মোল্লাহাটে কারেন্ট জাল বিরোধী ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত

মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ মোল্লাহাটের গাড়ফা বাজারে/হাটে নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বিরোধী/বিক্রি বন্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা সদরের গাড়ফা বাজারে/হাটে ওই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অনিন্দ্য মন্ডল। এসময় উক্ত বাজারের কয়েক অসাধূ বিক্রেতার কাছ থেকে হাতেনাতে প্রায় দুই হাজার মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ ও ধ্বংশ করা হয়। এছাড়া নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বিক্রয়’র দায়ে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হয়।
সহকারী কমিশনার (ভূমি) অনিন্দ্য মন্ডল বলেন-এই জালে ছোট-বড় সকল প্রকারের মাছ সহজে আটকে যায়, ফলে মাছের স্বাভাবিক প্রজাতি প্রজনন মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়।
জালে শিকার হওয়া মাছের শরীরে ক্ষত হয়, যা দ্রুত পচনশীল এবং খাবারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এটা পলিথিনের মতই পরিবেশে পচনশীল নয়।

প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের মাসিক সভা ও দোয়া

মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের মাসিক সমন্বয় সভা ও সাংবাদিক মিয়া পারভেজ আলমের চাচা আব্দুর রশিদ (টাবু) মিয়ার সুস্থ্যতা কামনা এবং করোনা মহামারীসহ সকল বালা-মুসিবত হতে সকলের মুক্তি কামনায় বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহাকরী রেজিস্ট্রার ও ভাইস চ্যান্সেলরের একান্ত সচিব আমিনুল ইসলাম পলাশ’র মা মরহুমা বেলা জামান এর রুহের শান্তি কামনা করা হয়।
প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের সহ-সভাপতি শরীফ মাসুদুল করিমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম এম মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সামাজিক দুরত্ব সহকারে শুক্রবার সকাল ১০ টায় প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
ওই সভায় বক্তব্যদেন প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য মোর্শেদা আকতার রত্না ও মিয়া পারভেজ আলম, সদস্য মোঃ গোলাম রসুল, মোঃ মনিরুজ্জামান মোল্লা, এস,এম, মিজানুর রহমান, মোঃ ইমলাক শেখ, মোঃ মোস্তফা মীর ও কাফি হাসান বাশার প্রমূখ। উক্ত দোয়া পরিচালনা করেন উপজেলা মসজিদের ইমাম মানজুরুল হক।

