চট্টগ্রামের নিখোঁজ সংবাদিকের অজ্ঞান অবস্থায় খোঁজ মিলল সীতাকুণ্ডে

 চট্টগ্রাম ব্যুরো: নিখোঁজের চার দিন পর সীতাকুণ্ডের কুমিরা এলাকায় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে অজ্ঞান অবস্থায় খোঁজ মিললো চট্টগ্রামের নিখোঁজ সাংবাদিক গোলাম সরোয়ারের। 

রোববার রাত ৮টার দিকে সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর ও পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

দুজনেই জানিয়েছেন, সাংবাদিক সরোয়ারকে সীতাকুণ্ডের কুমিরায় অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যাওয়ার সংবাদে জেলা পুলিশ ও সিএমপি’র দুটি টিম কুমিরার হাজী পাড়া ব্রিজ ঘাটায় রওনা দিয়েছে। তাকে চট্টগ্রামে আনার পর বিস্তারিত বলা যাবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সাংবাদিক সরোয়ারকে কুমিরার হাজী পাড়া ব্রিজঘাটা এলাকায় অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পান তারা। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা হাসপাতালে নিয়েও যান তারা।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক জানিয়েছেন, বর্তমানে তিনি অসুস্থ আছেন। তার সাথে কথা বলা সম্ভব হচ্ছেনা। তার জ্ঞান ফেরার পর কথা বলে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সকালে নগরীর ব্যাটারি গলির বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিটিনিউজ বিডির সাংবাদিক গোলাম সরোয়ার। এ ব্যাপারে তার প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক জুবায়ের সিদ্দিকি কোতোয়ালি থানায় একটি জিডি করেন। নিখোঁজের দুদিন পর পরপর দুবার তাঁর মোবাইল নম্বর থেকে সহকর্মী জুবায়ের সিদ্দিকী ও কামরুল হুদার নম্বরে ফোন এলেও অবস্থান শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। সর্বশেষ আজ রোববার (১ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশ থেকে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা হাসপাতালে নিয়ে যায়। এরপরই খোঁজ মিলে সাংবাদিক গোলাম সারোয়ারের।

ই-অকশন যুগে প্রবেশ করলো চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস

চট্টগ্রাম ব্যুরো: ট্রেজারি চালান জালিয়াতি, সিপি জালিয়াতি রুখতেই মূলত ই পেমেন্ট এবং ই অকশন যুগে প্রবেশ করলো চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (মূসক নীতি) মো. মাসুদ সাদিক ।

গত মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে এই ‘ই অকশন’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। একই সাথে ই পেমেন্ট সম্পর্কিত সচেতনতামুলক প্রশিক্ষণ কার্যক্রমেরও উদ্বোধন করেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, ‘অতীতে ট্রেজারী চালান জালিয়াতির মাধ্যমে পণ্য খালাসের ঘটনা ঘটেছে। এখনো ভুয়া ওয়েবসাইট খুলে ক্লিয়ারেন্স পারমিট (সিপি) জালিয়াতির মাধ্যমে পণ্য চালান খালাসের অপচেষ্টা করে জালিয়াত চক্র। ই পেমেন্ট এবং ই অকশনের মাধ্যমে এসব জালিয়াতি বন্ধ হবে।’

