নগরীর খোলা পায়খানা গুড়িয়ে দেবে চসিক

চট্টগ্রাম ব্যুরো: নগরীর বিভিন্ন খালে খোলা পায়খানা দ্রুত অপসারণে নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরশন (চসিক) প্রশাসক খোরশদে আলম সুজন।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) সকালে বাকলিয়ার মাস্টার পোল এলাকায় মশক নিধন কার্যক্রমের ধারাবাহিক কর্মসূচিকালে তিনি এ নির্দেশ দেন।

এসময় চসিক প্রশাসক নগরবাসীর উদ্দেশে বলেন, ‌‘বিভিন্ন খালের মধ্যে যারা খোলা পায়খানা স্থাপন করেছেন তা নিজ দায়িত্বে দ্রুত অপসারণ করুন। এ নগরীতে এমন খোলা পায়খানা রাখা যাবেনা। দ্রুত অপসারণ না হলে সিটি কর্পোরেশন তা উচ্ছদ করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’

চট্টগ্রাম নগরী পরিচ্ছন্ন রাখার অনুরোধ জানিয়ে প্রশাসক বলেন, ‘আপনারা নালা-নর্দমা, খাল ও যত্রতত্র আবর্জনা ফেলবেন না। এসব কার্যকলাপ পরিবেশের জন্য হুমকি স্বরূপ। এ শহর আমার-আপনার, সবার। শহরকে পরিছন্ন, আবর্জনামুক্ত, পরিবেশ বান্ধব ও মানবিক শহরে পরিণত করতে আমাদের সকলের একত্রে কাজ করতে হবে। প্রশাসকের দায়িত্ব নিয়ে আমি প্রতিটি সময় সেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমার প্রত্যাশা নগরবাসী তাদের সামাজিক দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন হবেন।’

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, অতিরিক্ত প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদুল আলম চৌধুরী প্রমুখ।

নবীর ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে সুতারখালীতে মিছিল সমাবেশ

দাকোপ প্রতিনিধি : ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে দাকোপের নলিয়ানে ওলামা মাশায়েখের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার জুম্মাবাদ কালাবগী সালেহা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে নলিয়ান বাজার প্রদক্ষিন শেষে একই স্থানে এসে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আইয়ুব আলী ঢালীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তৃতা করেন মুফতী মোসাদ্দেক বিল্লাহ, কারী আকরাম হোসেন, মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন, হাফেজ শোয়াইব আমিন, মুফতী কামাল হোসেন, মাওলানা জাহান আলী, হাফেজ শামিম, মান্নান গাজী, রবিউল ইসলাম গাজী, হামজা গাজী, আলামিন সরদার, শামিনুর রহমান, শাকিল আহম্মেদ, জাহিদ রুমি, ফারুক গাজী, মুরাদ ঢালী, রাসেল সরদার, জোবায়ের সানা, আরাফাত সানা, মইন গাজী প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব পাশের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানিয়ে দেশ বাসীকে ফ্রান্সের সকল পণ্য বর্জনের আহবান জানান।

চালনা কম্বাইন্ড বয়েজ ক্লাবের সভা অনুষ্ঠিত

দাকোপ প্রতিনিধি : দাকোপের ঐতিহ্যবাহী ক্রীড়া সাংস্কৃতি ও সামাজিক সংগঠন চালনা কম্বাইন্ড বয়েজ ক্লাব পূর্ণগঠন কল্পে এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার সন্ধ্যায় দাকোপ উপজেলা পরিষদ মাঠে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দাকোপ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজগর হোসেন ছাব্বির। সংগঠনের নির্বাহী সদস্য রাসেল কাজীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তৃতা করেন সেলিম মোল্যা, রমজান গাজী, ধীমান রায়, বাপ্পী কাজী, মনিরুল ইসলাম রনি, সোহাগ শেখ, হাফিজুর রহমান, আসাদুর রহমান সানা, পিকলু কাজী, ফিরোজ গাজী, কল্লোল মন্ডল, মাহামুদুল হাসান, আছাদুল ইসলাম, সোহেল মোল্যা, অচিন্ত্য রায়, মামুন সরদার, নাইম শেখ, সিহাব হাসান, রনি শেখ, মোঃ হাসান, মিঠু শেখ, রুবেল মল্লিক, এস, এম সুমন প্রমুখ। সভায় সংগঠনকে পূর্নগঠনের লক্ষ্যে সর্ব সম্মতিক্রমে রাসেল কাজীকে সমন্বয়কের দায়িত্ব দিয়ে আগামী ১৫ নভেম্বর পরবর্তী সভা আহবান করা হয় ৷

