খুপড়িঘরের রুটি বিক্রেতা রিক্তা এখন ফুলতলার ইউপি সদস্য

তাপস কুমার বিশ্বাস, ফুলতলা (খুলনা)// খুলনার ফুলতলা গরুহাট এলাকায় রাস্তার পাশে খুপড়িঘরে রুটি বিক্রেতা মোছাঃ রিক্তা ইসলাম (২৭) সদ্য সমাপ্ত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচিত মেম্বার। ওই ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা আসন (৪,৫ ও ৬নং ওয়ার্ড) থেকে তিনি বই প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। গত ৬ বছর ধরে রাস্তার পাশে খুপড়িঘরে রুটি বানিয়ে বিক্রি করেন তিনি।

ফুলতলার পয়গ্রামের টাইলস শ্রমিক ইমরান শেখ (৩০) এর সাথে ১০ বছর পূর্বে বিয়ে হয় গরুহাট এলাকায় চায়ের দোকানদার মোঃ লিয়াকত খা (৬৫) এর অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া কন্যা মোছাঃ রিক্তা ইসলাম এর সাথে। আর্থিক অভাব অনাটনের কারণে রিক্তা ইসলাম নিজেই গরুহাট এলাকায় একটি খুপড়িঘরে রুটি বানিয়ে বিক্রি শুরু করেন। তাদের একমাত্র কন্যা তাবাচ্ছুম বুশরা (৭)  পাশ্ববর্তী মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী। পয়গ্রাম তাঁজপুর এলাকার অসহায় মানুষের প্রয়োজনীয় ত্রাণ ও সরকারি সহযোগিতা থেকে বঞ্চিত থাকায় রিক্তার মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। তিনি প্রস্তুতি নিতে থাকেন নির্বাচনের। আর উৎসাহ জোগান এবং সহযোগিতা করেন তাঁর পিতা লিয়াকত খা ও সাবেক মেম্বার মোল্যা হেদায়েত হোসেন লিটু। গত ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ফুলতলার সদর ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা আসন (৪,৫ ও ৬নং ওয়ার্ড) থেকে বই প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে জয়ী হন।

রিক্তা ইসলাম জানালেন, উপরে আল্লাহ আর নিচে সাধারণ মানুষের ভালোবাসার কারণে আমি নির্বাচিত হতে পেরেছি। আমি কোনো রাজনীতির সাথে জড়িত নই। আমার রাজনীতি হবে এলাকার উন্নয়ন ও অসহায় মানুষের দুঃখ-দুর্দশা লাঘব এবং অবহেলিত বস্তিবাসীর উন্নয়ন। তাঁর বিজয়কে ছিনিয়ে নিতে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীর পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে বলে তাঁর অভিযোগ। উপজেলা নির্বাচন অফিসার শেখ জাহিদুর রহমান বলেন, বেসরকারি ফলাফল অনুযায়ী মোছাঃ রিক্তা ইসলাম তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী থেকে ২৮৩ ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।