দাকোপে শ্রমিক লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

আজগর হোসেন ছাব্বিরঃ ব্যাপক উৎসহ উদ্দিপনার মধ্যে দিয়ে দাকোপে জাতীয় শ্রমিক লীগের ৫১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে।  সোমবার বিকাল ৪ টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যলয়ের সামনে উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি গোবিন্দ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অমরেশ ঢালীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন দাকোপ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আবুল হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল কাদের, ইউপি চেয়ারম্যান পঞ্চানন মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ বি এম রুহুল আমীন, চালনা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ শফিকুল ইসলাম আক্কেল, পৌর মেয়র সনত কুমার বিশ্বাস, আওয়ামী লীগনেতা অধ্যাপক দুলাল রায়, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজা আকতার, জেলা পরিষদ সদস্য কে এম কবীর হোসেন। বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগনেতা শেখ রফিকুল ইসলাম,রবার্ট জীবন্ত নাথ, জ্যোতিশংকর রায়, এস এম গফুর হোসেন, রবীন্দ্র নাথ সরদার, অর্ধেন্দু মন্ডল, নাসিমা বেগম, ইউনুচ আলী জোয়াদ্দার, যুবলীগনেতা রতস কুমার মন্ডল,আরাফাত আজাদ, আজগর হোসেন বাপ্পি, শ্রমিক লীগের মহিউদ্দিন শিকদার, জয়প্রকাশ রায়, অনন্ত মন্ডল, তৈয়বুর রহমান শেখ,পলাশ মন্ডল, রাম প্রসাদ মন্ডল,শিবপদ বৈরাগী। সভা শেষে কেক কেটে জাতীয় শ্রমিক লীগের ৫১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়।

পাইকগাছায় শ্রমিকলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

পাইকগাছা প্রতিনিধি  : পাইকগাছায় জাতীয় শ্রমিকলীগের ৫১তম প্রতিষ্ঠতা বার্ষিকী পালিত হয়েছে।  সোমবার সকালে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে বাসস্টান্ড জিরোপয়েন্টে সংগঠনের কার্যালয়ে উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি শাহজান কবিরের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আনোয়ার ইকবাল মন্টু।

উপস্থিত ছিলেন উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ জাহিদুল ইসলাম, পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি শেখ হারুন অর রশীদ হিরু, সাধারণ সম্পাদক জীবন কিশোর রায়, সহ-সভাপতি মাহফুজুর রহমান পলাশ, শ্রশিক লীগ নেতা শেখ মিথুন মধু, বাবলু, ছাত্রলীগ নেতা রায়হান পারভেজ রনি, সোরভ গাইন, শ্রমিকলীগ নেতা শেখ শাহনুজ্জামান সানু, জি এম কামরুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, দিপঙ্কার মল্লিক, কামরুল ইসলাম আরাফাত হোসেন শ্বপ্নিল, প্রমুখ।

পাইকগাছায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে জরিমানা

মোঃ আসাদুল ইসলাম, পাইকগাছা :  পাইকগাছায় কপোতাক্ষ নদ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে মোঃ মনির উদ্দিন নামে এক বালু ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার  রাতে পাইকগাছা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মুহাম্মদ আরাফাতুল আলম এ অর্থদণ্ডোর আদেশ দেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ আরাফাতুল আলম বলেন জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, খুলনা জনাব মোহাম্মদ হেলাল হোসেন পিএএ মহোদয়ের নির্দেশনায় খুলনা জেলায় অবৈধ বালু উত্তোলন, অবৈধ ইট ভাটা পরিচালনা ইত্যাদি পরিবেশ বিরোধী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাইকগাছা জনাব এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে পাইকগাছায় অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। তার অংশ হিসেবে আজ হরিঢালি ইউনিয়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে মোঃ মনির উদ্দিন কে অবৈধ বালু উত্তোলনের দায়ে ১ লক্ষ টাকা অর্থদন্ড প্রদান করি। জনস্বার্থে, দেশের স্বার্থে এই অভিযান অব্যহত থাকবে।

ডুমুরিয়ায় ব্র্যাকের মানববন্ধন

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি : ডুমুরিয়ায় এনজিও সংস্থা ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসুচীর সহায়তায় গুটুদিয়া পল্লী সমাজের আয়োজনে মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১২টায় গুটুদিয়া পরিষদের সামনে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন কর্মসুচী সিনিয়র জেলা ব্যবস্থাপক নয়ন ঘোষ, পিওপিটি মিঠুন দত্ত, এফও (সিইপি) মিঠু রানী বিশ্বাস, পল্লী সমাজের সভা প্রধান অর্চনা ফৌজদার, মুনমুন বসাক, শৈব্যা বিশ্বাস, আসমা বেগম, শোভা রানী মন্ডল, সেলিনা বেগম, যুথিকা জোয়ার্দার, নাজমা বেগম, চন্দনা রানীসহ অন্যান্য সদস্যরা। সিলেটের এমসি কলেজে ধর্ষণ, নোয়াখালিতে গৃহবধুকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন, সাভারে নীলা হত্যাসহ সারাদেশে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, হত্যা ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং বিচারের দাবি জানানো হয়।

পাইকগাছায় তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

পাইকগাছা প্রতিনিধি : পাইকগাছা থানার পল্লীতে তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার। থানায় মামলা হলেও গ্রেপ্তার হয়নি ধর্ষণকারী। উল্টো ভিকটিমের পরিবারকে মামলা তুলে নেয়ার জন্যে ভয়ভীতি ও জীবন নাশের হুমকি দিচ্ছে আসামি পক্ষের লোকজন। গত ৫ অক্টোবর ২০২০ তারিখ সোমবার সরেজমিন ধর্ষণকারী ভিকটিমের এলাকায় গিয়ে জানা যায়, পাইকগাছা উপজেলার দেলুটি ইউনিয়নের গেওয়াবুনিয়া গ্রামের দিনমজুর খেটে খাওয়া চায়ের দোকানদার তুষার মন্ডল এর তৃতীয় শ্রেনীতে পড়ুয়া কন্যা (৯)। সে প্রতিদিনের ন্যায় প্রতিবেশী প্রশান্ত বাওয়ালীর বাড়িতে খেলছিল। খেলা অবস্থায় ঘটনারদিন ২৭ জুন ২০২০ তারিখ বিকালে সুকৌশলে মিষ্টি খাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে একই এলাকার গৌতম বৈরাগীর নারীলোভী লম্পট ও মাদকসেবনকারী পুত্র শিমুল বৈরাগী তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। লম্পট শিমুলের পিতা মাতা বাড়িতে না থাকার সুযোগে তুষারের শিশু কন্যাকে ঘরের ভিতরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর বিষয়টি কাউকে না বলার জন্য তাকে ভয়ভীতি ও মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে শিশুটি বাড়ি এসে পেটের ব্যাথায় ছটপট করতে থাকে। তখন তার মা অঞ্জলী মন্ডল তার মেয়ের কাছে কি হয়েছে জানতে চায়। তখন মেয়েটি তার মা বাবাকে ঘটনাটি বিস্তারিত বলে। পরে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় ভিকটিম কে নিয়ে তার বাবা মা পাইকগাছা থানায় যায়। এ ব্যাপারে অঞ্জলী মন্ডল বাদী হয়ে শিমুল বৈরাগীকে আসামি করে অভিযোগ দায়ের করে। ওসি অভিযোগটি আমলে নিয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রেকর্ড করে। যার নং- ৩১, তারিখ- ১৯/০৭/২০২০ইং। পুলিশ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি থেকে ভিকটিমের মেডিকেল পরিক্ষা করেছে বলে জানান তার পরিবার। উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত লম্পট শিমুলের দৃষ্টান্তমূলক শান্তি চায় ভিকটিমের পরিবার ও এলাকাবাসী। এলাকার ব্যবসায়ী তরুণ মন্ডল বলেন, জঘন্যতম এই ঘটনার বিচার চাই। স্থানীয় ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রবিন্দ্রনাথ মন্ডল বলেন, ঘটনাটি সত্য, আমি এই ঘটনার বিচার চাই। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই অনীষ মন্ডল জানান, বাদী পক্ষ হুমকির বিষয় থানাকে অবহিত করেনি। থানা থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ও দুর্গম এলাকা হওয়ায় আসামী গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না, তাই ঐ এলাকায় সোর্স লাগিয়ে আসামী গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