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মাসুদ সাদিক আরো বলেন, ‘জালিয়াত চক্র সব সময় সক্রিয় থাকে। সরকারি ওয়েবসাইটের আদলে ভুয়া ওয়েবসাইট খুলে জাল সিপি (ক্লিয়ারেন্স পারমিট) ইস্যুর করে প্রতারক চক্রের পণ্য খালাসের অপচেষ্টা কাস্টমস কর্মকর্তাদের দক্ষতায় রুখে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের সফটওয়্যার এ্যসাইকুডা ওয়াল্ড সিস্টেমের হার্ডওয়্যার পরিবর্তনে টেন্ডার হয়ে গেছে উল্লেখ করে মাসুদ সাদিক বলেন, কাস্টম হাউসের বার্ষিক রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ৫০ হাজার কোটি টাকা। আদায় হয়েছে ৩৬ হাজার কোটি টাকা। সার্ভার যদি কাজ না করতো রাজস্ব আদায় হতো না। সমস্যা মোকাবেলা করে এগিয়ে যেতে হবে।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালনকালীন সময়ের কথা উল্লেখ করে মাসুদ সাদিক বলেন, ২০১২-১৫ পর্যন্ত আমি যখন কমিশনার ছিলাম তখন চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে প্রতিদিন ৪ হাজার বিল অব এন্ট্রি হতো। এখন ৭ হাজার অতিক্রম করে গেছে। কিন্তু আমাদের অফিসারদের বসার জায়গা, হার্ডওয়্যার সেভাবে বাড়েনি। জনবল বাড়ানোর চেয়ে আমরা অটোমেশনে জোর দিচ্ছি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের অতিরিক্ত কমিশনার ড. আবু নূর রাশেদ আহমেদ, যুগ্ম কমিশনার মো. তাফছির উদ্দিন ভূঞা, মুহাম্মদ মাহবুব হাসান, মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ, মোহাম্মদ বাপ্পী শাহরিয়ার, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি একেএম আকতার হোসেন, বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক আবদুল্লাহ জহির, বিজিএমইএর পরিচালক অঞ্জন শেখর দাশ, বাংলাদেশ ফ্রেইট ফরওয়ার্ডার্স অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক খায়রুল আলম সুজন, বিকেএমইএর শওকত ওসমান সহ সহ বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার ও বাণিজ্য সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বর্তমানে মানুষ নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের পাশাপাশি গাছ কিনে বাড়ি ফেরে : তথ্যমন্ত্রী

বটিয়াঘাটা প্রতনিধি : তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলেছে। বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করার পরেও দেশের অর্থনৈতিক অবস্হা চাঙ্গা রেখে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা ধরে রেখেছে। ১৯৮৩ সালে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শিতায় সারাদেশে কৃষকলীগের মাধ্যমে বনায়ন কর্মসূচি হাতে নিয়ে গোটা দেশে সবুজ বেষ্টনী তৈরী করে। মুজিব জন্ম শতবার্ষিকীতে সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে ১৯ লক্ষ ২০ হাজার বৃক্ষরোপনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।বর্তমানে মানুষ নিত্য প্রয়োজনীয় পন্যের পাশাপাশি গাছ কিনে বাড়ি ফেরে। তিনি গতকাল রবিবার বেলা ১১ টায় খুলনা জেলা সার্বিক তত্ত্বাবধানে বটিয়াঘাটা উপজেলা প্রশাসনের বাস্তবায়নে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে জেলা প্রসাশন,খলনা’র উদ্যোগে ১৯,২০,০০০ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি এর আওতায় বটিয়াঘাটা উপজেলায় প্রস্তাবিত বঙ্গবন্ধু বোটানিক্যাল গার্ডেনে ১,২০,০০০ বৃক্ষরোপণ এর মাধ্যমে মুজিব বর্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির সমাপ্তিকরণ অনুষ্ঠানে জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড.মুঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার ।সহকারী কমিশনার( ভূমি) মোঃ রাশেদুজ্জামান এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কনফারেন্সে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক বিরোধী দলীয় হুইপ আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশিদ, জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) জি,এম আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আশরাফুল আলম খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ নজরুল ইসলাম । আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ কামরুজ্জামান,উপ-প্রধান তথ্য কর্মকর্তা জাভেদ ইকবাল, অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই গাইন ও চঞ্চলা মন্ডল,থানার ওসি মোঃ রবিউল কবীর,কৃষি কর্মকর্তা মোঃ রবিউল ইসলাম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র মন্ডল, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোনায়েম খান,পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রসেনজিৎ প্রণয় মিশ্র,বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ আফজাল হোসেন,উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রতাপ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রজিৎ টিকাদার, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম হাসান ও জিএম মিলন গোলদার, আলীগনেতা মোশারেফ হোসেন মুসা,জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ ইমরান হোসেন ইমু, ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা কৃষ্ণপদ দাস ও জগন্নাথ ঘোষ, সাংবাদিক যথাক্রমে পরিতোষ রায়, বিপ্রদাস রায়, শাওন হাওলাদার, বুদ্ধদেব মন্ডল, আহসান কবীর, ইমরান হোসেন প্রমুখ ।পরে প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রীর পক্ষে হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ,জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ বৃক্ষরোপণ করেন এবং সকল অতিথিবৃন্দ পৃথক পৃথকভাবে বৃক্ষরোপন করেন।

দুবলার চরের রাশমেলায় শুধুমাত্র ধর্মীয় পুজার অনুষ্ঠান পালনের সিদ্ধান্ত

খুলনা অফিস : সুন্দরবনের দুবলার চরে শতবছরের ঐতিহ্যবাহী রাশমেলার উৎসব এ বছর বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধুমাত্র ধর্মীয় পুজা ও পূন্যস্নাণ অনুষ্ঠান পালনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।এক্ষেত্রে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিদ্ধান্ত মোতাবেক শুধুমাত্র সনাতন ধর্মাবলম্বীরা এবার রাশমেলা উপলক্ষ্যে সুন্দরবনের দুবলার চরের ধর্মীয় অনুষ্টানে যেতে পারবেন।রাশ পূর্নিমা উপলক্ষ্যে ২৪নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত দুবলার চরে পর্যটক ভ্রমন বন্ধ থাকবে। রবিবার দুপুরে খুলনার বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সুন্দরবনের দুবলার চরে রাশমেলা ও পূন্যস্নাণ উদযাপন উপলক্ষ্যে বিভাগীয় মতবিনিময় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন হাওলাদারের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় জুম প্রযুক্তিতে সংযুক্ত হন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি অফিসের পুলিশ সুপার তোফায়েল আহমেদ, খুলনার পুলিশ সুপার এসএম সফিউল্লাহ, খুলনার বন সংরক্ষক মো: মঈন উদ্দিন খান, সুন্দরবন র্পুব বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা মো: বেলায়েত হোসেন, পশ্চিম বিভাগের কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মহসীন, রাশমেলা উদযাপন জাতীয় কমিটির সভাপতি কামাল উদ্দিন আহমেদ, সাধারন সম্পাদক সোমনাথ দে, যুগ্মসম্পাদক প্রদীপ বসু সন্তু,কোষাধ্যক্ষ অরিন্দম দেবনাথ, পূজা পরিষদের সাধারন সম্পাদক প্রশান্ত কুমার কুন্ডু, যুগ্মসম্পাদক রতন কুমার দেবনাথ, সুন্দরবন ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশনের সভাপতি মঈন জমাদ্দার, সাধারন সম্পাদক নাজমুল আলম ডেভিড,সুন্দরবন বিভাগের সাতক্ষীরার এসিএফ এমএ.হাসান, রেঞ্জার মোকাম্মেল কবিরসহ পুলিশ, নৌবাহিনী, কোষ্টগার্ড, বিজিবি, র্যা ব, আনসার-ভিডিপি, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরার জেরা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার এবং খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরার সিভিল সার্জনবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, রাশমেলার পূজা ও পূন্যস্নাণে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা দুবলার চরে যেতে যেসব ট্রলার ও বোট ব্যবহার করবে সেখানে মুসলিম ও অন্যধর্মের লোকজান থাকলেও তাদেরকে বনবিভাগ অনুমোদন দিবেন। এছাড়া প্রতিবছর দুবরার চরের রাশমেলার পূজা ও পূন্যস্নাণে সুন্দরবনের আটটি রুট ব্যবহার করা হলেও এবার মাত্র ৬টি রুট ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া ১নভেম্বর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন ভ্রমন উন্মুক্ত করা হলেও রাশমেলার পূজার জন্য ২৪নভেম্বর থেকে ৩০নভেম্বর পর্যন্ত দুবলার চর এলাকায় দেশী-বিদেশী পর্যটকদের জন্য ভ্রমন নিষিদ্ধ থাকবে।

বটিয়াঘাটায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি : বটিয়াঘাটা উপজেলার সুখদাড়া এলাকায়( ১২) বছরের মাদ্রাসা পড়ূয়া এক নাবালিকাকে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক কর্তৃক চেতণানাষক ঔষুধ খাইয়ে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে।ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার বেলা পৌনে চারটার দিকে বাদিনীর বসতঘরে। এ ব্যাপারে থানায় গতকাল রবিবার ০১ নং মামলা রুজু হয়েছে। মামলার বিবরনে প্রকাশ, উপজেলার গঙ্গারামপুর এলাকার মৃতঃ বিনোদ শীলের পুত্র হোমিও হাতুড়ি চিকিৎসক সন্জয় শীল(৫০) এর কাছে মাঝেমধ্যে ভিকটিম ও তার মা চিকিৎসা নিতে যেতো। আসামিও মাঝেমধ্যে চিকিৎসা ভিকটিমের বাড়িতে যেতো। ঘটনার দিন ভিকটিমের বাড়ীতে ঢুকে তার মাকে ডাকাডাকি করে না পেয়ে ভিকটিম সাড়া দিলে আসামি ঘরের মধ্যে প্রবেশ করিয়া ভালো ঔষধ খাওয়ানোর কথা বলে চেতনানাশক ঔষধ খাওয়ায়। একপর্যায়ে অচেতন হয়ে পড়লে আসামি তাকে জোরপূর্বক যৌন কামনা চরিতার্থ করার মানষে ধর্ষন করে। পরবর্তীতে ভিকটিমের জ্ঞান ফিরে আসলে তার চিৎকারে পথচারীরা এগিয়ে আসলে আসামি দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ভিকটিমের মা বাদি হয়ে রবিবার ৯(১) ধারায় ১নং মামলা রুজু করেন।  তবে আসামি আটক হয়নি।

বটিয়াঘাটায় যৌন নিপিড়নের দায়ে আটক ২

বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি : বটিয়াঘাটার হাটবাটি এলাকায় যৌন নিপিড়নের এর দায়ে দুই ব্যক্তিকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বটিয়াঘাটা থােনা পুলিশ পুলিশ। আটক ব্যক্তিরা হলেন উপজেলার হাটবাটি গ্রামের নূর ইসলাম গাজীর পুত্র ওসমান গাজী (১৯) ও একই এলাকার আনোয়ার খানের পুত্র রমজান খান(২১)।ঘটনাটি ঘটেছে গত ৩০ অক্টোবর শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে হাটবাটীর গৌর জোয়ার্দারের নির্মাণাধীন বসত বাড়ীতে। মামলার বিবরনে প্রকাশ, আসামীদ্বয় ভিকটিম উপজেলার হাটবাটী গ্রামের স্কুল পড়ূয়া দুই কন্যাকে রাস্তা-ঘাটে দেখিয়া অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি সহ কূ-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো।ভিকটিমদ্বয় তাদের কথায় রাজি না হওয়ায় ক্ষয়- ক্ষতি করবে বলে হুমকি প্রদান করে। ঘটনার দিন ভিকটিমদ্বয় লক্ষ্মীপূজা দেখার উদ্দেশ্যে হাটবাটী মন্দিরে যাওয়ার পথে ঘটনাস্হলে পৌঁছালে আসামীদ্বয় পৃথক পৃথক ভাবে ভিকটিমদ্বয়কে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্হানে হাত দিয়ে যৌন নিপিড়ন করে। তাদের আত্ম চিৎকারে তার আত্মীয় স্বজন ছুঁটে আসলে তারা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এ ব্যাপারে গত শনিবার বটিয়াঘাটা থানায় ভিকটিমের পিতা বাদী হয়ে ১১/৮৬ নং মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাদেরকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

পাইকগাছায় জাল টাকা সহ মা-ছেলে আটক

পাইকগাছা প্রতিনিধি : পাইকগাছায় ৫ হাজার জাল টাকা সহ মা ও ছেলে আটক হয়েছে। রোববার দুপুরে গড়ইখালী ইউপি’র বগুড়ারচক খেয়াঘাটস্থ একটি মুদি দোকান থেকে মালা-মাল ক্রয় করে হাজার টাকার জাল নোট খুচরা করার সময় স্থানীয়রা দু’জনকে আটক করে বাইনবাড়ী ক্যাম্প পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। আটক নুর মোহাম্মদ ( ৩৫) ও আয়েশা বিবি( ৬০) উপজেলা সিমান্তবর্তী কয়রার উপজেলার হরিনগর-হড্ডা গ্রামের ইব্রাহীম সানার স্ত্রী ও ছেলে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ইয়াসিন গাইন জানান, মা আয়েশা স্থানীয় সোহরাব গাইনের মুদি দোকান থেকে মাল নিয়ে ১ হাজার টাকার নোট খুচরা করে টাকা নিতে বলেন। হাজার টাকার নোট নিয়ে দোকানীর সন্দেহ হলে লোকজন ডেকে তাকে আটক করে। একটু পরে ছেলে নুর মোহাম্মদ পরিচয় গোপন করে ঘটনাস্থলে এসে বৃদ্ধ মহিলাকে ক্ষমা করে ছেলে দিতে বললে স্থানীয়দের সন্দেহ বেড়ে যায়। এক পর্যায়ে জানাজানিতে তাদের মা–ছেলের পরিচয় মেলে। খবর পেয়ে ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ এসাআই মনির হোসেন দু’জনে আটক করে থানায় সোপর্দ করে। এ বিষয়ে ইন্সপেক্টর তদন্ত মোঃ আশরাফুল আলম জানান, আটককৃতদের কাছ থেকে ৫ হাজার জাল টাকার নোট উদ্ধার করা হয়েছে এবং এ চক্রে জড়িতদের ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে। রিপোট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্ততি চলছিল।

ফ্রান্সে রসুল (সাঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ফুলতলায় সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ ফ্রান্সের পত্রিকায় রসুল (সাঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শন এবং ৭১ টিভির ইসলাম বিরোধী প্রচারণার প্রতিবাদে সম্মলিত উলামা-মাশায়েক পরিষদ ফুলতলা উপজেলা শাখার উদ্যোগে রোববার বিকালে বাসষ্টান্ড চত্বরে হাফেজ মাওঃ মুফতি নূর মোহাম্মদ রহমানির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব আনোয়ারুজ্জামান মোল্যা, আওয়ামীলীগ নেতা বিএমএ সালাম, মোঃ আসলাম খান, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান গাউসুল আজম হাদি, হাফেজ মাওঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, মাওঃ মাসুম বিল্লাহ, মুফতি ফজলুল করিম, মাওঃ শরিফুল ইসলাম, মাওঃ সাফায়েত করিম, মাওঃ আঃ সালাম,মাওঃ ওবায়দুল্লাহ, আলমগীর মোল্যা, শেখ আঃ রশিদ, প্রভাষক মাজহারুল ইসলাম, হাফেজ আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ। পরে এক বিক্ষোভ মিছিল মহাসড়ক প্রদক্ষিন করেন।

 

পাইকগাছায় জাতীয় যুব দিবস পালিত

পাইকগাছা প্রতিনিধি : “মুজিব বর্ষের আহ্বান যুব কমর্সংস্থান” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে পাইকগাছায় জাতীয় যুব দিবস -২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।
রোববার ১১ টায় উপজেলা প্রশাসন ও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের আয়োজনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী-র সভাপতিত্বে। উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে, প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর গুরুত্ব রেখে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিহাবউদ্দিন ফিরোজ বুলু,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিপিকা ঢালী,সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাস,মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যাপক রবেন্দ্রনাথ,
প্রভাষক বজলুর রহমানের পরিচালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত নিজাম উদ্দিন,সমবায় অফিসার বেনজির আহমেদ, উপজেলা সমন্বয়কারী জয়ারানী রায়, খাদ্য কর্মকর্তা ফিরোজ আহমেদ,ফরেষ্টার প্রেমানন্দ রায়, সহকারী যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা গোবিন্দ কুমার দে,রবীন্দ্রনাথ বিশ্বাস,জামিরুল ইসলাম সহ আরো অনেকে।

আলোচনা সভা শেষে প্রশিক্ষিত যুবকদের মাঝে ৪ লক্ষ ৪০হাজার টাকার যুব ঋনের চেক ও সনদপত্র বিতরন সেই সাথে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা বিতরন করা হয়।

রূপসায় কৃষক মাঠ স্কুলের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

খুলনা অফিস : রূপসা উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষক পর্যায়ে উন্নতমানের ধান, গম ও পাট বীজ উৎপাদন, সংরক্ষণ ও বিতরণ প্রকল্পের আওতায় আজ ০১ নভেম্বর বেলা ১২ টায় আলাইপুর শেখপাড়া কৃষক মাঠ স্কুলের এক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন জেলা বীজ প্রত্যযন অফিসার জনাব ঝন্টু কুমার সাহা। অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন রূপসা উপজেলা কৃষি অফিসার জনাব মোঃ ফরিদুজ্জামান ও উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আবদুর রহমান । এতে রোপা আমন ধানের পোকামাকড় ও রোগবালাই দমন, ধানবীজ ফসলের মাঠ মান এবং ধান কর্তন, মাড়াই, ঝাড়াই ও বীজ সংরক্ষণ সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। আলাইপুর শেখপাড়া কৃষক মাঠ স্কুলের ১৫ জন প্রশিক্ষণার্থী এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন।