তালায় গাছ কিনে বিপাকে স্থানীয় ইউপি সদস্য

তালা প্রতিনিধিঃ রাস্তার পাশের একটি শিশু গাছ ক্রয় করে বিপাকে পড়েছেন তালার এক কাঠ ব্যবসায়ী আবু সাঈদ মোড়ল। সেখানকার তহশীলদার মারুফুর রহমান গাছটি সরকারি রাস্তার অনুকুলে দাবি করে গাছ কাটার অপরাধে তার নামে উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি বরাবর অভিযোগটি করেছেন।
অভিযোগে প্রকাশ সাতক্ষীরার তালার তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের আড়ংপাড়া গ্রামের ওসিকার মোড়লের ছেলে আব্দুল মালেক তার জমির সীমানায় তার নিজ লাগানো একটি শিশু গাছ ২৪ শ’ টাকায় বিক্রি করেন স্থানীয় কাঠ ব্যবসায়ী আবু সাঈদ মোড়লের কাছে। বিষয়টি জানতে পেরে শুক্রবার সকালে স্থানীয় ইউপি সদস্য বাবর আলী গাছটি সরকারি দাবি করে আটকে দেন। এরপর সেখানকার তহশীলদার মারুফুর রহমান গাছ মালিকের বিরুদ্ধে কোথাও কোন অভিযোগ না করে সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য বাবার আলী ও গাছ ক্রেতা আবু সাঈদের বিরুদ্ধে তালা উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি বরাবর একটি অভিযোগ করেছেন। এতে গোটা এলাকায় তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে একটি মহল তহশীলদারকে দিয়ে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে হয়রাণী অভিযোগ করেছেন মর্মে দাবি করে ঐ ইউপি সদস্য তালা সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করলে গতকাল সরেজমিনে প্রতিবেদনকালে স্থানীয়রা জানান,গাছটি জমি মালিক মালেক রোপন করেছিলেন। সম্প্রতি গাছটি তার ভাগ্নের অসুস্থতায় বিক্রি করলে প্রথমে ইউপি সদস্যই বাঁধ সাধেন। তবে তাকে শায়েস্তা করতে নায়েব উল্টো মেম্বরের বিরুদ্ধেই অভিযোগ করেছেন।
এব্যাপারে খবর নিতে উপজেলা সহকারী কমিশনারের কার্যালয়ে গেলে জানা যায় দীর্ঘ দিন ধরে তার পদটি শূণ্য রয়েছে। তাই বিষয়ুিট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেখবেন। এব্যাপারে তহশীলদার মারুফুর রহমানের ০১৭৬২-৪৭৩৭৩৬ নমএর বার বার যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,তিনি বর্তমানে বদলী হয়ে অন্যত্র চলে গেছেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য বাবর আলী বলেন,তিনি গাছটি সরকারি বলে অনুমান করে জরীপ শেষে গাছ সরবরাহের জন্য আটকে দেন। তবে নায়েব বিষয়টি উল্টো গাছ কাটার অপরাধে তাকে অভিযুক্ত করে অভিযোগটি করেছেন।

আপনার মতামত জানানঃ