মোংলায় মাদ্রাসার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে চলতো শিবির নেতার কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : মোংলায় আলহাজ্ব কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব’টি ব্যক্তিগত ট্রেনিং সেন্টারের কাজে নিয়ম বর্হিভূত ব্যবহার ও ওই মাদ্রাসার গোপন তথ্য চুরির অভিযোগ উঠেছে অপর আরেক মাদ্রাসার শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ওই শিক্ষকের যত্রতত্র ব্যবহারের কারণেই ইতিমধ্যে ওই ল্যাবের দুইটি ল্যাপটপ নষ্ট হয়ে গেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির পক্ষ থেকে থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। ছাত্র শিবিরের সাবেক নেতা ও ইসলামী আদর্শ একাডেমি’র আইসিটি বিভাগের শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলামের এমন বিতর্কিত কর্মকান্ডের কারণে আলহাজ্ব কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার শিক্ষকদের মধ্যে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।
অভিযোগ ও মাদ্রাসা সূত্রে জানা যায়, করোনার কারণে সারা দেশে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয় সরকার। তখনই মাদ্রসা বন্ধের সুযোগ কাজে লাগায় একাডেমি মাদ্রাসার শিক্ষক ও ইমেজভিশন কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টার মালিক সাবেক শিবির নেতা মোঃ রফিকুল ইসলাম। আলহাজ্ব কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার এক শিক্ষককে ম্যানেজ করেই শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব কক্ষের চাবি নিয়ে নিয়মিত ব্যক্তিগত কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টারের ক্লাস নিতে থাকেন রফিকুল ইসলাম।
আলহাজ্ব কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ জানান, কম্পিউটারে অনভিজ্ঞ বহিরাগত লোকদের হাতে ল্যাপটপ তুলে দিয়ে নিয়মিত ট্রেনিং সেন্টারের ক্লাস নেয়ার কারণে তাদের ল্যাব সেন্টারের দুইটি ল্যাপটপ নষ্ট হয়ে গেছে। একই সাথে মাদ্রাসার কিছু গোপন তথ্য চুরি করেছে রফিকুল ইসলাম। দীর্ঘ কয়েক মাস তাদের মাদ্রাসার ডিজিটাল ল্যাব সেন্টারটি ব্যবহার করার বিষয়টি তারা জানতেন না। সরকারী ছুটি থাকার সুযোগে কতিপয় শিক্ষককে ম্যানেজ করে রফিকুল ইসলাম তাদের মাদ্রাসার ল্যাবটি ব্যবহারের কারণে অনেকটা ক্ষতিতে পড়েছে আলহাজ্ব কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসা।
মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ আরো জানান, ৩১ আগষ্ট বিষয়টি মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের নজরে আসে। তারা বিষয়টি ম্যানেজিং কমিটির নজরে আনলে কমিটির সভাপতি ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব’র কক্ষে তালা লাগিয়ে দেন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পরবর্তী সরকারী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত কক্ষটি বন্ধ থাকবে এমন সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেন। একই সাথে নিয়ম বর্হিভূত কক্ষটি ব্যবহারের কারণ জানতে ইমেজ ভিশন ট্রেনিং সেন্টারের মালিক ও ইসলামী আদর্শ একাডেমির আইসিটি শিক্ষক রফিকুল ইসলামকে তলব করেন কোরবান আলী মাদ্রাসা কমিটি। ম্যানেজিং কমিটির ডাকে রফিকুল ইসলাম সাড়া না দেয়ায় বাধ্য হয়ে কমিটির পক্ষ থেকে একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন মোংলা থানায়।
ব্যক্তিগত ট্রেনিং সেন্টারের কাজে কেন কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব ব্যবহার করেছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে রফিকুল ইসলাম বলেন, তিনি ব্যক্তিগত ট্রেনিং সেন্টারের কাজে ব্যবহার করেননি। আলহাজ্ব কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার প্রধান মাওলানা গোলাম মোস্তফা এবং আইসিটি শিক্ষক মইন উদ্দিন বিষয়টি জানতেন।
তবে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মইন উদ্দিন আলহাজ্ব কোরবান আলী মাদ্রাসার আরবি শিক্ষক। আর শাহিনুর ইসলাম ও হাসান মাহমুদ নামে দুইজন আইসিটি শিক্ষক রয়েছে ওই মাদ্রসায়।
নাম প্রকাশে না করা শর্তে কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার এক শিক্ষক বলেন, মুলত কম্পিউটার ট্রেনিং সেন্টারের নামে রফিকুল ইসলাম সার্টিফিকেট বিক্রির ব্যবসা করেন। পাশাপাশি জামায়াত শিবিেিরর রাজনীতির গোপনীয় কর্মকান্ড পরিচালনা করেন। ছাত্র শিবিরের রাজনীতির সাথে এক সময় জড়িত ছিলেন তিনি। বর্তমানে সরকারী দলের ক্ষমতাবান নেতার আর্শিবাদ নিয়ে রফিকুল ইসলাম এমন নানা বিতর্কিত কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। ওই ক্ষমতার দাপটে রফিকুল ইসলাম গত ২ সেপ্টেম্বর কোরবান আলী আলিম মাদ্রাসার শিক্ষক তৌহিদুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে তাকে হুমকি ধামকিও দেন। এবং তাদের ডিজিটাল ল্যাব ব্যবহারের কথা কেউকে না বলার জন্যও ভীতি দেখান।
এ বিষয়ে মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, তিনি একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। তবে অভিযোগকারীকে এ বিষয়টি শিক্ষা অফিসারসহ যথাযথ শিক্ষা বোর্ডকেও অবহিত করার জন্যেও বলা হয়েছে।

আটোয়ারীতে অসহায় দু:স্থদের মাঝে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা

মনোজ রায় হিরু, আটোয়ারী (পঞ্চগড়) : পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ২২২ পদাতিক ব্রিগেড এর অন্তর্গত ২৯ তম বাংলাদেশ ইনফেন্ট্রি রেজিমেন্ট হতে আগত একটি টহল দল চলমান করোনা প্রতিকুলতায় উপজেলার অর্ধ শতাধিক অসহায় দু:স্থ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা করেছেন। ক্যাপ্টেন মো: মাহামুদুর রহমানের নেতৃত্বে শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের দারখোড় আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দাদের এবং আটোয়ারী কেন্দ্রীয় দুর্গা মন্দিরের নির্মান শ্রমীকদের মাঝে এ খাদ্য সহায়তা করা হয়। এসময় সার্জেন্ট মোসলেম, আটোয়ারী কেন্দ্রীয় দুর্গা মন্দিরের সভাপতি সংবাদিক মনোজ রায় হিরু, সাধারন সম্পাদক গনেশ চন্দ্র ঘোষ ভানু, আটোয়ারী প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক এ রায়হান চৌধুরী রকি প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
ক্যাপ্টেন মো: মাহামুদুর রহমান জানান, অপারেশন কোভিড শীল্ড এর একটি নিয়মিত কার্যক্রম হিসেবে খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। ভবিষ্যতেও এ ধরনের কাজ পরিচালনা করা হবে মর্মে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য, দেশের এ ক্রান্তি লগ্নে আমাদের গর্বিত সেনা সদস্যরা তাঁদের খাবার বাঁচিয়ে এলাকার দু:স্থ মানুষের মাঝে চাল, ডাল ও আটা সমন্বিত খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করে আমাদের অঞ্চলের অসহায় মানুষদের পাশে দাড়িয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা আলোকিত কার্যক্রমে বৃদ্ধাশ্রমে খাদ্য ও চিকিৎসা সহায়তা এবং বৃক্ষরোপন

খুলনা ব্যুরো : মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষ্যে সারা দেশব্যাপি বৃদ্ধাশুমে “বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা” নামে আলোকিত কার্যক্রম চালু করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চার শিক্ষার্থী।”স্বপ্ন দেখার সুযোগ করে দিয়েছো মোদের অধিকার-আমরা নবীন নিশ্চয় হব গর্বিত উত্তরাধিকার” স্লোগানে এই কার্যক্রমের অধীনে দেশের বৃদ্ধাশ্রমগুলোতে প্রবীনদের খাদ্য সামগ্রী ও চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির বাস্তবায়ন করছে।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের অপূর্ব চক্রবর্তী, দীপম সাহা, জাদিদ ইমতিয়াজ আহমেদ এবং মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অর্ক সাহার উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা কার্যক্রমের প্রধান উপদেষ্টা পরামর্শক ও তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে রয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান।

শুক্রবার খুলনার দৌলতপুরের মহেশ্বরপাশায় অবস্থিত মুক্তিযোদ্ধা আবুবক্কর মুন্সি বৃদ্ধাশ্রমে খাদ্য সহায়তা, চিকিৎসা সেবা প্রদান ও বৃক্ষরোপন করে। এখানে বৃদ্ধাশ্রমের অর্ধশতাধিক  অসহায়কে খাদ্য সামগ্রী, চিকিৎসাসেবা প্রদান করেন। পরে তারা বৃদ্ধাশ্রম ও আশপাশে ফলজ,বনজ ও ঔষধী গাছ রোপন করেন।বৃদ্ধাশ্রমের সম্প্রসারক মোঃ জাহিদুর রহমান জুয়েল মুন্সির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আব্দুস সালাম মাস্টার। এ সময় মুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কর মুন্সি বৃদ্ধাশ্রমের প্রধান উপদেষ্টা মোঃ কাজী সেলিম মাস্টার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খুলনা জেলা কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনোয়ার হোসেন মুন্না, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কুয়েত মৈত্রী হল ছাত্র সংসদের সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক মাকসুদা গাজী আইরিন, ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার মো: শাব্বির আহমাদ, ডাক্তার মো: মেহেদী হাসান সৈকত এবং খুলনা সিটি মেডিকেলের শিক্ষার্থী শৈশব সাহা প্রমুখ।ইতিমধ্যেই বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা কার্যক্রমের আওতায় গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর হাইশুর বৃদ্ধাশ্রম, ফরিদপুর, রাজবাড়ী এবং সাতক্ষীরায় বৃদ্ধাশ্রমে বসবাসকারীদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী, চিকিৎসাসেবা প্রদান এবং বৃক্ষরোপন করেছেন।

এই কার্যক্রমের উদ্যোক্তারা জানান, মুজিব জন্মশতবর্ষ পালন এই করোনা সংকটকালে কার্যক্রমের মাধ্যমে যে রাঙিয়ে তোলা যায়, তারই ফলশ্রুতিতে বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা কার্যক্রম। এই করোনাকালে করোনা সন্দেহে এক বৃদ্ধ মাকে তার ছেলেরা জঙ্গলে ফেলে যায়।এছাড়া এরকম অনেক বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে।তখন থেকেই প্রবীণদের জন্য কিছু করার চিন্তা আসে। আমরা এই বৃদ্ধাশ্রম গুলোকে ভবিষ্যতে আনন্দ আশ্রমে এ পরিণত করতে চাই। আমরা দেশে আর কোন বৃদ্ধাশ্রম চাই না। প্রবীণরা যেন শেষ জীবনটা তাদের পরিবারের সাথেই কাটান। বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবার লক্ষ্য হচ্ছে বৃদ্ধাশ্রম গুলোর প্রবীণরা এসে আনন্দের সঙ্গে এবং নিজেদের মতো করে সময় কাটাতে পারেন। সলের সহযোগীতায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে এই বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা কার্যক্রম চালিয়ে নিতে চাই।

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সালাম মাস্টারসহ স্থানীয়রা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চার তরুনের এই উদ্যোগকে মানবসেবার অনুকরনীয় হিসেবে স্বাগত জানিয়ে সহযোগীতার আশ্বাস দিয়েছেন।

বাগেরহাটে ৪৫ কেজি গাঁজা ও ট্রাকসহ গ্রেফতার ৩

খুলনা ব্যুরো : খুলনা-বাগেরহাট মহাসড়কের ষাট গম্বুজ মসজিদ এলাকা থেকে ৪৫ কেজি গাঁজা, একটি ট্রাক ও দুই মাদক ব্যবসায়ীসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬ খুলনার সদস্যরা।শুক্রবার দুপুরে র‌্যাব-৬ খুলনার সদর দফতরে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়। র‌্যাব-৬ এর কমান্ডিং অফিসার লেফটেন্যান্ট কর্নেল রওশনুল ফিরোজ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৬ সদস্যরা ভোর রাতে খুলনা-বাগেরহাট মহাসড়কের ষাট গম্বুজ মসজিদ এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় আটা ও সুজীবাহী একটি ট্রাক(ঢাকা মেট্টো-ট ১৩-৬৮৬১) সন্দেহ হলে সেটি থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। ট্রাকটিতে তল্লাশি করে আটা ও সুজীর বস্তার ভিতরে বিশেষ কায়দায় তিনটি প্লাস্টিকের বস্তায় রাখা ৪৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এ সময় ট্রাক চালক সাতক্ষীরার মুকুল মোড়ল, ট্রাকে থাকা গাঁজা ব্যবসায়ী মো: বিক্রম শেখ ওরফে বিপ্লব ও আব্দুল কাদের শেখকে গ্রেফতার করা হয়। গাঁজাসহ ট্রাক ও গ্রেফতারকৃত তিনজন খুলনায় র‌্যাব-৬ হেফাজতে রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বাগেরহাট সদর থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সাতবাড়িয়া কৃষকলীগের আহবায়ক কমিটির পরিচিতি সভা 

