আত্তীকৃত সরকারি মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির খুলনা জেলা শাখা গঠিত

খুলনা অফিসঃ বাংলাদেশ আত্তীকৃত সরকারি মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির খুলনা জেলা শাখা গঠন করা হয়েছে। সেনহাটী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেখ মো. ফরহাদ হোসেনকে সভাপতি ও সরকারি দৌলতপুর মুহসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আশীষ কুমার সরকারকে সাধারণ সম্পাদক করে ৪১সদস্য বিশিষ্ট একটি কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকালে সরকারি দৌলতপুর মুহসিন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সিনিয়র সহসভাপতি পদে তপন কুমার বিশ্বাস, সহসভাপতি পদে শহিদুল ইসলাম, মো. মাহমুদ আলম, মো. জাকির হোসেন, বিকাশ চন্দ্র মন্ডল, বিশ্বানাথ ভট্টাচার্য, মো. শফিকুল ইসলাম ও লস্কও সোহেল রানা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে মো. আছাদুজ্জামান সরদার ও চন্দন দত্ত, সহসম্পাদক পদে মো. সারাফাত হোসেন, সালমা পারভীন, দেবাশীষ বিশ্বাস ও যোগেন্দ্রনাথ ঘরামী, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে এস,এম কবিরুল ইসলাম মহারাজ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মো. হাসানুজ্জামান, প্রচার সম্পাদক পদে মো. নাজমুল ইসলাম, সহ প্রচার সম্পাদক পদে ফিরোজা খানম, তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক পদে রীতেশ চন্দ্র বিশ্বাস, কোষাধ্যক্ষ পদে মো. মাছুম বিল্লাহ, দপ্তর সম্পাদক পদে মো. সাজ্জাদ হোসেন, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পদে প্রভাস চন্দ্র বাগচী, সহ সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পদে আশীষ মন্ডল, সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মৃদুল মন্ডল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পদে জেবুন্নেছা ঝর্ণা, সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক পদে আফরোজা রহমান, ক্রীড়া সম্পাদক পদে মুন্সী ইনামুল কবীর, সহ ক্রীড়া সম্পাদক পদে মো. মোরশেদুল আলম, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক পদে জিয়াউর রহমান ও অর্ধেন্দু শেখর মন্ডলকে নির্বাচিত করা হয়। এছাড়া নয়জন সহকারি শিক্ষককে নির্বাহী সদস্য হিসাবে অনুর্ভুক্ত করা হয়েছে।

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভায় চাকুরির আড়ালে জঙ্গী তৎপরতার অর্থ লেনদেন

রিটন দে লিটন,চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী বিশ্বজিত দাশ ও হিসাব রক্ষক এএইচএম আলমগীরের বিরুদ্ধে নামে বেনামে ব্যাংক একাউন্টে ও নগদে কোটি কোটি টাকার অস্বাভাবিক লেনদেনের মাধ্যমে জঙ্গী তৎপরতা চালানোর অভিযোগ উঠেছে।

সরকারী চাকরির পদবী হিসেবে  একজন সহকারী প্রকৌশলী হিসেবে ৭ম গ্রেডভুক্ত এবং অন্যজন হিসাব রক্ষক পদবীর ১২তম গ্রেডভুক্ত।  তবে তাদের ব্যক্তিগত ও যৌথ নামে ক্ষেত্র বিশেষে বে-নামের ব্যাংক একাউন্টে চলছে কোটি কোটি টাকার লেনদেন। শুধু তাই নয় সরকারি চাকরি বিধি পরিপন্থীর বাইরে গিয়ে সাতকানিয়া পৌরসভার বাইরে চট্টগ্রাম ও পার্শ্ববর্তী জেলা সমূহে তাদের কোটি কোটি টাকার ৮টি ছোট-বড় প্রকল্পের কাজ চলছে।

এদিকে পৌরসভার এ দুই কর্মকর্তা-কর্মচারীর ব্যাংক একাউন্টে কোটি কোটি টাকার লেনদেনের চাঞ্চল্যকর খবরে সচেতনমহল শুধু হতবাক ও বিস্মিত হয়েছেন। এ লেনদেনের খবর উপজেলায় ছড়িয়ে পড়লে সাতকানিয়ার সর্বমহলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি এখন পুরো সাতকানিয়ায় টক অব দি টাউনে পরিনত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) বলছেন-পৌর প্রশাসনের দুর্বল মনিটরিংয়ের কারনে এসব দুর্নীতি হয়েছে।

জানা যায়, নকশা কারক হিসেবে লামা পৌরসভায় চাকুরি জীবন শুরু করেন সাতকানিয়া পৌরসভার বর্তমান সহকারি প্রকৌশলী বিশ্বজিত দাশ। অন্যদিকে সাতকানিয়া পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত হিসাব রক্ষক পদে চাকুরি করছেন এএইচএম আলমগীর।  চাকুরিস্থল দীর্ঘদিন এক স্থানে হওয়ার সুবাদে উভয়েই গড়ে তুলেছেন একটি সিন্ডিকেট। উক্ত সিন্ডিকেটের জঙ্গী তৎপরতার অর্থ লেনদেনের অভিযোগ এর পাশাপাশি সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করে সাতকানিয়া পৌরসভা ভিত্তিক ঠিকাদারী ও যাবতীয় ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে শুরু করেছিলেন যৌথ ব্যবসার ধারাপাত। বিশ্বজিত দাশ ও এএইচএম আলমগীরের এনসিসি ব্যাংক কেরানীহাট শাখায় যৌথ একাউন্ট এ (নং-০০৫৮০৩২০০০১২৯০) ২০১৮ সালের ২৯ জানুয়ারী থেকে ২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ মাসে লেনদেন হয়েছে ৩ কোটি ২৮ লাখ ৯৪ হাজার ৮১৭ টাকা। এনসিসি ব্যাংকের একই শাখায় আলমগীরের ব্যক্তিগত একাউন্ট এ (নং-০০৫৮০৩১০০০৯৫২৪) ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারী থেকে চলতি বছরের ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জমা হয় ৪ কোটি ৪৯ লাখ ২০ হাজার ৪৮৫ টাকা। অন্যদিকে এ সময়ে উত্তরা ব্যাংক লোহাগাড়ার শাখায় বিশ্বজিত দাশের মা শোভা রানী দাশের নামে ‘শোভা এন্টারপ্রাইজ’ নামের একাউন্টে কোটি কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। এছাড়া কেরানীহাট ও লোহাগাড়ায় তাদের ব্যক্তিগত ও ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নামেও রয়েছে একাধিক একাউন্ট। সেখানেও অস্বাভাবিক লেনদেনের ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

অপরদিকে, বিশ্বজিত ও আলমগীরের পরিচালনায় চলমান ৮ প্রকল্পগুলো হলো-সাতকানিয়া সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় (নতুন ভবন), মডেল মসজিদ বান্দরবান বালাঘাটা, সাতকানিয়া পৌরসভা ২নং ওয়ার্ডে আরসিসি সড়ক, কক্সবাজার পৌরসভার আরসিসি ড্রেন, সাতকানিয়া পৌরসভার কাশিমবাড়ি পুকুর রিটেইনিং ওয়াল, সাতকানিয়া পৌরসভার কাশিমবাড়ি বদ্দাপাড়া আরসিসি সড়ক ৫নং ওয়ার্ড, সাতকানিয়া পৌরসভার মধ্যম ছিটুয়া পাড়া আমিন এসবি বাড়ি আরসিসি সড়ক ৫নং ওয়ার্ড এবং স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)’র অধীনে লোহাগাড়া ব্রীকফিল্ড সড়ক।

অস্বাভাবিক অর্থ লেনদেনের বিষয়ে সাতকানিয়া পৌরসভা চাকুরিরত এক কর্মচারী নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রতিবেদককে জানান অভিযুক্তদের সাথ জামাতের একাধিক নেতার সাথে সখ্যতা রয়েছে। তিনি আরো জানান বিভিন্ন সময় লোকজন এসে তাদেরকে প্যাকেট দিয়ে যায় এবং তাদের কাছ থেকে প্যাকেট নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে সহকারি প্রকৌশলী বিশ্বজিত দাশের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। অন্যদিকে হিসাব রক্ষক এএইচএম আলমগীরের মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করার পরও তিনি ফোন রিসিভ করে নাই।

এ বিষয়ে সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের প্রতিবেদককে জানান আমি ঘটনাটি জানার পর তাদের শোকজ করেছি এবং তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের নিকট লিখিত আবেদন করেছি।

এ ব্যাপারে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি এড. আকতার কবির চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, জবাবদিহিতার সংস্কৃতি চালু না থাকায় সরকারি কর্মকর্তা- কর্মচারীরা বেপরোয়া হয়ে গেছে। যারা দুর্নীতিতে জড়িত তাদের উর্ধ্বতনদের দুর্বল মনিটরিংয়ের কারণে এসব দুর্নীতি হচ্ছে। অভিযুক্তদের সাথে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা না হলে সরকারি কর্মকর্তারা রক্ষক হয়ে ভক্ষকের ভূমিকা পালন করবে।

কেশবপুরে পৌর আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত

রাজীব চৌধুরী, কেশবপুরঃ যশোরের কেশবপুরে পৌর আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল  অনুষ্ঠিত হয় ২৯ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিঃমঙ্গলবার কেশবপুরের আবু শরাফ সাদেক অডিটোরিয়ামে।ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলের উদ্ভোধন করেন কেশবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এস এম রুহুল আমিন। ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল দুই পর্বের অধিবেশনের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়। প্রথম পর্বের অধিবেশন শুরু হয় জাতীয় পতাকা ও আওয়ামীলীগের দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে।ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক এ্যাড. মিলন মিত্রের সভাপতিত্বে ও কার্তিক  চন্দ্র সাহার সঞ্চালনায়  প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন যশোর-৬ কেশবপুরের সংসদ সদস্য ও যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব শাহীন চাকলাদার।প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কেশবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা। সন্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি আব্দুল মজিদ, যশোর জেলা আ’লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ও বেনাপোল পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম লিটন।বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম, যশোর পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মাহমুদ হাসান বিপু।আরও বক্তব্য রাখেন কেশবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি এইচ এম আমির হোসেন,কেশবপুরের পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল,যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী।দ্বিতীয় পর্বের অধিবেশনে কেশবপুর উপজেলা  আওয়ামীলীগের সভাপতি এস এম রুহুল আমিন পৌর আওয়ামীলীগের পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে। উপস্হিত পৌর আওয়ামীলীগের নেতা কর্মী ও সমর্থকদের কন্ঠ ভোটের মধ্য দিয়ে মেয়র রফিকুল ইসলামকে পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কার্ত্তিক চন্দ্র সাহাকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।

মোংলায় মাস্ক পরিধান বাধ্যতামুলক করতে পুলিশের অভিযান

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : চলমান করোনা পরিস্থিতিতে ঘরের বাহিরে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামুলক করতে মোংলা পৌর শহরে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে শহরের চৌধুরীর মোড়, তাজমহল রোড, শেখ আ: হাই সড়ক ও তালুকদার আব্দুল খালেক সড়কে অভিযান চালায় পুলিশ সদস্যরা। এ সময় মুখে মাস্ক ব্যবহার না করার দায়ে পথচারী ও দোকানীদের একত্রিত করা হয় শহরের চৌধুরীর মোড়ে। পরে সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে মাস্ক ব্যবহার না করার অপরাধে ৩২ জনকে জনপ্রতি ৫শ টাকা করে অর্থদন্ড দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি জরিমানা দিতে ব্যর্থ হওয়া ব্যক্তিদেরকে ১৫ দিনের সাজা দেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার কমলেশ মজুমদার। এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশী, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী, ওসি (তদন্ত) তুহিন মন্ডল উপস্থিত ছিলেন। মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, মাস্ক পরিধান না করে রাস্তার বের হওয়া প্রত্যেক ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। করোনা সংক্রমণ থেকে নিজে ও অপরকে বাঁচতে হলে অবশ্যই মাস্ক বাধ্যতামুলক ব্যবহার করতে হবে। এজন্য পুলিশের পক্ষ থেকে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে ও জানান তিনি।

পাইকগাছায় যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

আসাদুল ইসলাম, পাইকগাছা : পাইকগাছা উপজেলা পরিষদের উপ নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আনোয়ার ইকবাল মন্টু’র নৌকা প্রতিককে বিজয়ী করতে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ পাইকগাছা উপজেলা যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির বিশেষ বর্ধিত সভা বুধবার সকালে দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পাইকগাছা যুবলীগের আহবায়ক শেখ আনিসুর রহমান মুক্ত এর সভাপতিত্বে ও যুবলীগ নেতা জগদিশ রায়ের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আনোয়ার ইকবাল মন্টু, বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুল হাসান টিপু, সাবেক সদস্য সচিব রশীদুজ্জামান মোড়ল,আ’লীগ নেতা আঃ রাজ্জাক মলোঙ্গী, আঃ মান্নান গাজী, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, জেলা যুবলীগ নেতা জসিমউদ্দিন বাবু, জেলা ছাত্রলীগেরর সাবেক সভাপতি শেখ মোঃ আবু হানিফ, এস এম রেজাউ হক, তৃপ্তি রঞ্জন সেন,যুবলীগ নেতা শহিদ হোসে বাবুল, আঃ সাত্তার, শেখ জিয়াদুল ইসলাম জিয়া, শেখ মাসুদুর রহমান, অহেদুজ্জামান, বাবুলাল বিশ্বাস, আঃ রাজ্জাক রাজু, আতাউর রহমান, তরিকুল ইসলাম, নাজির আহম্মেদ,নুরুল ইসলাম,রমজান আলী, মিজানুর রহমান, প্রনব মন্ডল,রাম চন্দ্র টিকাদার,মানবেন্দ্র মন্ডল, অঞ্জন মন্ডল, আকরামুল ইসলাম, আবু হানিফ সোহেল, প্রশনজিত ঢালী, দিপঙ্কর মন্ডল, শিমুল গাজী, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রায়হান পারভেজ রনি, রাসেল, রহিম প্রমুখ।

চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পৃথক মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন। আটককৃতরা হচ্ছে মো: আতিকউল্লাহ(২০), মোছা: রুবি আক্তার (৩৫)ও নেজামউদ্দিন (৩০)। ৩০ সেপ্টেম্বর দিন ব্যাপী চট্টগ্রামে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করেন।
চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সূত্র মতে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণঅধিদপ্তর(ডি.এন.সি.) চট্টগ্রাম মেট্রো: উপঅঞ্চল,চট্টগ্রামএরউপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান এরসার্বিকতত্ত্বাবধানেএবং সহকারী পরিচালক মো. এমদাদুল ইসলাম মিঠুন এর সক্রিয় সহযোগিতায় ডবল মুরিংসার্কেল পরিদর্শক লোকাশীষ চাকমা এর নেতৃত্বে গঠিত রেইডিং টিম এরপ্রাপ্ত গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ৩০ সেপ্টেম্বর সকালে চট্টগ্রামরে কোতয়ালী থানাধীন কদমতলী মোড় এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মাদক ব্যবসায়ী কবির আহম্মেদের পুত্র মো: আতিক উল্লাহকে ১ হাজার ৯শ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতারকরা হয়। গ্রফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইন,২০১৮ মোতাবেক পরিদর্শক লোকাশীষ চাকমা বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায়একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন।
অপরদিকে
ডবলমুরিং সার্কেলের উপ-পরিদর্শক মো: আবদুল মতিন মিঞা এর নেতৃত্বে প্রাপ্ত গোপন তথ্যের ভিত্তিতে সকালে মাদক বিরোধী অভিযানে কোতোয়ালী থানাধীন নতুন স্টেশন রোডএলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী মো: জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী মোছা: রুবি আক্তার কাছ থেকে ১ হাজার ৮শ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার করা হয়। গ্রফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইন,২০১৮ মোতাবেক উপ-পরিদর্শক মো: আবদুল মতিন মিঞা বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায়একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। এছাড়া কোতোয়ালী সার্কেলের সহকারী উপ-পরিদর্শক মো: লুৎফর রহমানএর নেতৃত্বে গঠিত রেইডিং টিম এর প্রাপ্ত গোপন তথ্যের মাদক ব্যবসায়ী বদিউল আলমের পুত্র নেজামউদ্দিন কাছ থেকে ১ হাজার ৩শ পসি ইয়াবা সহগ্রফেতার করা হয়।

বটিয়াঘাটায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদযাপন

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি :”শেখ হাসিনার বারতা, নারী-পুরুষ সমতা ” আমরা সবাই সোচ্চার, বিশ্ব হবে সমতার ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে বটিয়াঘাটা উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে এবং নারী উন্নয়ন ফোরামের সহযোগিতায় আজ বুধবার বেলা ১১ টায় অধিদপ্তরের কার্যালয়ে জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান চঞ্চলা মন্ডলের সভাপতিত্বে ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাসি রানী রায়ের স্বাগত বক্তৃতার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পত্নী সারাফ আনিকা হক। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রতাপ ঘোষ,সমবায় কর্মকর্তা জান্নাতুন্নেছা বেগম, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মৌসুমি আক্তার, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা কনক গনপতি,পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন কর্মকর্তা শামীমা খাতুন, তথ্য সহকারী যুঁথী দেবনাথ ও ইরানী, সহকারী শিক্ষিকা মল্লিকা মল্লিক, সহকারী শিক্ষিকা বিনীতা রায়, শিক্ষার্থী শ্রীজা ঘোষ, প্রজ্ঞা মন্ডল সহ অন্যান্য শিক্ষার্থীবৃন্দ।

ডুমুরিয়ায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি : “আমরা সবাই সোচ্ছার-বিশ্ব হবে সমতার”এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ডুমুরিয়ায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস-’২০ পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা শিশু বিষয়ক অধিদপ্তরের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও র‌্যালীর আয়োজন করা হয়। বুধবার সকালে উপজেলার শহীদ জোবায়েদ আলী মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ শাহনাজ বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন খুলনা জেলা পরিষদ সদস্য শোভা রানী হালদার, উপজেলা পল্লী দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা প্রতাপ চন্দ্র দাস, সমবায় কর্তকর্তা সেলিম আকতার, মহিলা ও শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা রীনা মজুমদার, পরিসংখ্যান কর্মকর্তা বিমল চন্দ্র সরকার, আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মিশু দে, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এসএম কামরুজ্জামান প্রমুখ। সভার পূর্বে একটি র‌্যালী উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর প্রদক্ষিণ করে।

রিফাত শরীফ হত্যা মামলা: মিন্নিসহ ৬ আসামির মৃত্যুদণ্ড, ৪জন খালাস

বরগুনা : বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির রায় ঘোষণ করেছে আদালত। মিন্নিসহ ৬ আসামির মৃত্যুদণ্ড এবং ৪জনকে খালাস করে দিয়েছে আদালত।  বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় আজ বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রায় ঘোষণা করা হয়।

রিফাতের স্ত্রী মিন্নি ছাড়া মামলার অন্য আসামিরা হলেন রিফাত ফরাজী, আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজোয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয়, হাসান, মুসা ওরফে মুসা বন্ড, রাফিউল ইসলাম রাব্বি, সাগর ও কামরুল ইসলাম সায়মুন।

মামলার ১০ আসামির মধ্যে রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জামিনে রয়েছেন।  আরেক আসামি মুসা পলাতক। বাকি আসামিরা কারাগারে।

এদিকে, রায়কে ঘিরে পুরো আদালত প্রাঙ্গণে জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। চাঞ্চল্যকর এ মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনের বিচারিক কার্যক্রম বরগুনার শিশু আদালতে চলমান।

২০১৯ সালের ২৬শে জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাত শরীফকে।  কিশোর গ্যাং বন্ড বাহিনীর এই হত্যাকাণ্ড সারা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছিল।

সিটিজি ক্রাইম টিভির রিপোর্টার আফরোনাজ পান্না ও ক্যামেরাম্যান মোহাম্মদ লিটনকে বহিষ্কার করেছেন কর্তৃপক্ষ

চট্টগ্রাম ব্যুরো: সিটিজি ক্রাইম টিভির রিপোর্টার আফরোনাজ পান্না ও ক্যামেরাম্যান মোহাম্মদ লিটনকে সিটিজি ক্রাইম টিভি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সিটিজি ক্রাইম টিভির রিপোর্টার আফরোনাজ পান্না ও ক্যামেরাম্যান মোহাম্মদ লিটন পারস্পরিক যোগসাজসে ও অবৈধ উদ্দেশ্যে চাঁদাবাজি, ধান্দা ও সিটিজি ক্রাইম টিভির সুনাম ক্ষুন্ন হয় এমন অসাধু কাজে লিপ্ত থাকার কারণে সিটিজি ক্রাইম টিভি থেকে তাদেরকে বরখাস্ত করা হয়েছে। সিটিজি ক্রাইম টিভির চেয়ারম্যান আজগর আলী মানিক বলেন, সিটিজি ক্রাইম টিভির লোগো, কার্ড কিংবা পরিচয় বহন করে যদি অসাধুভাবে কোনো অপকর্ম করে। তবে এর জন্য সিটিজি ক্রাইম টিভি দায়ভার নেবে না। সিটিজি ক্রাইম টিভির চেয়ারম্যান আজগর আলী মানিক স্বাক্ষরিত বহিস্কার নোটিশে জানানো হয়েছে, আফরোনাজ পান্না ও তার স্বামী লিটনকে স্থায়ীভাবে বহিস্কার করা হয়েছে। তারা দুজন সিটিজি ক্রাইম নিউজ ও সিটিজি ক্রাইম টিভির লোগো ব্যবহার করে তাদের আইডিতে আমাদের লোগো নকল করে পেইজ ব্যবহার করে প্রতারণার দায়ে এবং আমাদের আইডিগুলো হ্যাক করার কারণে তাদের দুজনকে স্থায়ীভাবে বহিস্কার ঘোষণা করা হলো। তারা এই দুজন কোথাও আমাদের লোগো বা আমাদের নাম ব্যবহার করলে পুলিশকে ধরিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।’’(আদেশক্রমে সিটিজি ক্রাইম টিভির চেয়ারম্যান আজগর আলী মানিক)