তারেক জিয়ার সহযোগী “শাহ আলমের” ইশারায় চলেন বাংলাদেশ রেলওয়ে!

বিপ্লব দে, চট্টগ্রাম: বাংলাদেশ রেলের টেন্ডার- ইজারা-নিয়োগ-সরবরাহ সবকিছুই চলে হাওয়া ভবনের সিন্ডিকেট প্রধান ও তারেক জিয়ার প্রধান অর্থ যোগানদাতা “শাহ আলমের” ইশারায়।

রেল সূত্রে জানা যায় বাংলাদেশ রেলে কর্মরত বিএনপি-জামাত অনুসারী কর্মকর্তাদের মাধ্যমে শাহ আলম টাকার বিনিময়ে চাকুরী পাইয়ে দেওয়ার নামে হাতিয়ে নিয়েছেন কয়েক কোটি টাকা।  ইতিমধ্যে চাকুরী দিতে না পারায় শাহ আলমের বিরুদ্ধে একাধিক ভুক্তভোগী চেক প্রতারণার মামলা করেছেন বলে জানা গেছে।

চাকুরী না পাওয়া একাধিক ব্যক্তি প্রতিবেদককে জানান আমরা শাহ আলমের নিকট হতে টাকার বদলে চেক পেয়েছি কিন্তু এখনো পর্যন্ত আমাদের চেকের টাকা পরিশোধ করেনি।

শাহ আলমের হাতে চাকুরীর জন্য টাকা দিয়ে প্রতারিত হওয়া ব্যাক্তিরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিবেদককে জানান সরকার দলীয় কিছু সুবিধাভোগী ও  গোপন আতাতকারী নেতা-কর্মীদের ম্যানেজ করে নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন শাহ আলম। বিগত জামায়াত-বিএনপির জোট সরকার আমলের সক্রিয় ক্যাডাররা বর্তমানে ছাত্রলীগ-যুবলীগের নাম ব্যবহার করে শাহ আলমের নেতৃত্বে নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন। শাহ আলমের নিকট হইতে পাওনা টাকা চাইতে গেলে তার অনুসারী মুখোশধারী নেতাকর্মীরা মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে।

জানা যায় শাহ আলমের নেতৃত্বে রয়েছে একাধিক  কিশোর গ্যাং এই কিশোর গ্যাং সদস্যদের ভয়ে তার বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ করে শাহ আলম চালিয়ে যাচ্ছেন মাদক পাচার, চোরাচালান ও পতিতা বাণিজ্য। এই অবৈধ বাণিজ্যের মাধ্যমে তিনি আয় করছেন দৈনিক কোটি টাকা। শাহ আলমের অবৈধ বাণিজ্যের একটি অংশ চলে যাচ্ছেন লন্ডনে পলাতক একুশে আগস্ট গেনেট হামলার প্রধান পরিকল্পনাকারী ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তারেক জিয়ার হাতে।

জানা যায় এফএএন্ডসিএও (পূর্ব ) এর নথি নং-ইএম/২০১/ওভার টাইম (লুজ -২ ), তাং- ০৯.০৭.২০২০ খ্রি. এ প্রদত্ত আর্থিক সম্মতি ও নথি নং-৫৪,০১,১৫০০,১১০,০৫,১০৮,২০, পিপি ০২ এ মহাব্যবস্থাপক(পূর্ব)মহোদয়ের মঞ্জুরীক্রমে প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী (পূর্ব ) মহোদয়ের ১২-০৭-২০২০ খ্রি: এর মঞ্জুরীপত্র অনুসারে এএমই/আইসি/সিএন্ডডব্লিউ/চট্টগ্রাম এর অধীনে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ডিপোতে ৫০কে টিএলআর “কাজ নাই মজুরী নাই” ভিত্তিতে নিয়োগ প্রদান করেন।