 আ জ ম নাছির এর ক্যাডার লিমন গ্রেপ্তার; সহযোগী থেকে অস্ত্র উদ্ধার

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরীর সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির ক্যাডার হিসেবে পরিচিত কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক ও সিআরবির জোড়া খুনের মামলায় অভিযুক্ত সাইফুল আলম লিমনকে ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা মামলার আসামি মোক্তারকে আদালতে মারধরের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। একইসাথে তার স্বীকারোক্তিতে সজল দাশ নামে এক সহযোগীর কাছ থেকে বিদেশি অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সেই মামলাও গ্রেপ্তার দেখানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছে ডিবি।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি-দক্ষিণ) ডিসি মুহাম্মদ আলী হোসেন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এরআগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে নগরীর চকবাজার থানার মেহেদীবাগের ইকুইটি নামের একটি ভবনের চতুর্থ তলার একটি ফ্ল্যাট বাসা থেকে সাদা পোশাকের ‘ডিবি পুলিশ’ তাকে তুলে নিয়ে যায় বলে দাবি করেছিলেন লিমনের বড় ভাই খায়রুল আলম ইমন। যদিওবা ওই সময়ে ডিবির পক্ষ থেকে কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে ডিবির উপ কমিশনার মুহাম্মদ আলী হোসেন বলেন, ‘কিছুদিন আগে আদালতে সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলার আসামি মোক্তার হোসেনকে মারধর করার মামলায় লিমনের সম্পৃক্ত পাওয়া যায়। এই মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে রাতে তাকে ডিবি কার্যালয়ে আনা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তিতে শেষ রাতে সহযোগী সজল দাশের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় সজল দাশ ও লিমনকে আসামি করে পৃথক মামলা হবে। আগে থেকে করা মারধরের মামলায় লিমনকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।’

গত ১২ অক্টোবর ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত বিশ্বাস হত্যা মামলার আসামি মোক্তার হোসেন আদালতে হাজির দিয়ে বের হওয়ার সময় তার ওপর হামলা করা হয়। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের এজলাসের বাইরে বারন্দায় ওই হামলার ঘটনা ঘটে। পরে মোক্তার বিচারকের এজলাসে আশ্রয় নিয়ে রক্ষা পান। বিচারককে বিষয়টি জানালে তিনি মোক্তারকে কোতোয়ালি থানায় গিয়ে মামলা করার নির্দেশ দেন।

এ মামলায় প্রথমে একজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও মামলার ১৫ আসামির মধ্যে আরও ৮ আসামি গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চেয়েও ব্যর্থ হন। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মহিউদ্দিন মুরাদ সবাইকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। ওই দিনই লিমনকে মধ্যরাতে নিজ বাসা থেকে তুলে নেয় ডিবি।

২০১৩ সালের ২৪ জুন সিআরবি সাত রাস্তার সামনে যুবলীগের কর্মী সাজু পালিত (২৮) ও শিশু আরমান (৮) নিহত হয়। এ ঘটনায় করা মামলায় লিমনকে দ্বিতীয় প্রধান আসামি করে ৬২ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। সেসময়ও গ্রেপ্তার হয়ে কারাভোগ করেন লিমন। এরপর ২০১৫ সালের নভেম্বরে অস্ত্রগুলিসহ লিমনকে গ্রেপ্তার করেছিল র‍্যাব-৭।

অভয়নগরে ওয়ারেন্টভুক্ত ও সাজাপ্রাপ্ত ১৫ আসামিকে আটক

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি : যশোরের অভয়নগরে ১৫জন সাজাপ্রাপ্ত ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে অভয়নগর থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিনব্যাপি পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে উপজেলার ৪জন সিআর ও ১১জন জিআরভুক্ত আসামিকে আটক করে যশোর জেল হাজতে পাঠানো হয়। আটককৃত সিআরভুক্ত আসামিরা হলেন, উপজেলার ধোপাদি গ্রামের আরিফ চাঁদের ছেলে আনিসুর গাইন, মহাকাল গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে আরমান হোসেন, মাগুরা গ্রামের মৃত আবদুল বারীর ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন, প্রেমবাগ এলাকার রফিকুল গাজীর ছেলে মতিউর রহমান, অপর জিআরভুক্ত আসামিরা হলেন, উপজেলার শংকরপাশা গ্রামের সিরাজ গাজীর ছেলে বিল্লাল গাজী, চেঙ্গুটিয়া এলাকার আবদুল জলিলের ছেলে নাজমুল হোসেন, বুইকরা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ আলী, ধোপাদি গ্রামের সুজিত কুমারের ছেলে অশোক কুমার, আবদুল গফুরের স্ত্রী জাবেদা খাতুন, নজরুল ইসলামের মেয়ে হাসিনা বেগম, আফসার আলীর ছেলে আবু জাফর, জাকির হোসেনের ছেলে মো. রানা ও রমজান আলী স্ত্রী শাহিদা বেগম, হরিশপুর গ্রামের মতলেব মোল্যার ছেলে রুবেল হোসেন ও পোতপাড়া গ্রামের আইউব আলীর শেখের ছেলে মুজিবর রহমান শেখকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত ) মিলন কুমার মন্ডল জানান, বিশেষ অভিযানে আটককৃতদের শুক্রবার সকালে যশোর জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

খুলনায় রাসায়নিক পানে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

খুলনা অফিস : খুলনায় রাসায়নিক দ্রব্য পানে দুই রঙ মিস্ত্রির মৃত্যু মৃত্যু হয়েছে।  জানা গেছে, খুলনা সরকারি মহিলা কলেজের ল্যাবে সংস্কার কাজের সময় মো. পারভেজ (২৯), রফিক বিশ্বাস (৪০) ও শামীম (৩২) বিষাক্ত রাসায়নিক দ্রব্য মদ ভেবে পান করে,এতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। শুক্রবার (৬ নভেম্বর) মো. পারভেজ (২৯), রফিক বিশ্বাস (৪০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। আরেক শ্রমিক শামীম (৩২) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে ।
শ্রমিকরা তরল রাসায়নিক দ্রব্যকে মদ ভেবে পান করেছিল বলে জানা গেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়েছে। জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে ওই তিন জন বিষাক্ত রাসায়নিক পান করে। এরপর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদেরকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কলেজের অধ্যক্ষ টিএম জাকির হোসেন জানান, কলেজের সংস্কার কাজে জন্য ওইসব শ্রমিককে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ল্যাব থেকে তারা বিষাক্ত কিছু পান করায় মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

ঝালকাঠিতে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ অভিযোগে আটক ১

মোঃনজরুল ইসলাম, ঝালকাঠিঃ ঝালকাঠির নলছিটিতে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১২) একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার গভীররাতে মনির হোসেন (২২) নামে এক যুবককে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে দিয়েছে। মনির উপজেলার মালোয়ার গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে।

অভিযোগে ও পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাত একটার দিকে মনির হোসেন তাদের প্রতিবেশীর ঘরে ঢুকে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। মেয়েটির চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা এসে ধর্ষণকারীকে আটক করেন। তাকে মারধর করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় আজ শুক্রবার সকালে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন মেয়েটির মা।

মামলায় উল্লেখ করেন, তার মেয়েকে এর আগে ২৭ অক্টোবর রাতে মনির হোসেন দরজা খুলে ভেতরে ঢুকে ধর্ষণ করেন। মেয়েটি এ বিষয়ে বাবা-মাকে জানালে তারা লোকলজ্জার ভয়ে বিষয়টি কাউকে বলেননি। এ সুযোগে পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার রাতে মনির আবারো মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। ওই কিশোরী স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে।

এ বিষয়ে নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল হালিম তালুকদার জানান, শুক্রবার সকালে মেয়েটির মা মামলা দায়ের করেছেন। আসামিকে দুপুরে আদালতে পাঠানো হবে।