাফিজুল ইসলাম। আক্রান্ত সকলেই হোম কোয়ান্টাইমে রয়েছেন বলে ব্যাংক সূত্রের দাবি। অপরদিকে ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এসএম কামাল হোসেন জানান, ফুলতলা উপজেলায় শনিবার পর্যন্ত ১২১ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ১ জন মৃত্যবরণ করেন। এ ছাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার পারভীন সুলতানাসহ মোট ১৭ জন সুস্থ হয়েছেন।

ডুমুরিয়ায় গাঁজাসহ গ্রেফতার ২

বিজ্ঞপ্তি : খুলনা জেলা ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ডুমুরিয়া থানা এলাকা হতে সর্বমোট ৮০০ (আটশত) গ্রাম মাদকদ্রব্য গাঁজাসহ ০২ জন গ্রেফতার। জেলা গোয়েন্দা শাখা, খুলনার ইনচার্জ জনাব, সেখ কনি মিয়া এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) গোপাল চন্দ্র রায় সংগীয় এস আই (নিঃ) মোঃ হামিদুল ইসলাম ও ফোর্স সহ মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও অভিযান পরিচালনাকালে আজ রবিবার সকাল ৯টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মামলার ঘটনাস্থল ডুমুরিয়া থানাধীন আঠারমাইল গরুরহাট সংলগ্ন জনৈক রেজাউল এর আল মদিনা হোটেল এর সামনে (খুলনা টু সাতক্ষীরা) মহাসড়কের উপর থেকে ০৫/০৭/২০২০ তারিখ ০৯.০০ ঘটিকার সময় আসামি ১) আঃ ছালাম মোল্যা (৪৫), পিতা- মৃত ইসমাইল মোল্যা, মাতা-সৌরভ বিবি, সাং-বৈকারী, বর্তমান সাং- মধুমাল্লাডাঙ্গি (বাসস্ট্যান্ডের পাশে সিরাজুল উকিল এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া), পোঃ রসুলপুর, থানা ও জেলা-সাতক্ষীরা, ২। মোঃ আবু তাহের হাওলাদার (৩০), পিতা- এনায়েত হাওলাদার, মাতা-হেরিয়া বেগম সাং-ভদ্রাগাতি, (২ নং শ্রীফলতলা ইউঃ), থানা-রূপসা, জেলা-খুলনা, বর্তমান সাং- মধুমাল্লাডাঙ্গি (বাসস্ট্যান্ডের পাশে), (শ্বশুর শহিদুল গাজী), পোঃ রসুলপুর, থানা ও জেলা-সাতক্ষীরাদ্বয়কে গ্রেফতার পূর্বক তাদের হেফাজত হতে সর্বমোট ৮০০ (আটশত) গ্রাম মাদকদ্রব্য গাঁজা উদ্ধার পূর্বক ০৫/০৭/২০২০ খ্রিঃ তারিখ ০৯.১৫ ঘটিকার সময় জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করেন। এ সংক্রান্তে জেলা গোয়েন্দা শাখা, খুলনার এসআই (নিঃ)/ মোঃ হামিদুল ইসলাম বাদী হয়ে আসামিদ্বয়ের বিরুদ্ধে ডুমুরিয়া থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন।

গাইবান্ধায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪০৪ 

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধায় করোনা ভাইরাসে  গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ১১ জন আক্রান্ত হয়েছে বলে ৫ জুলাই রোববার সিভিল সার্জন সুত্রে জানা গেছে।  এ নিয়ে গাইবান্ধায় করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত রোগীর মোট সংখ্যা হলো ৪০৪ জন এবং এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের।আর সুস্থ্য হয়েছেন ১৫১ জন তারা স্বাভাবিক জীবন যাপন করছেন। এদিকে জেলার সাতটি উপজেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ১৮৩ জন।

