ঠাকুরগাঁওয়ে নানা আয়োজনে শিব পূজা অনুষ্ঠিত

জয় মহন্ত অলক, ঠাকুরগাঁও : ভগবান শিবকে দেবাদিদেব বলা হয়।কারন সকল দেবতার দেবতা মহাদেব। ভগবান শিবের বহু রূপ ও বহু নাম আছে।যেমন: শিবশঙ্কর,মহাদেব,ভোলানাথ সহ ইত্যাদি।বুধবার মহা শিবরাত্রি ব্রত পালিত হচ্ছে।দিনটিতে সব জায়গায় শিব পূজা পালিত করা হয়। আর এই শিব পূজাও ঠাকুরগাঁও শহরে কেন্দ্রিয় গোবিন্দজিউ মন্দির, শশ্বান কালী মন্দিপূজিত,কালীবাড়ী ও সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের ভাদগাঁও শিকদার হাট ,ইয়াকুব পুর স্কুল হাট,সহ ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন মন্দিরে শিব পূজার আয়জন করেন ঠাকুরগাঁও শহরের বেশিভাগ হিন্দু মহিলারা আসেন মন্দিরে এবং শিব পূজা দেয় ও শিবের মাথা দুধ,ডাবের জল ঢালে।শিব পূজা সর্ম্পকে মন্দিরের পুরোহিত গণ বলেন, এই পূজা যে নারী করে সেই নারী ভালো ও সুশিল স্বামী পায়।তাছাড়াও দেবাদিদেব মহাদেব তার সকল কষ্ট দূর করে।ঠাকুরগাঁও শহরের শিব পূজায় প্রতি বছর অনেক মানুষের সমাগম হয়।এবারো তাই পূজা উপলক্ষে অনেক মানুষর সমাগম দেখা যায় মন্দির গুলোতে।শিব পূজায় অংশ নেওয়া বিবাহিত নারী উর্মী বর্মন ও অনুরাধার সাথে কথা বলা হলে তারা বলে, শিব পূজা করার আগমুহূর্ত পর্যন্ত উপবাস থাকতে হয়।আর এই উপবাস পূজার পর ভাঙ্গা হয় এবং সারাদিন নিরামিস খেতে হয়।অর্থাৎ কোনো মাছ,মাংস,পেঁয়াজ খাওয়া যাবে না আর ভগবান শিবের কৃপা সর্বদা তার উপর থাকবে।শুধু তাই নয়,শিব পূজা করলে ভালো একজন স্বামীও পাবে।
ঠাকুরগাঁও শহরের মন্দির গুলোতে শিব পূজায় আগের মতো লোকসংখ্যা হয়েছে দেখা গেছে শিব পূজায় অংশ নেওয়ার জন্য সকল নারীরা লাইন ধরে দারিয়ে থাকে।শিব পূজায় শুধু মেয়েদের পাশাপাশি ছেলেদেরও দেখা গিয়েছে।জয়ন্ত নামে একটি ভক্ত শিব পূজায় অংশগ্রহণ করে। কাছে জানতে চাইলে বলে,আমি আমার পরিবারের সাথে শিবের মাথায় জল ঢালতে আসছি।আর শিব ঠাকুরের কাছে প্রার্থনা করছি আমি যানি পড়া-লেখায় খুব ভালো করতে পারি।উল্লেখ্য এই পূজা উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে বিভিন্ন মন্দিরে পূজা অর্চনা, ধর্মিয় কিত্তন সহ নানা আয়োজন করা হয় অনুষ্ঠান শেষে প্রসাদ বিতরণের মধ্যে দিয়ে সমাপ্ত হয়।

আপনার মতামত জানানঃ