সাতক্ষীরা পৌর মেয়র চিশতী নাশকতা মামলায় কারাগারে

সাতক্ষীরা : নাশকতার মামলায় সাতক্ষীরা পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতীর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সাতক্ষীরা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালতের বিচারক মোহাম্মাদ হুমায়ুন কবির জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সাতক্ষীরা জজকোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল লতিফ জামিন নামঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হিসেবে ছিলেন অ্যাডভোকেট ওকালত হোসেন।

এ বিষয়ে তাজকিন আহমেদ চিশতীর পক্ষের আইনজীবী ও সাতক্ষীরা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সৈয়দ ইফতেখার আলী বলেন, ‘২৪ ডিসেম্বরের ঘটনায় তাকে আসামি করা হয়েছে। অথচ তাজকিন আহমেদ চিশতী এবং তার মায়ের অসুস্থতাজনিত কারণে গত ২২ ডিসেম্বর ভারতে গমন করেন এবং ফিরে আসেন ২৬ ডিসেম্বর। তারপরও তাকে ওই মামলা আসামি করা হয়েছে। পাসপোর্টের ফটোকপিসহ ভারতে যাওয়ার এবং অবস্থানের সকল প্রমাণ কোর্টে উপস্থাপন করা হলেও তার জামিন নামঞ্জুর করেন আদালত। গত ২৪ ডিসেম্বর ২০২২ শনিবার সকালে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন, খালেদা জিয়াসহ আলেম ওলামাদের মুক্তিসহ ১০ দফা দাবিতে সাতক্ষীরায় বিক্ষোভ করে জামায়াত। সে সময় নাশকতা সৃষ্টির অভিযোগে ১৬ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় সদর থানা পুলিশের উপপুলিশ পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে সাতক্ষীরা পৌর মেয়র, পৌর বিএনপির সদস্য সচিব তাজকিন আহমেদ চিশতী ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুর রউফসহ অজ্ঞাত ২০০ ব্যক্তিকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর জি আর ৯৬২/২২।

ওই মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে হাইকোর্ট তাকে নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। সে অনুযায়ী মঙ্গলবার সাতক্ষীরা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করেন।