মোংলায় প্রতিপক্ষের হামলায় ইউপি মেম্বরসহ ৫ জন রক্তাক্ত জখম

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : মোংলায় সালিশ বৈঠককে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের অতর্কিত হামলায় স্থানীয় ইউপি মেম্বরসহ অন্তত ৫ জন রক্তাক্ত জখম হয়েছে। আহতদের মধ্যে তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে আহত আলমগীর মল্লিকের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।
এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের মালগাজী গ্রামের মারিয়া সরকারের ছেলে পার্থ সরকার (২৫) একই এলাকার জনৈক ব্যক্তির মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে ওই মেয়েটি গর্ভবতী হয়ে পড়েন এবং একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে পার্থ সরকার ও মেয়েকে স্ত্রী এবং স্ত্রীর ভূমিষ্ট কন্যাকে স্বীকৃতি না দেয়ার কারণেই শনিবার সন্ধ্যার পর সালিশ বৈঠক বসে। চাঁদপাই ইউনিয়ন পরিষদের এ সালিশিতে পার্থকে ওই মেয়েকে স্ত্রী বলে মেনে নেয়ার এবং বিয়ে করার সিদ্ধান্ত হয়। সালিশিতে ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মো: তারিকুল ইসলাম, স্থানীয় ইউপি মেম্বর জাহাঙ্গীর মল্লিক, মিঠাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো: ইস্রাফিল হাওলাদারসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্র্গরা উপস্থিত ছিলেন। সালিশি বৈঠকে পার্থকে বিয়ের সিদ্ধান্ত দেয়া হলে তাৎক্ষনিক সে ও তার পরিবার মেনে নিলেও এ নিয়ে তাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। যার কারণে সালিশ শেষে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চলে এসে রাত সাড়ে ৯টার দিকে পথিমধ্যে মালগাজী মিশন বাড়ীর মোড়ে সালিশ বৈঠকে থাকা ইউপি মেম্বর ও তার সাথের লোকজনের উপর হামলা চালায় সাবেক ইউপি মেম্বর রেজি সরকারের নেতৃত্বে পার্থ গংরা। এ সময় রেজি মেম্বর, পার্থ, পার্থর মা মারিয়া, খালা চন্দনা, খালাতো ভাই সেতুসহ বেশ কয়েকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মেম্বর জাহাঙ্গীরসহ ৫ জনকে জখম করে। পরবর্তীতে আহতদের উদ্ধার করে রাতেই তাদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আহত আলমগীর মল্লিক, রাহাত মল্লিক, জাহিদ মল্লিককে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি মেম্বর জাহাঙ্গীর মল্লিক বলেন, সালিশ মন মত না হওয়ায় আমার প্রতিপক্ষ সাবেক ইউপি মেম্বর রেজি সরকার, পার্থ ও তার মা মারিয়াসহ অন্যান্যরা আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে এবং কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে। এরমধ্যে আমার ভাই আলমগীর মল্লিকের অবস্থা খুবই খারাপ, তাকে এবং রাহাত ও জাহিদকে খুলনায় পাঠানো হয়েছে।
মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, এ ঘটনায় রবিবার বিকেলে ৭ জনের নাম পরিচয় উল্লেখ্যসহ আরো অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নং ৩। মামলার আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের তৎপরতা চলছে বলেও জানান তিনি।

আটোয়ারী প্রেসক্লাবে নবাগত ইউএনও’র পরিচিতি সভা ও সংবর্ধনা

মনোজ রায় হিরু, আটোয়ারী : আটোয়ারী উপজেলার নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আবু তাহের মো: সামসুজ্জামানকে আটোয়ারী প্রেসক্লাবের পক্ষ হতে এক সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। সংবর্ধনা শেষে প্রেসক্লাবের সদস্যদের সঙ্গে নবাগত নির্বাহী অফিসার এর পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্রেসক্লাবের কার্যালয়ে রবিবার (৫ জুলাই) বিকেলে প্রেসক্লাবের সভাপতি মো: আনিসুর রহমানের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা ও এই পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক মনোজ রায় হিরু’র সঞ্চালনায় প্রেসক্লাবের ঐতিহ্য ও প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন সাধারন সম্পাদক এ রায়হান চৌধুরী রকি। নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মো: সামসুজ্জামান তার বক্তব্যে বলেন, আমি সততার সাথে কাজ করতে চাই। এক্ষেত্রে সাংবাদিক সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। আমি চাই, আমার বদলির পর যেন আটোয়ারীর মানুষ আমাকে স্মরনে রাখে এবং আমার জন্য দোয়া করেন। অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা প্রকৌশলী মো: জাকিউল আলম, সিনিয়র সাংবাদিক জিল্লুর হোসেন সরকার, ধামোর ইউ’পি চেয়ারম্যান ও সাংবাদিক কাজী নজরুল ইসলাম দুলাল, মো: হাসিবুর রহমান, রাব্বু হক প্রধান ও মো: নাজমুল হক। এদিকে স্বল্প পরিসরে আয়োজিত সংবর্ধনা ও পরিচিতি সভায় নবাগত উপজেলা প্রকৌশলী মো: জাকিউল আলমকেও প্রেসক্লাবের পক্ষে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে সংবর্ধিত করা হয়।

ডুমুরিয়ায় যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যাংক ম্যানেজারকে গালিগালাজের অভিযোগ

সুজিত মল্লিক, ডুমুরিয়া : ডুমুরিয়া উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এক ব্যাংক ম্যানেজারকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিচারের দাবিতে ওই ম্যানেজার প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, ২রা জুলাই বৃহস্পতিবারে ডুমুরিয়া সোনালী ব্যাংকে উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এস এম কামরুজ্জামানের বেতন বিল জমা হয়। কিন্তু ওই বিলপত্রে উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিসারের পরিবর্তে ছিল সুপারিনটেনডেন্টের স্বাক্ষর। যা দেখে ব্যাংকের ক্যাশিয়ার ওই বিলপত্রটি ম্যানেজার মৃনাল কান্তি দাসকে অবিহিত করেন এবং সংশোধনীর জন্য সংশ্লিষ্ট হিসাব রক্ষণ দপ্তরকে অবগত করেন। কিছুক্ষণ পরেই যুব উন্নয় কর্মকর্তা এস এম কামরুজ্জামান, ম্যানেজার মৃনাল কান্তি দাসকে ফোন দেন এবং ফোনে তাদের মধ্যে তুমুল তর্ক-বিতর্ক হয়।
এ বিষয়ে সোনালী ব্যাংক ম্যানেজার মৃনাল কান্তি দাস জানান, বিলপত্রটি দেখে ক্যাশিয়ারকে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের সঙ্গে আলাপ করে সমাধানের ব্যবস্থা করতে বলে আমি দুপুরে খেতে বসি। এরই মধ্যে যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আমাকে ফোন করে উচ্চস্বরে এই ম্যানেজার বলে কথা বলতে শুরু করেন। তখন দু’জনের মধ্যে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে তিনি আমাকে শুয়ারের বাচ্চা, কুত্তার বাচ্চা ও বেয়াদোব বলে গালিগালাজ করে ফোন কেটে দেন। তার এমন আচারণে আমি খুবই মর্মাহত। বিষয়টি নিয়ে আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উর্দ্ধতন ব্যাংক কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করেছি।
এ বিষয়ে উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এস এম কামরুজ্জামান জানান, বিলপত্রের সবকিছু ঠিক থাকার পরেও তিনি ইচ্ছা করে আমার বেতন বিলটি আটকে রাখেন। বিষয়টি নিয়ে মুঠোফোনে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও গালিগালাজের ঘটনা ঘটে।
বিষয়টি নিয়ে ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গাজী এজাজ আহমেদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি, খোজ খবর নিচ্ছি। এখনো বসাবসির ডেট ঠিক করিনি। তবে অফিসারদের মধ্যে এমন আচারণ মোটেই সম্মানজনক নয়।

খলিলনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির সভাপতি প্রণব ঘোষ বাবলু

তালা প্রতিনিধি : তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু আবারো হলেন তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার, (২ জুলাই ) যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এর বি অ ৬/৪৮৮৪/৩৭.১১.৪০৪১.৫০১.০১.৬.২০.৫৪৮ নং স্মারকে বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক ডঃ বিশ্বাস শাহিন আহম্মদ স্বাক্ষরিত সূত্রে প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলুকে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক এস,এম রেজওয়ানউল্লাহকে সদস্য সচিব করে ৪ সদস্য বিশিষ্ট এডহক কমিটি অনুমোদন প্রদান করেন। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন অভিভাবক প্রতিনিধি হারুণ অর রশিদ ও শিক্ষক প্রতিনিধি সুফিয়া কানিজ।
এদিকে প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু খলিলনগর ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় সভাপতি মনোনীত হওয়ায় তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তালা প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দরা হলেন তালা প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা এমএ হাকিম, শাহাদাৎ হোসেন, আব্দুস সালাম, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সরদার মশিয়ার রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি গাজী জাহিদুর রহমান, সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, যুগ্ন-সম্পাদক তপন চক্রবর্তী, সহ-সম্পাদক সব্যসাচী মজুমদার বাপ্পী, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সেলিম হায়দার, কোষাধ্যক্ষ এমএ ফয়সাল, দপ্তর সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ রোকনুজ্জামান টিপু, প্রচার সম্পাদক কাজী আরিফুল হক ভুলু, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জিএম গোলাম রসুল, ক্লাবের সদস্য গাজী সুলতান আহমদ, এসএম লিয়াকত হোসেন, প্রভাষক নজরুল ইসলাম, প্রভাষক ইয়াছিন আলী, খলিলুর রহমান লিথু, অর্জুন বিশ্বাস, মোঃ নূর ইসলাম,ফিরোজা রহমান শিমু, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, আছাদুজ্জামান রাজু, আজমল হোসেন জুয়েল, সেকেন্দার আবু জাফর বাবু, মোঃ খলিলুর রহমান, কাজী লিয়াকত হোসেন, কামরুজ্জামান মিঠু, সুমন রায় গনেশ, মোঃ রবিউল ইসলাম, মোঃ তাজমুল ইসলাম, এস,কে রায়হান সাংবাদিক সৈদয় মারুফ হোসেন,সেলিম হোসেন,মুকুল হোসেন, রিয়াদ হোসেন, সন্তোষ ঘোষ,বিল্লাল হোসেন,লিটন হোসেন প্রমুখ।

ডুমুরিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় সাবেক মেম্বার অনুকুল আহত

সুজিত মল্লিক, ডুমুরিয়া : ডুমুরিয়ার মাগুরখালিতে প্রতিপক্ষের হামলায় সাবেক ইউপি সদস্য অনুকুল চন্দ্র মন্ডল (৫২) রক্তাক্ত জখম হয়েছেন। শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে আমুড়বুনিয়া বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। বর্তমানে তিনি খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন এবং এ ঘটনার তার স্ত্রী বাদি হয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।
স্থানীয় ও অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে মাগুরখালির আমুড়বুনিয়া বাজারে ইউপি সদস্য শুভ মন্ডলের ভাইপো’র সাথে সাবেক ইউপি সদস্য অনুকুল চন্দ্র মন্ডলের ভাইপো’র একটি মেয়েলি ঘটনা নিয়ে ঝগড়া ও মারামারি হয়। খবর পেয়ে অনুকুল মন্ডল সেখানে উপস্থিত হয়ে শুভ মেম্বারের ভাইপো’কে চড়-থাপ্পড় মেরে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এ ঘটনার প্রতিশোধ নিতে রাত সাড়ে আটটার দিকে শুভ মেম্বার ও তার দাদা সজল মন্ডল বাবুসহ ১০/১২ জন আমুড়বুনিয়া বাজারে গিয়ে অনুকুল মন্ডলের ওপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। মারপিটে অনুকুল চন্দ্র রক্তাক্ত জখম হন এবং তার বাম চোখের অবস্থা আশংকাজনক। বর্তমানে তিনি খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ ব্যাপারে শনিবার সকালে অনুকুল চন্দ্র মন্ডলের স্ত্রী বাদি হয়ে ডুমুরিয়া থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। বিষয়টি নিয়ে ডুমুরিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান, অভিযোগটি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য থানার অফিসারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।