পলাশবাড়ীতে অর্ধকোটি টাকার রাস্তার গাছ সাড়ে ১২ লাখ টাকায় বিক্রি

আশরাফুল ইসলাম, গাইবান্ধা : ম্যানেজ প্রক্রিয়ায় গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ীতে ইউপি রাস্তার অর্ধকোটি টাকার গাছ ১২ লাখ ৫৪ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। এ রাস্তার কাগজপত্র ঠিক করতে পোড়াতে হয়েছে কাঠ খড়ি সবক্ষাণে দিতে হয়েছে টাকা তারপরেই ইউনিয়ন পরিষদ হতে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসাবে গাছ কর্তনের অনুমতি পেয়েছেন সিপন ট্রেডাসের মালিক আব্দুল ওয়াদুদ প্রধান। সরেজমিনে গিয়ে গাছ কর্তন বিষয়ে জানতে চাইলে এভাবে বলেন গাছ কর্তনের কার্যাদেশ প্রাপ্ত ব্যবসায়ি সিপন ট্রেডাসের মালিক আব্দুল ওয়াদুদ প্রধান।

পলাশবাড়ী উপজেলার মহদীপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের গত ১৮ নভেম্বর ২০২০ ইং তারিখে স্মারক নং গাই/পলাশ/ইউ- মহদীপুর/২০২০/১৪০ ইউপি চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম মন্ডল স্বাক্ষরিত পত্রে সূত্র হিসাবে দেখানো হয়েছে ১। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কায়ালয় পলাশবাড়ী গাইবান্ধা স্মারক নং ০৫.৫৫.৩২৬৭.০০০.৩৭.১৮-৭৯৬(৬) তারিখ-২৯-০৯-২০২০ ইং২। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় গাইবান্ধা স্মারক নং-২২,০১৩২০০. ২৮৯.২৮.০০০.১৯.৩১ তারিখ ২০-৮-২০২০ ইং । ৩। বিভাগীয় বন কর্মকর্তার কার্যালয় সামাজিক বন বিভাগ রংপুর স্মারক নং-২২.০১.১৮৫০০.২৮১.১৭.০১৫.২০-১৯৬৭ তারিখ ৪-৮-২০২০ ইং স্মারক উল্লেখিত গাছ কর্তনে ইউনিয়ন পরিষদের কার্যাদেশ পত্রে আরো জানা যায়,১১ নভেম্বর ২০২০ ইং তারিখে দরপত্র অনুযায়ী আপনাকে আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে , ৫ নং মহদীপুর ইউনিয়নের অন্তভুক্ত দূর্গাপুর রেনেসা সমবায় সমিতির কর্তৃক অজুবরের দোকান হতে শুরু করে নজীরের বাড়ী পর্যন্ত ,নজীর বাড়ী হতে ডিপটিউবলে পর্যন্ত,নজীরের বাড়ী হতে সরকারের বাড়ী ,আজমাদের বাড়ী হতে তোতার বাড়ী পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে অবস্থিত ২৭৯ টি ইউক্লিপর্টাস গাছ বিক্রয়ের জন্য অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ঠিকাদার সরবরাহকারী গণের নিকট থেকে উন্মুক্ত দরপত্র আহবান করা হয়। গাছ কর্তন কমিটির নিকট আপনি সর্বোচ্চ দরদাতা হওয়া দরপত্র মুল্যের সমূদয় টাকা ভ্যাট ও আয়কর নি¤œ স্বাক্ষরকারী/ব্যাংকে দাখিল করায় আপনাকে ২৭৯ টি গাছ আগামী ২৫ ডিসেম্বরের মধ্যে কর্তনের জন্য অনুমতি প্রদান করা হইলো।

