আমদানি পণ্যের শুল্ক বাড়বে প্রায় ৩০ ভাগ : ট্যারিফ কমিশন

ইউনিক ডেস্ক : ডলারের দামের তারতম্যের প্রভাবে আমদানি নির্ভর পণ্যগুলোর ওপর ২৫ থেকে ৩০ ভাগ শুল্ক বাড়বে বলে জানিয়েছে ট্যারিফ কমিশন। ফলে এসব পণ্যে অন্তত ত্রিশ ভাগ দাম বাড়বে।

টিসিবি ভবনে সোমবার সকালে ভোক্তা অধিকার ও সংরক্ষণ কমিশনের আলোচনায় একথা জানান ট্যারিফ কমিশনের উপ-পরিচালক মো. মাহবুব। রাজধানীর কারওয়ান বাজারে টিসিবি ভবনে ভোক্তা অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এ মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ভোক্তা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এএইচএম সফিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভায় আদা রসুন হলুদ ও শুকনো মরিচের ব্যবসায়ী নেতা, ক্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট আব্দুল হান্নান ও এফবিসিসিআইর ভাইস প্রেসিডেন্ট আমিন হিলালি উপস্থিত ছিলেন।

ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ভোক্তা অধিদপ্তরের ডিজি জানান, শুল্ক কমানোর সুপারিশ করা হবে। তবে এবার পেঁয়াজের বাজার খুবই স্বাভাবিক মাত্রায় ছিল। আগামী রমজানেও পেঁয়াজের মৌসুম হওয়ায় দাম বাড়বে না।

আলোচনায় অংশ নেন খুচরা ও পাইকারি ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা। এছাড়া ক্যাব ও এফবিসিসিআই এর নেতারা আলোচনায় অংশ নেন।

এসময় বক্তারা বলেন, এবছর পেঁয়াজের দামে তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না। তবে আমদানিনির্ভর আদা, রসুন ও শুকনো মরিচ, হলুদের দাম কিছুটা বাড়তে পারে। পণ্যের চাহিদা অনুযায়ী পণ্য আমদানিতে এলসি সমস্যা সমাধান করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান আমদানিকারকরা। সকলের মতামত শুনে রমজানে পণ্যের দাম স্থিতিশীল রাখতে সমন্বিতভাবে সমস্যা সমাধানে কাজ করার কথা জানিয়েছেন ভোক্তা অধিকার ও সংরক্ষণ কমিশনের মহাপরিচালক।