টিপু সেন নামে এক ব্যক্তি প্রতিবেদককে জানান শাহ আলম শতাধিক লোককে নিয়োগ দেওয়ার কথা বলে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন, ইতিমধ্যে ৫০ জনকে অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ প্রদান করলেও আমাকে নিয়োগ প্রদান করে করেনি, আমি টাকা ফেরত চাইলে তিনি তাঁহার কিশোর গ্যাং লিডারদের মাধ্যমে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করেন। তিনি আরো জানান অস্থায়ী ভিত্তিতে যাদের নিয়োগ দিয়েছেন তাদেরকে পরবর্তীতে স্থায়ী করা হবে বলে প্রতি জনের কাছ থেকে ৫ লক্ষ টাকা করে নিয়েছে।

অনিয়মের মাধ্যমে ৫০ জনকে নিয়োগের বিষয়ে জানতে প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী (পূর্ব) বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্মকর্তা মহিউদ্দিনকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করে নাই।

বটিয়াঘাটায় নদী থেকে লাশ উদ্ধার

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধিঃ বটিয়াঘাটা থানা পুলিশ মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে উপজেলার বিরাট খেওয়াঘাট সংলগ্ন এলাকার কাজীবাছা নদীর চর এলাকা থেকে এক ব্যক্তির গলিত লাশ উদ্ধার করেছে।তার বয়স আনুমানিক( ৪২)বছর। লাশটির শরীরে একটি স্যান্ডো গেঞ্জি পরিহিত অবস্হায় ছিলো।তবে তার শরীরে আর কোন বস্ত্র পরিহিত ছিলো না। এমনকি সনাক্ত করার কোন উপায় নেই। স্হানীয় এলাকাবাসী লাশটি ভাসমান অবস্হায় দেখতে পেয়ে ৯৯৯-এ ফোন করলে থানার ওসি মোঃ রবিউল কবীর এর নির্দেশে এসআই প্রকাশ বাছাড় সহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত লাশটি সনাক্ত করা যায়নি।থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়েছে।