রাজীব চৌধুরী,কেশবপুর : যশোর জেলার কেশবপুর উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন শাখা কৃষকলীগের আহবায়ক কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয় সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের পুরাতন ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের  সভা কক্ষে ০৩ রা সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার। উক্ত পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন যশোর জেলা কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন কেশবপুর উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি সৈয়দ নাহিদ হাসান,সাধারণ সম্পাদক রমেশ দত্ত,সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুদ্দীন দফাদার।পরিচিতি সভায় সভাপতিত্ব করেন সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক জি.এম. হোসেন এবং পরিচিতি সভাটি সঞ্চালনা করেন আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আলাউদ্দীন মোড়ল। পরিচিতি সভায় আরও উপস্হিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ মশিয়ার রহমান দফাদার,ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ খলিলুর রহমান,আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুর রশিদ, ইউপি সদস্য মাষ্টার কামরুজ্জামান টিটো সহ প্রমুখ।গত ২৭ শে ফেব্রুয়ারি২০২০খ্রিস্টাব্দে মোঃ নওশের আলীকে আহবায়ক ও মোঃ সিরাজুল ইসলাম,মোঃহাফিজুর রহমান,মনিরুজ্জামান,জাহিদুল ইসলাম কে যুগ্ন আহবায়ক করে  মোট ২২ জন সদস্য বিশিষ্ট সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন শাখা কৃষকলীগের আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করা হয়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারনে আহবায়ক কমিটির পরিচিতি সভাটি বিলম্বে অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপি’র রাজনীতিতে নীতি নেই: চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির 

বিপ্লব দে, চট্টগ্রাম: বিএনপির রাজনীতিতে নীতি নেই বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চট্টগ্রামের সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। জন্ম থেকেই দলটি এ দেশে জঙ্গিবাদ,সন্ত্রাস ও হত্যার রাজনীতি কায়েম করে আসছে। তাদের রাজনীতি মিথ্যাচার আর বিভ্রান্তির রাজনীতি; বলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে ১৪ নং লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ আয়োজিত ২১ শে আগষ্টের জঙ্গিবাদী গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের ১৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে এমন মন্তব্য করেন তিনি। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী।

আ জ ম নাছির বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য একের পর এক ১৯বার অপচেষ্টা চালানো হয়েছে। ২১ আগষ্টও আওয়ামী লীগ আয়োজিত সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে নেত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে চালানো হয় গ্রেনেড হামলা। আল্লাহর অশেষ রহমতে নেত্রীর ট্রাকে ছুঁড়ে মারা গ্রেনেডটি বিস্ফোরিত না হওয়ায় তিনি বেঁচে যান।

তিনি বলেন, বিএনপি স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির সাথে আঁতাত করে এ দেশে পাকিস্তানি চেতনা কায়েম করার অপচেষ্টা চালিয়ে  এসেছে। ক্ষমতায় থাকাকালীন  মেজর জিয়াউর রহমান জাতির জনকের আত্মস্বীকৃত খুনিদেরকে রাষ্ট্র যন্ত্রে স্যাটেল করেছেন। তাদেরকে বিভিন্নভাবে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছে। বিদেশে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বানিয়েছেন। এদেশে যাতে জাতির জনকের হত্যার কোন বিচার না হয় সে জন্য পাস করেছিলেন ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ। তার স্ত্রী খালেদা জিয়াও ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুকে যাতে জাতির হৃদয়ে প্রশ্নবিদ্ধ করে রাখা যায়, বঙ্গবন্ধুর মত এক মহীরুহ কিংবদন্তীকে নিয়ে জাতি যাতে বিভ্রান্তির বেড়াজালে বন্দি থাকে সেজন্য সকল ধরণের অপপ্রচার, প্রপাগান্ডা চালিয়ে গেছেন।

লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব সিদ্দিক আহমেদের সভাপত্বিতে ও সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুমের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় খুলশী থানা আওয়ামী লীগ যুগ্ম আহবায়ক মমিনুল হক মোমিন, লালখান বাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ কাদের, আওয়ামী লীগ নেতা এস এম ইব্রাহিম ,শাহজাহান কোম্পানি, রফিক সওদাগর,সমীর কান্তি দে,মোঃ শাহজাহান,ওবায়দুল কায়েস, এড. আব্দুল্লাহ হাসান পিকু, আলী আহমেদ, মোঃআলী, শফিউল আলম বাবু,জাহেদুল কাদের নিপু,শাহাজান লিটন , আনিসুর রহমান চৌধুরী, এনামুল হক বকুল,সোহেল খান, আনোয়ার,কামরুল,আলী আক্কাস,জাহেদুল ইসলাম কাজল,মোঃ ফরিদউদ্দিন রানা, তুহিন, মহানগর যুবলীগ নেতা আজমল হোসেন হিরু, মহানগর যুবলীগ নেতা তৌহিদ আজিজ ,সুমন দেবনাথ,ওয়াহিদুল আলম শিমুল,আফতাব আহমেদ,সজিব আহমেদ,গোলাম রসুল নিশান, মোশাররফ হোসেন লিটন, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা জাফর আহমেদ রাহাত, মাইনুদ্দিন হানিফ , ইউসুফ খান,মামুন,মোরশেদ ,আব্দুল্লাহ আল মামুন, হাসান সোহাগ,ছাত্রলীগ নেতা জাহিদুর রহমান জাহেদ,ফয়সাল আহমেদ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জেবিন আসাদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সভায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ,মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

আন্ডারওয়ার্ল্ড গডফাদার শাহ আলমের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম নগরীর একাধিক থানায় জিডি

বিপ্লব দে, চট্টগ্রাম: জামাত-বিএনপির প্রধান অর্থ যোগানদাতা, হাওয়া ভবন সিন্ডিকেটের প্রধান সদস্য, জঙ্গি মদদদাতা, আন্ডার ওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণকারী যুবদল নেতা “শাহ আলমের” বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম নগরীর একাধিক থানায় ছাত্রলীগ নেতারাদের সাধারণ ডায়েরি ।

বুধ ও বৃহস্পতিবার নগরীর একাধিক থানায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করেছেন নগর ছাত্রলীগের একাধিক নেতৃবৃন্দ।

চট্টগ্রাম নগরীর ঐতিহ্যবাহী মহসিন কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন পলাশ প্রতিবেদককে জানান দীর্ঘ ৩৪ বছর পর ২০১৫ সালে ১৬ ডিসেম্বর আমরা চট্টগ্রামের জামাত-শিবিরের দুর্গ হিসেবে খ্যাত মহসিন কলেজ ও চট্টগ্রাম কলেজে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পতাকা তুলতে সক্ষম হয়েছি। তারই ধারাবাহিকতায় স্বাধীনতাবিরোধী জামাত- বিএনপির জঙ্গি তৎপরতা, দুর্নীতি-সন্ত্রাস-চাঁদাবাজিসহ সকল অপকর্মের সাথে যুক্তদের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরা ঐক্যবদ্ধ। বর্তমানে সরকারদলীয় কিছু সুবিধাভোগী ও গোপন আঁতাতকারী নেতাদের সহযোগিতায় সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে আবারো মাথাচাড়া দিয়ে উঠছেন বিএনপি-জামাত জোট সরকারের আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণকারী গডফাদাররা।

তিনি আরো জানান ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের মামলা পরিচালনাকারী, জামাত- বিএনপির প্রধান অর্থ যোগানদাতা তারেক জিয়ার সহযোগী, হাওয়া ভবন সিন্ডিকেট সদস্য, বাস – রেল – লঞ্চে পেট্রলবোমা হামলা করে মানুষ হত্যার প্রধান পরিকল্পনাকারী চট্টগ্রাম নগরীর পূর্ব মাদারবাড়ীর ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী “শাহ আলম” এর অপকর্মের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম নগরীর ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সোচ্চার হলে তিনি ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের হত্যা ও অলিগলিতে লাশ ফেলার হুমকি দিচ্ছেন, চট্টগ্রাম নগরীর ছাত্রলীগ নেতা বর্তমানে চরম নিরাপত্তাহীনতা ও প্রাণনাশের শঙ্কায় রয়েছি, ভয়ংকর সন্ত্রাসী শাহ আলম ও তার লালিত জঙ্গি বাহিনীর ভয়ে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে হুমকি প্রাপ্ত ছাত্রলীগ নেতারা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছি।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের একাধিক নেতাকর্মী প্রতিবেদককে জানান শাহ আলম বাংলাদেশ রেলওয়ের বিএনপি-জামাতপন্থি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ম্যানেজ করে রেলে সকল প্রকার সরবরাহ-টেন্ডার-লিজ- নিয়োগ বাণিজ্য-মাদক-চোরাচালান ও চাঁদাবাজি করে কোটি কোটি টাকা বিদেশে পাচার করছেন। এই অপকর্মের মূল হোতাকে গ্রেপ্তারপূর্বক শাস্তির দাবি জানান আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট।