মৎস্যজীবী লীগকে মৎস্যজীবী সম্প্রদায় ও মৎস্যখাতের বিপুল সম্ভাবনাকে কাজে লাগানের জন্য কাজ করতে হবে : খুলনা সিটি মেয়র

বিজ্ঞপ্তি :
খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে একটি অসম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যকে সামনে রেখে বেকারত্ব দূরীকরণ, দারিদ্র্য বিমোচন, শিক্ষা সম্প্রসারণ ও আত্মনির্ভরশীল অর্থনীতি গড়ে তোলা এবং হতদরিদ্র মৎস্যজীবীসহ সমাজের পশ্চাৎপদ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের ন্যায্য অধিকারসমূহ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করার উদ্দেশ্য নিয়ে ২০০৪ সালের ২২ মে বাংলাদেশ মৎসজীবী লীগ গঠন করা হয়েছিল । এই লক্ষ্য বাস্তবায়নের জন্য দেশের সকল শ্রেণী ও পেশার মানুষের মধ্য থেকে স্বাধীনতা ও প্রগতিকামী নাগরিকদের ঐক্যবদ্ধ করে তাদের রাজনৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে একটি সুশৃংখল রাজনৈতিক সংগঠন গড়ে তোলাই বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের উদ্দেশ্য। ২০১৯ সালের ২১ ডিসেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে মৎস্যজীবী লীগকে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের মর্যাদা দেওয়া হয়। সেই থেকে মৎস্যজীবী লীগ হতদরিদ্র মৎস্যজীবীসহ সমাজের পশ্চাৎপদ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, মৎস্যজীবী লীগকে মৎস্যজীবী সম্প্রদায় ও মৎস্যখাতের বিপুল সম্ভাবনাকে কাজে লাগানের জন্য কাজ করে যেতে হবে। বাংলাদেশের মৎস্যখাতের অসহায় দরিদ্র মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করতে হবে। দেশের যে কোন দুর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। এ সংগঠনের সকল সদস্যকে দেশ ও জনগণের কল্যাণে সর্বদা নিয়োজিত থাকতে হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠতে তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কার্যক্রমকে অব্যাহত রাখতে এ সংগঠনের সবাইকে নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যেতে হবে। কারণ একটি সুন্দর, স্বনির্ভর, দূর্নীতিমুক্ত সোনার বাংলা গড়াই আমাদের সবার লক্ষ্য। সেই সাথে বর্তমান সময়ে সবাইকে করোনার বিস্তার রোধে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার আহ্বান জানান তিনি।
গতকাল শনিবার বিকাল ৫টায় দলীয় কার্যালয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের ১৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে মহানগর মৎসজীবী লীগের উদ্যেগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা ও দপ্তর সম্পাদক মো. মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহানগর মৎস্যজীবী লীগের আহ্বায়ক ইঞ্জিঃ শেখ আব্দুল জব্বার। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মহানগর মৎস্যজীবী লীগের সদস্য সচিব এ্যাড. ইব্রাহীম খলিল ইমন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহানগর মৎস্যজীবী লীগ নেতা সৈয়দ মিজানুল ইসলাম আল জামিল, ইঞ্জিঃ শাকিল হাসান, জামাল হোসেন পলাশ, জাবেদ আহমেদ সাইদ, আলী আকবর, জাহাঙ্গীর চৌধুরী, ইঞ্জিঃ শাকিল আহসান, মল্লিক মাসুম জামান, শেখ মো. আলামিন, নজরুল ইসলাম মীর, মোদাসের কাজী, কামাল বেপারী, রবিউল ইসলাম রবি, আলামিন গাজী, মো. হানিফ, মো. রানা, ইসমাইল মোড়ল, শাহাবুদ্দিন জাহিদ, কালাম মোল্লা, আব্দুর রহিম, মো. শামিম, রুমি শেখ, মো. নাসিম শেখ, সাগর শেখ, মো. আব্দুস সবুর, রতন কুমার, মো. আলাম, শাহাবুদ্দিন, হুমায়ুন কবির, মুশফিকুর, শামসুদ্দোহা বাঙ্গালী ইঞ্জিঃ রব প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভা শেষে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের ১৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা হয়।

আপনার মতামত জানানঃ