ডুমুরিয়ায় বিষপানে গৃহবধুর আত্মহত্যা

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি : ডুমুরিয়ার পল্লীতে স্বামীর ওপর অভিমানে কীটনাশক পান করে মীম আক্তার (১৬) নামের এক গৃহবধু মারা গেছে। থানা পুলিশ সোমবার সকালে তার মরদেহ উদ্ধার ও সুরোতহাল রির্পোট শেষে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, প্রায় সাত মাস পূর্বে উপজেলার ভান্ডারপাড়া ইউনিয়নের উলা মাঝেরপাড়া এলাকার আজিজ মোড়লের ছেলে মাজেদুল ইসলাম মোড়লের (২১) সাথে খুলনার বানরগাতি এলাকার মামুন শিকদারের মেয়ে মীম খাতুনের বিবাহ হয়। সেই থেকেই খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে তারা জড়িয়ে পড়তো অভিমানে। এমনি করে গত রোববার রাতে স্বামী মাজেদুলের বাড়ি ফিরতে দেরি হওয়ায় অভিমান করে মীম। এত রাত পর্যন্ত কই ছিলে এই নিয়েই চলে দু’জনের মধ্যে তর্কতর্কি। হঠাৎ মাজেদুল ঘরের বাহিরে গেলে এই সুযোগে কীটনাশক পান করে ছটফট করতে থাকে। পরে তাকে স্থানীয়রা ডুমুরিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত তিনটার দিকে ডাক্তার মৃত বলে ঘোষণা করে।
ডুমুরিয়া থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে গৃহবধু মীম অভিমানে আত্মহত্যা করেছে। আমরা তার লাশ উদ্ধার ও সুরোতহাল রির্পোট শেষে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছি এবং এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে যার নং-৫৩।

চট্টগ্রামে মাদকসহ আটক ১১

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পৃথক অভিযান চালিয়ে গাজা ও ইয়াবাসহ ১১ জনকে আটক করেছেন। এদের মধ্যে ৮ জনকে মাদক সেবনকারীকে ভ্রম্যমান আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়। এছাড়া আটককৃত মহিলা মাদক ব্যবসায়ী কুলসুমা বেগম(৫৩), মনোয়ারা বেগম (৩০) এবং সাইমন আক্তার (২৪)কে বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলী আহসান। গতকাল সোমবার (১২ অক্টোবর) চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করেন।
চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সূত্র মতে, ১২ অক্টোবর সকালে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মেট্রো কার্যালয়ের উপ পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামান এর সার্বিক তত্তাবধানে সহকারী পরিচালক মোঃ এমদাদুল হক এর সমন্বয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলী আহসান এর নেতৃত্বে চট্টগ্রাম মেট্রো কার্যালয়ের সকল সার্কেলর সমন্বয়ে মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৮ জন মাদক ব্যবসায়ী ও সেবন কারীকে গ্রেফতার করে। বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট আলী আহসান ধৃত আসামীদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও অর্থ দন্ড প্রদান করেন। আটককৃতদের কাছ থেকে এক কেজি ৬শ’ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে গভীর রাতে কোতোয়ালি সার্কেল পরিদর্শক মোঃ মোজাম্মেল হক ও বন্দর সার্কেল পরিদর্শক মোঃ সিরাজুল ইসলাম এর নেতৃত্বে বাকলিয়া থানাধীন মেরিন ড্রাইভ রোড, নতুন ব্রীজ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে মৃত নুর মোহাম্মদ এর স্ত্রী কুলসুমা বেগম কাছ থেকে ৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। পরিদর্শক মোঃ মোজম্মেল হক বাদী হয়ে বাকলিয়া থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। মোঃহোসেনের কন্যা মনোয়ারা বেগম এর ভেনেটি ব্যাগ তল্লাশি করে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে উপ পরিদর্শক মোঃ ফাহিম রাজু বাদী হয়ে বাকলিয়া থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে পরিদর্শক মোঃ সিরাজুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে মোঃ নাসির এর স্ত্রী সাইমন আক্তার এর ভ্যানেটি ব্যাগ তল্লাশি করে ২ হাজার ৮৭৫ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। ##