এ পত্রে আরো শর্তবলি উল্লেখ্য করা হয় ১। দরপত্র অনুযায়ী ২৭৯ টি গাছ ব্যতিত কোন গাছ কর্তন করা যাবে না।২। নির্ধারিত তারিখের মধ্যে গাছ কর্তন করিতে হইবে। ৩।কোন অনিয়ম পরিলক্ষিত হইলে কোন নোটিশ ব্যতিরিকেই ইহা বাতিল অধিকার সংরক্ষ করে। এছাড়াও এ পত্রে অফিস কপি সহ ১১ টি স্থানে অনুলিপি কপি প্রদান করা হয় ।

সরেজমিনে গিয়ে , দেখা যায় গাছ কর্তন কার্যাদেশ অনুযায়ী উক্ত প্রতিষ্ঠানটি গাছ কর্তন শুরু করেছে এসময় গাছ কার্যাদেশ প্রাপ্ত কর্তনকারী আব্দুল ওয়াদুদ প্রধানের নিকট ২৭৯ টি গাছ এতো অল্প মূল্যে পাওয়ার কারণ কি জানতে চাইলে তিনি বলেন প্রায় ২ বছর সাধন নিয়ে বিভিন্ন স্থানে টাকা পয়সা দিয়ে কাগজ পত্র বের করে বর্তমান সময়ে ইউনিয়ন পরিষদ হতে কার্যাদেশ নিয়ে গাছ কর্তন করছি । ১২ লাখ ৫৪ হাজার চাকা দাম দিয়ে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসাবে গাছ কর্তন করছি।

এবিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলামের কাছে জানতে তাহার ফোনে কলদিলে তিনি রিসিভ না করায় কোন মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

এদিকে গাছ রোপনকারী রেনেসা সমবায় সমিতির সভাপতি শিক্ষক জাকির হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন ১১ হতে ১২ লাখ টাকা বিক্রি করা হয়েছে ২ শত ৩০ হতে ৩২ টি গাছ। এসময় কাগজে উল্লেখিত গাছের সংখ্যা ২৭৯ টি বললে তিনি তখন বলেন এরকমি হবে এরপর তিনি কতটাকায় গাছ গুলো বিক্রি শেষে কর্তনের অনুমতি পেয়েছেন তাও তিনি বলতে পারেনি । তবে গাছ ব্যবসায়ির নিকট বাড়তি অর্থ নিয়ে অল্প মুল্যে গাছ গুলো বিক্রি করা হচ্ছে যার সুফল সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ম্যানেজ করার মাধ্যমে বাস্তবায়ন হচ্ছে এমন অভিযোগ অস্বীকার করে জাকির হোসেন আরো বলেন সর্ব জায়গায় দূর্নীতি দূর্নীতি ছাড়া কোন কাজ হয় না ।সবক্ষাণে ম্যানেজ করে এসব রাস্তার গাছ কাটতে হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা বলেন জানান, গত ৫ বছর আগে এসব গাছের দাম বলা হয়েছিলো ২৭ লাখ টাকা আজ ৫ বছর পরে এসে এ গাছ গুলো আরো বড় ও মোটা তাজা হওয়ার পরেও দাম কমে গেলো সব যেন শুভংকরের ফাকি। দৃশ্যমান অনিয়মেই নিয়ম আমাদের কি বলার আছে আর বলার থাকতে পারে। যেই হরা সেই হরি কাকে কি বলে নিজেরা বিপদে পড়ি।

স্থানীয় একাধিক প্রবীন গাছ ব্যবসায়ির নিকট জানা যায় ,ইউপি রাস্তার গাছ গুলো দাম প্রায় ৪০ হতে ৪৫ লাখ টাকা কারণ ১৫০ টি গাছ ২০ হাজার টাকা হিসাবে বিক্রি করা যাবে বাকি ১২৯ টি গাছ ১০ হাজার ও ৫ হাজারের মধ্যে রয়েছে।

দিঘলিয়ায় বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরন

দিঘলিয়া প্রতিনিধি : মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনার চাচি, বাগেরহাট-০১ আসনের মাননীয় সাংসদ শেখ হেলাল উদ্দিন এম পি, খুলনা-০২ আসনের মাননীয় সাংসদ শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল ও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সোহেল এর গর্ভধারিনী মা মরহুমা বেগম রিজিয়া নাসেরের বিদেহী আত্বার মাগফিরাত কামনা করে খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদী (এম পি) এর সহ ধর্মিনী, এনভয় গ্রুপের পরিচালক, সমাজ সেবক মিসেস সসারমিন সালাম এর প্রতিষ্ঠিত সংগঠন সারমিন সালাম মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রের উদ্যোগে সেমাবার দোয়া, বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরন করা হয়। দিঘলিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ আয়োজিত উক্ত সেবা কার্যক্রম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শেখ মুন্জুর হোসেন, খান আনিসুর রহমান, খান মতিয়ার রহমান, গাজী মাসুদ রানা, মিজানুর রহমান হাওলাদার, শেখ রায়হান উদ্দিন, হাবিবুর রহমান তারেক, খান আসাদুজ্জামান, শেখ আনিসুর রহমান, শেখ রিয়াজ হোসেন, সৈয়দ জামিল মোর্শেদ মাসুম, মোড়ল রাকিবুল ইসলাম, মোঃআল-আমিন শেখ, মাষ্টার এম এম কওসার আআলী, শেখ মুরাদুল ইসলাম, মোঃজুলু শেখ, আজমুজ্জামান রিমন, শেখ সাইদুর রহমান, খান তৌহিদুর রহমান, শেখ আসাদুজ্জামান আছা, তবিবুর রহমান, ইমন শেখ,বাবুল শেখ প্রমুখ। খুলনা মেডিকেল কলেজের ৬ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা বিকাল ৩ টা হইতে ৫.৩০ টা প্রর্যন্ত চলমান এই চিকিৎসা সেবা কার্যক্রমে প্রায় দুই শতাধিক নারী ও শিশুকে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ঔশধ বিতরন করা হয়।পানিগাতী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গনে এ সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হয়।
উল্লেখ্য এই সারমিন সালাম মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্র ইতি মধ্যে দিঘলিয়া উপজেলার প্রতিটি এলাকায় হাজার হাজার সেবা প্রত্যাসিদের বিনা মূল্যে সেবা প্রদান করেন।

রূপসায় গাঁজাসহ গ্রেফতার ১

খুলনা অফিস : জেলা গোয়েন্দা শাখা, খুলনার অফিসার ইনচার্জ জনাব, সেখ কনি মিয়া এর নেতৃত্বে এসআই (নিঃ) রাজিউল আমিন এবং সংগীয় অফিসার ও ফোর্স সহ মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও অভিযান পরিচালনাকালে রবিববার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মামলার ঘটনাস্থল রূপসা থানাধীন শ্রীরামপুর গ্রামস্থ এস.বি.এম ইট ভাটার মধ্যে হতে ওয়াপদার রাস্তা গামী মাটির রাস্তার উপর আসামি ১। মোঃ নাঈম শেখ (২৬), পিতা- মোঃ আসাদ শেখ, মাতা-বাশিরা শেখ, সাং-রামনগর, থানা-রূপসা, জেলা-খুলনা, বর্তমান সাং- ভট্টখামার, থানা-ফকিরহাট, জেলা-বাগেরহাট’ কে ধৃত পূর্বক তাদের হেফাজত হতে বাঁশপাতার কাগজ ও বাদামি কসটেপ দ্বারা মোড়ানো ২৫০ (দুইশত পঞ্চাশ) গ্রাম গাঁজা উদ্ধার পূর্বক ২২/১১/২০২০ তারিখ বিকাল ১৬.২০ ঘটিকার সময় জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করেন। এ সংক্রান্তে জেলা গোয়েন্দা শাখা, খুলনার এসআই (নিঃ) রাজিউল আমিন বাদী হয়ে আসামির বিরুদ্ধে রূপসা থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন।

মোংলা পোর্ট পৌরসভার ‘কম্পিউটার প্রশিক্ষণ’র উদ্বোধন

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : মোংলা পোর্ট পৌরসভার ডিজিটাল সেন্টারের আয়োজনে ‘কম্পিউটার প্রশিক্ষণ’র উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে টি,এ ফারুক স্কুল এন্ড কলেজ’র শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবে এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কমলেশ মজুমদার। পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আইসিটি অফিসার সৌমিত্র বিশ্বাসসহ অন্যান্যরা। প্রত্যেক বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণের উপকারীতা এবং প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে নানা দিক নির্দেশনা দেন বক্তারা। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি কমলেশ মজুমদার ও সভাপতি জুলফিকার আলী বলেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদেরকে কম্পিউটার সম্পর্কেও পারদর্শী হতে হবে। কম্পিউটার জানা থাকলে পুরো বিশ্বই হাতের মুঠোয় থাকবে। শিক্ষণীয় সব কিছুই কম্পিউটারে সার্চ দিয়ে তাৎক্ষনিক জানা সম্ভব। এবং কম্পিউটার শিক্ষা লাভ করে নিজের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি বাড়তি আয়ের মধ্যদিয়ে বেকারত্বও দূূর করা সম্ভব হবে।
পৌর কর্তৃপক্ষের আয়োজন ও অর্থায়নে এ কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কর্মসূচী চালু করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে টি,এ ফারুক স্কুল এন্ড কলেজ দিয়ে শুরু হলেও পর্যায়ক্রমে পৌরসভার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা চালুর কথা জানিয়েছেন পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিশ্চিতের জন্য ইতিমধ্যেই পৌরসভার পক্ষ থেকে মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী কম্পিউটার ও সিসি ক্যামেরা প্রদাণ করেছেন।

জাবির অধ্যাপক মরহুম ড. হিমেল বরকতের দাফন সম্পন্ন

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ব বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ও কবি-সাহিত্যিক, গবেষক ড. হিমেল বরকতের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার সকাল ১০টায় মোংলার মিঠাখালী ফুটবল মাঠে মরহুমের জানাযা নামাজ শেষে তাকে মিঠাখালীর নিজ বাড়ীর পারিবারকি কবরস্থানে মায়ের কবরের পাশে শায়িত করা হয়েছে। তার জানাযা অনুষ্ঠানে স্থানীয় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক লোকজন অংশ নেন। এ সময় মরহুমের জন্য তার পরিবারের পক্ষ থেকে সকলের কাছে দোয়া চান তার ভাই ডা: মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ, আবির আব্দুল্লাহ, সুবির ওবায়েদ, সুমেল সারাফাতা ও ভগ্নিপতি মাহমুদ হাসান ছোট মনি। জানাযা নামাজের পূর্বমুহুর্তে মরহুমের জীবনী নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইদ্রিস আলী, পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম হোসেন ও হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন, মাওলানা তৈয়বুর রহমান, মাওলানা আ: রহমানসহ অন্যান্যরা।
ড. হিমেল বরকত ছিলেন কবি প্রয়াত রুদ্র মুহাম্মদ শহিদুল্লাহর ছোট ভাই। এবং মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক ডক শ্রমিক পরিচালনা বোর্ডের ডাক্তার মরহুম ওয়ালিউল্লাহর ছোট ছেলে ছিলেন হিমেল।
গত শনিবার সকালে অনলাইনে ক্লাস নেয়ার সময় হঠাৎ হার্ট এ্যাটাক করলে তাকে তাৎক্ষনিক ঢাকা বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার ভোর রাত সাড়ে ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়। ওইদিন বিকেলে তার প্রিয় কর্মস্থল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রথম জানাযা শেষে তাকে মোংলার মিঠাখালীর নিজ বাড়ীতে আনা হয়। এরপর সেখানেই তাকে চির নিদ্রায় শায়িত করা হয়েছে। মরহুম হিমেল স্ত্রী ও এক কন্যা সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছে। তার অকাল মৃতুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে মিঠাখালীসহ পুরো মোংলা জুড়ে।

ডুমুরিয়ায় অবৈধ পলিথিন কারখানায় অভিযান

ডুমুরিয়া (খুলনা) প্রতিনিধি : ডুমুরিয়া উপজেলার থুকড়া বাজারে অবৈধ ভাবে পলিথিন প্যাকেট তৈরীর কারখানায় অভিযান পালিচালিত হয়েছে। রোববার বিকেলে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও র‌্যাব-৬’র যৌথ অভিযানে এক বান্ডিল পলিথিন জব্দ ও দুই কর্মচারীকে আটক করেছে।
অভিযান সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার থুকড়া বাজারে বিলপাটিয়ালা গ্রামের খবির শেখের ছেলে জাহাঙ্গীর শেখ অবৈধ ভাবে পলিথিনের কারখানা গড়ে তোলে। করিম ও আকবর নামের দুই শ্রমিক নিয়ে প্রায় দুই মাস ধরে ওই কারখানায় বিভিন্ন কোম্পানীর মনোগ্রাম ও ঠিকানা সম্বলিত পলি প্যাকেট তৈরী করে আসছিলো। খবর পেয়ে ডুমুরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট ডাঃ সঞ্জীব দাস ও র‌্যাব-৬’র এডজুটেন্ড অফিসার পহন চাকমার নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইনে অবৈধ ভাবে কারখানা গড়ে তোলার অপরাধে কর্মচারী করিম ও আকবরের বিরুদ্ধে শুনানি শেষে এক লক্ষ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন। আর ভিতরে থাকা পরিথিনসহ যাবতীয় সরঞ্জমাদি জব্দ করে কারখানাটি সিলগালা করে দেন। তবে অভিযানের আগেই কারখানা মালিক জাহাঙ্গীর শেখ পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

‘রাসুলের অবমাননা মুসলমানরা বরদাশত্ করবে না’

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, রাসুলের প্রতি অবমাননাকর বক্তব্য পুরো মানবজাতির জন্য সহ্য সীমার বাইরে। কারণ রাসুল মানব জাতির জন্য রহমতস্বরূপ। তিনি সমাজ ধর্ম রাষ্ট্র প্রতিটি ক্ষেত্রে ছিলেন সফল।

রবিবার (২২ নভেম্বর) বিকেলে বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের আয়োজনে ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা স্কাউট মিলনায়তনে প্রেস ক্লাব সভাপতি এস এম মোদ্দাচ্ছেরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সেকান্দর আলম বাবরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বোয়ালখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুল করিম, ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকারম, ক্লাবের সাবেক সভাপতি মো.শাহীনুর কিবরিয়া মাসুদ, সাংবাদিক কাজী আয়েশা ফারজানা, শ্রীপুর বুড়া মসজিদের ওয়ারিশান মো. নুরুন্নবী চৌধুরী, ব্যবসায়ী মো.ফরিদুল আলম, মোজাম্মেল হক বকুল, তসলিম উদ্দিন, কাজী খোরশেদ মিল্টন, শাহজাদা এস এম কাজেম, ক্লাবের নির্বাহী সদস্য অালমগীর চৌধুরী রানা, সদস্য হোসাইন মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সহ-সভাপতি রাজু দে, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রলয় চৌধুরী মুক্তি, অর্থ সম্পাদক দেবাশীষ বড়ুয়া রাজু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মুহাম্মদ মহিউদ্দিন।

মিলাদ মাহফিলে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন উপজেলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মো. ইলিয়াছ শিকদার ও হাওলা কুতুবিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা সৈয়দ মো. ফখরুদ্দিন।