দেশের উন্নয়নে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নাই: এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা বাংলাদেশ পেতাম না। আমাদের এমপি হওয়ার সৌভাগ্য হতো না। দেশের মানুষের কাছে বঙ্গবন্ধু যেমন চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন, সদ্য প্রয়াত ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীকে স্মরণে রাখবে। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পর বাংলাদেশের এ অকৃতিম বন্ধু শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাকে পিতৃ¯েœহ দিয়ে আগলে রেখে ছিলেন। তিনি বলেন, সুখী সমৃদ্ধিশালী বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু। বঙ্গবন্ধুর এ স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে শেখ হাসিনার সরকার। এমপি বাবু বলেন, বিএনপি-জামায়াত একাধিকবার ক্ষমতায় আসলেও তারা দেশের উন্নয়ন না করে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তন করেছেন। দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিকে এগিয়ে নিতে শেখ হাসিনার কোন বিকল্প নাই উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ একমাত্র দেশের উন্নয়ন ও মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছে। মহামারী করোনা গোটা বিশ্ব যেখানে স্থবির হয়ে পড়েছে এর মধ্যেও আমাদের প্রবৃদ্ধি অনেক ভালো অবস্থানে রয়েছে। এলাকার উন্নয়ন প্রসঙ্গে এমপি বাবু বলেন, পাইকগাছা পৌরসভা আওয়ামী লীগের অবদান। পৌরসভাকে মডেল করলে প্রায় ১শ কোটি টাকার দীর্ঘ মেয়াদী প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া আধুনিক পাইকগাছা-কয়রা গড়তে নেওয়া হয়েছে মহাপরিকল্পনা। যার অংশ হিসেবে প্রধান সড়ক প্রশস্ত ও সরলীকরণ কল্পে সাড়ে ৩শ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। বেড়িবাঁধ অত্র এলাকার দুঃখ উল্লেখ করে তিনি বলেন, টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে হাজার হাজার কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এ সব প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে এলাকার মানুষের আর কোন দুঃখ কষ্ট থাকবে না। এলাকার কিছু মানুষ অপরাজনীতি করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এরা মানুষের কল্যাণ চায় না। এলাকার উন্নয়নকে টেনে ধরে রাখতে চায়। এদের থেকে সবাইকে সতর্ক থাকার পাশাপাশি এলাকার সামগ্রীক উন্নয়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন আওয়ামী লীগের এ এমপি। তিনি মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পাইকগাছা পৌরসভা মাঠে ৭ কোটি টাকা ব্যয় সম্বলিত পৌর ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন, প্রায় ১শ কোটি টাকার উপকূলীয় শহর পরিবেশগত অবকাঠামো প্রকল্পের উদ্বোধন ও পৌরসভার বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী, উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) লিপিকা ঢালী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার ইকবাল মন্টু, ওসি এজাজ শফী, পৌরসভা বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু, সদস্য সচিব মোস্তফা কামাল জাহাঙ্গীর, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিয়াবুদ্দীন ফিরোজ বুলু, ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মন্ডল, গাজী জুনায়েদুর রহমান, কেএম আরিফুজ্জামান তুহিন, আওয়ামী লীগ নেতা সমীরণ সাধু, আনন্দ মোহন বিশ্বাস, অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, মিহির বরণ মন্ডল, ঠিকাদার জিয়াউল হাসান টিটু, কাউন্সিলর এসএম তৈয়েবুর রহমান ও প্রভাষক ময়নুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, প্রাক্তন অধ্যক্ষ রমেন্দ্রনাথ সরকার, জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবু, জেলা যুবলীগ নেতা শামীম সরকার, যুবলীগ নেতা শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত, এমএম আজিজুল হাকিম, জেলা ছাত্রলীগ নেতা পার্থপ্রতীম চক্রবর্তী, মাসুদুর রহমান মানিক ও ছাত্রলীগ নেতা রায়হান পারভেজ রনি প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঢালি খেলা ও জারি গান অনুষ্ঠিত হয়।

ফুলতলায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে রূপালী ব্যাংকের বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালন

 ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সরকার ঘোষিত বৃক্ষরোপন কর্মসূচির অংশ হিসেবে রূপালী ব্যাংক ফুলতলা শাখার উদ্যোগে সোমবার বিকালে গাড়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে ফলজ চারা রোপন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রূপালী ব্যাংক শাখা ব্যবস্থাপক মানবেন্দ্র নারায়ন সরকার, প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার বিশ্বাস, ব্যাংক কর্মকর্তা দেবব্রত অধিকারী, অজিত কুন্ডু, স্কুল পরিচালনা কমিটির সদস্য মুজিবার রহমান মোল্যা, উত্তম অধিকারী ও মহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

ফুলতলায় বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ বিএনপির ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ফুলতলা উপজেলা শাখার উদ্যোগে বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপির যুগ্ন আহবায়বক মোঃ সেলিম সরদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ ইকবাল হোসেন । বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবুল বাশার বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন বাবুর পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিএনপি নেতা মনির হাসান টিটো, শেখ আঃ সালাম, ওয়াহিদুজ্জামান নান্না, গাজী ফজলুর রহমান, মোল্যা নজরুল ইসলাম, জিএম শফিকুল ইসলাম, মোঃ ইদ্রিস মোল্যা, মোঃ আনোয়ার হোসেন, মাহফুজুর জমাদ্দার, মোঃ তুষার মোল্যা, আনিছুর রহমান রনি, মোঃ শরিফুল ইসলাম, আক্তারুজ্জামান কচি, মোঃ ইকবাল হোসেন খা, মোঃ আলামিন সানা, মোঃ আঃ হালিম, মোঃ রফিকুল ইসলাম, বেগ তুষার হোসেন প্রমুখ। পরে দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

ডুমুরিয়ায় ভূমিহীনদের জমি দখলের অভিযোগ

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি : ডুমুরিয়া উপজেলায় এক প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে ভূমিহীনদের বন্ধবোস্তকৃত জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভূক্তভোগী ভূমিহীনরা ৩১ আগস্ট খুলনা জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত অভিযোগ করেন।
অভিযোগে সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাহস ইউনিয়নের বাঁশতলা-দিধলিয়া ও মাগুরখালীর শিবনগর মৌজার ভরাটকৃত নদীর খাস জমি হিসাবে ওই এলাকার ভূমিহীনরা বন্দবোস্ত নিয়ে চাষাবাদ করে আসছে। সেখানে ধান, মাছ, ও শাক সব্জী চাষ করেই চলছে তাদের জীবিকা। কিন্তু চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এলাকার কিছু দালালের সহযোগীতায় খুলনার এক প্রভাবশালী মোস্তফা কামাল আলমগীর কতিপয় ভূমিহীনের নিকট থেকে জমি লিজ নেয়। পরবর্তীতে সে প্রভাব খাটিয়ে বাকী জমি গুলো দখল করার পায়তারা করছে। এ ব্যাপারে কৃষক আব্বাস মোড়ল বলেন, আমাদের কয়েক জনের নিকট থেকে কিছু জমি লীজ নিয়ে লবন পানি তুলে মাছ চাষ করছে। এবং আমাদের প্রায় ২০ একর জমি তারা দখলে নেয়। জমিতে পানি তুলার কারনে সেখানে পানিবন্ধী হয়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হযেছে। ফলে আমাদের জমিতে আমরা চাষাবাদ করতে পারছি না। তাদের কাছে অনুরোধ করতে গেলে উল্টে হুমকি ধামকি দিচ্ছে।
এ বিষয়ে ডুমুরিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) সজীব দাস জানান, কেউ কোন সরকারি সম্পত্তি জোর করে দখল করা এটা বে-আইনি। এ ধরনের কোন অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ডুমুরিয়ায় বিএনপি’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র ৪২তম প্রতিষ্ঠা উদযাপন উপলক্ষ্যে ডুমুরিয়া উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে আহবায়ক মোল্যা মোশাররফ হোসেন মফিজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাড. শফিকুল ইসলাম মনা। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলার সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন জেলার সহসভাপতি মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, মোল্যা খাইরুল ইসলাম, শেখ আবু হোসেন বাবু, নাজমুস সাকিব পিন্টু। উপজেলা বিএনপির ১ম যুগ্ম আহবায়ক শেখ সরোয়ার হোসেনের সঞ্চলনায় আরও বক্তৃতা করেন, ভাইস চেয়ারম্যান গাজী আব্দুল হালিম, খর্ণিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ দিদারুল হোসেন দিদার, হাফেজ আবুল বাশার, জাকির আলী, জাহিদ হোসেন শোভন, হাবিবুর রহমান হবি, অরুন কুমার গোলদার, মশিউর রহমান লিটন, শেখ ফরহাদ হোসেন, আমিনুর রহমান, মোল্যা মশিউর রহমান, আমিরুল ইসলাম হালদার, আহম্মদ আলী ফকির, আব্দুস সালাম মহালদার, শাহাদাৎ হোসেন, আব্দুস ছালাম শেখ, হেমায়েদ রশিদ খান, মাস্টার আইয়ুব আলী, আব্দুর রব আকুঞ্জি, মিজানুর রহমান, লিটন গোলদার, এ্যাড. মমিনুর রহমান নয়ন, জিয়াউর রহমান খান জীবন, শেখ মাহাবুবুর রহমান, শেখ দেলোয়ার হোসেন, আব্দুস ছালঅম আল আজাদ, শফিকুল ইসলাম খান, সরদার দৌলত হোসেন, মোনায়েম হোনে গাজী, জি এম আমান উল্লাহ, শহিদুজ্জামান শহিদ, হাফেজ মতিয়ার রহমান, পাভেজ গাজী, ডাঃ জিয়াউর রহমান, রোজিনা পারভীন, আজিজ মোড়ল, আইয়ুব মাহমুদ, সেলিম হালদার, এ্যাড. মশিউর রহমান, িেফকুল ইসলাম, আরিফ শেখ, মহি উদ্দিন কবিরাজ, সোহরাফ হোসেন, হাফিজ বাগাতি, হাবিবুর রহমান হবি, রুহুল আমিন, আব্দুল গফুর, জাহাতাপ গাজী, আলতাপ মাহমুদ, সেলিম হোসেন, আনিচুর রহমান এনামুল হোসেন প্রমুখ।

দেবহাটায় ভূয়া এনজিওর কর্মী আটক

দেবহাটা (সাতক্ষীরা) : দেবহাটায় কিস্তি আদায়কালে এনজিওর কর্মী সেজে প্রতারনা করাকালে ১ ভূয়া কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ঐ এনজিওটির এরিয়া ম্যানেজার বাদী হয়ে দেবহাটা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার বাদী হয়েছেন টিএমএসএস’র কালিগঞ্জ অঞ্চলের এরিয়া ম্যানেজার রাসেল হাসান। জানা গেছে, খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার গিলাবাড়ি গ্রামের মন্তাজ আলী গাজির পুত্র মিজানুর রহমান (৩০) টিএমএসএস’র সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ শাখায় মাঠকর্মী হিসেবে কর্মরত থাকা অবস্থায় অত্র প্রতিষ্ঠানের ২ লক্ষ ৩৯ হাজার ২ শত ৫২ টাকা আত্নসাৎ করে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠানের পক্ষে তার সাথে বিভিন্নভাবে যোগাযোগ করেও তার কোন হদিস পাওয়া যায়নি। কিন্তু উক্ত মিজানুর রহমান গোপনে মোবাইলের মাধ্যমে টিএমএসএস’র গ্রাহকদের সাথে যোগাযোগ রেখে বিভিন্ন লোক দিয়ে কিস্তি আদায় করতো। এক পর্যায়ে বিষয়টি জানাজানি হলে টিএমএসএস’র কর্মকর্তারা গ্রাহকদের সতর্ক করে দেয়। এর ধারাবাহিকতায় অর্থ আত্নসাৎকারী প্রতারক মিজানুর রহমান তার নিকটতম আত্নীয় একই গ্রামের নওশের আলী গাজীর পুত্র আইয়ুব আলী (৩৬)কে দিয়ে প্রতিষ্ঠানের নকল পাশ বই তৈরী করে কিস্তির টাকা আদায় করতে থাকে। এক পর্যায়ে সোমবার সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার দেবহাটা জগন্নাথপুর গ্রামের মৃত আফাজ উদ্দীনের পুত্র সাইফুল ইসলামের বাড়িতে কিস্তির টাকা আদায় করতে গেলে সন্দেহ হয় তার। তখন সাইফুল তাকে বসিয়ে রেখে গোপনে টিএমএসএস’র কালিগঞ্জ অঞ্চলের এরিয়া ম্যানেজার রাসেল হাসানকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি জানায়। রাসেল হাসানসহ টিএমএসএস’র অন্যান্য কর্মকর্তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে চলে আসে। তারা ঘটনাস্থলে এসে বিষয়টি শুনে বুঝে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রতারক নওশের আলী গাজীর পুত্র আইয়ুব আলীকে দেবহাটা থানায় নিয়ে আসে। পরে টিএমএসএস’র কালিগঞ্জ অঞ্চলের এরিয়া ম্যানেজার রাসেল হাসান বাদী হয়ে প্রতারক আইয়ুব আলী ও মিজানুর রহমানকে আসামী করে দেবহাটা থানায় ৪১৯ ও ৪২০ ধারায় ০১/০৯/২০২০ ইং তারিখে ০১ নং মামলা দায়ের করেন। এব্যাপারে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীকে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

মোল্লাহাটে মাদক বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ মোল্লাহাটে যুব সমাজের উদ্যোগে মাদক বিরোধী এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকেলে উপজেলার কচুড়িয়া খা মার্কেটের সামানে মোল্লাহাট-চিতলমারী সড়কে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ মোঃ আবুল খায়ের এর সভাপতিত্বে উক্ত সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য দেন-মোল্লাহাট থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক শাহিনুর রহমান, প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের সাধারণ সম্পাদক এম এম মফিজুর রহমান, উপ-পুলিশ পরিদর্শক ঠাকুর দাস, বীর-মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস ছাত্তার খান, প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের সহ-সভাপতি শরীফ মাসুদুল করিম, স্থানীয় মুরব্বি-গাউস শরীফ, শেখ মাহাতাব উজ্জামান, মুকিত শেখ, ইমাম মোঃ সোলাইমান শেখ, সাংবাদিক মোঃ কাফি হাসান বশার, লিয়াকত শেখ, আঃ কাদের শেখ, ওদুদ মীর, শিক্ষার্থী শিহাব শরীফ ও মিলন শেখসহ স্থানীয় সর্বস্তরের ব্যক্তিবর্গ। উক্ত সভায় উপস্থিত সকলে যে,কোন প্রকারে সকল প্রকার মাদকমুক্ত সমাজ গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়। এলকার কোন ব্যক্তি মাদক ক্রয়-বিক্রয় বা সেবন করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনের অঙ্গিকারও ব্যক্ত করেন।
অনুষ্ঠানের সার্বিক সহযোগিতা করেন উপ-পুলিশ পরিদর্শক (ছুটিতে বাড়ি) মোঃ নুরুল ইসলাম এবং সঞ্চালনা করেন শিক্ষার্থী হানিফ।

মধুমতি নদীতে নিখোঁজ পুলিশ পুত্রের লাশ উদ্বার

নড়াইল প্রতিনিধি : অবশেষে মধুমতি নদীতে নিখোঁজের চার দিন পর ছয়মাস বয়সী শিশু আনাসের লাশ উদ্বার হয়েছে। মঙ্গলবার (১সেপ্টেম্বর) সাড়ে ১১টার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার চরভাটপাড়া এলাকার মধুমতি নদীতে আনাসের লাশ ভেসে উঠে। পরে এলাকা বাসী নদীতে লাশ ভাসতে দেখে পুলিশ ও পরিবারের লোকজনদের খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২৮ আগষ্ট) নড়াইলের লোহাগড়ার কালনা ঘাট এলাকায় লোহাগড়ার চাচই গ্রামের আজাদ মোল্যার ছেলে পুলিশ কনস্টবল আবু মুসা রেজওয়ান (২৮) তার স্ত্রী সাদিয়া বেগম ও ছয়মাস বয়সী শিশুপুত্র আনাস সহ পরিবারের কয়েকজন সদস্য মিলে ট্রলার যোগে মধুমতি নদীতে ঘুড়তে বের হয়।
সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে তারা ঘাটের দিকে ফিরছিলেন এ সময় কালনা ঘাটে নির্মানাধীন সেতুর কাছে পৌছালে ট্রলারের ইঞ্জিন নষ্ট হয়ে পড়ে। তখন মাঝ নদীতে ট্রলারটি নির্মাণাধীন সেতুর পিলারের সাথে ধাক্কা লাগে। এ সময় পুলিশ কনস্টবল আবু মুসা রেজওয়ান ও তার শিশু পুত্র আনাস নদীতে পড়ে নিখোঁজ হয়।
নিখোঁজের ২দিন পর গত রবিবার (৩০ আগষ্ট) পুলিশ সদস্য আবু মুসা রেজওয়ানের লাশ মহিসাপাড়া ঘাট এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।
লোহাগড়া থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান নিখোঁজ শিশু পুত্র আনাসের লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ।