আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী সামছুদ্দীন দফাদার

রাজীব চৌধুরী, কেশবপুরঃ যশোরের কেশবপুরে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে পুনরায় আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী সামছুদ্দীন দফাদার।তিনি কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্য ও বর্তমান সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে তিনি ইউনিয়নের সকল শ্রেনীপেশার মানুষের নিকট দোয়া ও শুভ কামনা চেয়েছেন। তিনি আবারও নৌকা প্রতীক পাবেন বলে আশাবাদী। ।তিনি জানান তার মূল শক্তি দলীয় নেতাকর্মীসহ ইউনিয়নের ভোটাররা।সামছুদ্দীন দফাদার আগামী নির্বাচনে নির্বাচিত হয়ে সকল অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে চান।তিনি বলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল।আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলে দেশে উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে।তাই শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি কাজ করে যাবেন।

ফুলতলায় অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি// থানা পুলিশ বুধবার সকালে খুলনার ফুলতলার উত্তর আলকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বারান্দা থেকে এক অজ্ঞাতনামা (৭০) বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করে। পরে সুরতহাল ও ময়না তদন্ত শেষে দাফনের জন্য মরদেহ আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামে হস্তান্তর করা হয়। ওসি মোঃ ইলিয়াস তালুকদার জানান, অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ পড়ে আছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার ও মর্গে প্রেরণের ব্যবস্থা করা হয়। অসুস্থতা ও অনাহারে এবং শীতের কারণে মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাত ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হতে পারে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা (নং-২৬) হয়েছে।

 

মোল্লাহাট ডিকেকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অবৈধ অর্থ আদায়ের অভিযোগ

ইউনিক প্রতিবেদক, মোল্লাহাট (বাগেরহাট) :

বাগেরহাট জেলার মোল্লাহাটের দারিয়ালা কাচনা কুশলা (ডিকেকে) মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোল্লা জমির হোসেনের বিরুদ্ধে সরকারি নিয়ম কানুন অমান্য করার মাধ্যমে ওই বিদ্যালয়ের উপবৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের থেকে মাসিক বেতন সহ বিভিন্ন অজুহাতে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ অনিয়ম দুর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে শনিবার দুপুরে অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সমাবেশ করে শিক্ষার্থীরা।

সমাবেশে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা জানায়, উপবৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিষ্ঠানকে মাসিক বেতন সহ অন্যান্য যাবতীয় অর্থ প্রদান বা পরিশোধ করা হয়। সরকারের মহৎ গুণের এ বিষয়টি গোপন করে অন্যায় ভাবে শিক্ষার্থীদের থেকে নিয়মিত মাসিক বেতন সহ অন্যান্য অজুহাতে অর্থ হাতিয়ে নিয়ে চলেছেন প্রধান শিক্ষক। এ অনিয়ম দুর্নীতি ও অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার ধারাবাহিকতায় এবারও পরীক্ষার্থীদের থেকে ৩৫০ টাকা (পরীক্ষার ফিস) ছাড়াও মাসিক বেতন মিলিয়ে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের থেকে ১৭৯০ টাকা আদায় করা হচ্ছে। একইভাবে অন্যান্য শ্রেণির উপবৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের থেকেও অর্থ হাতিয়ে নেওয়া হয়। ইতিমধ্যে কারো কারো কাছ থেকে উক্ত অবৈধ উপায়ে অর্থ নেয়া হয়েছে। এ অবৈধ অর্থ আদায় করতে শিক্ষার্থীদেরকে দাঁড়িয়ে শাস্তি দেয়া সহ বেশি কথা বলা হয় বলেও অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীবৃন্দ।

এ অভিযোগের বিষয় অস্বিকার করে দারিয়ালা কাচনা কুশলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোল্লা জমির হোসেন বলেন, উপবৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ভুল করে হয়তো কেউ মাসিক বেতন সহ টাকা দিয়ে থাকতে পারে। বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে শিক্ষার্থীদের সমাবেশ সম্পর্কে তিনি বলেন, কেন সমাবেশ করেছে তা আমার জানা নেই, এটা শিক্ষার্থীদের বিষয়।

সচেতন মহলের দাবি, সরকারের মহৎ উদ্যোগ গুলো এভাবে গোপন করে যেন কেউ শিক্ষার্থীদের থেকে অর্থ হাতিয়ে নিতে না পারে সে বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ প্রয়োজন।

খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে অন্ধকার গুহা থেকে মুক্ত করেছেন : রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা :

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে অন্ধকার গুহা থেকে মুক্ত করেছেন, অথচ তাঁকে ভয়ংকর পরিণতির দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। যার ফলে খালেদা জিয়া হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টা দিকে ঢাকা জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলামের কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার পর এ কথা বলেছেন তিনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘খালেদা জিয়া মিথ্যা মামলায় তিন বছর ধরে বন্দী রয়েছেন। এরপর তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। আমরা আগেও বলেছি, তাঁকে তিলে তিলে নিঃশেষ করতেই বন্দী করা হয়েছে। এর প্রমাণ হলো, তিনি এখন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘আমরা বারবার বলেছি, উন্নত চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হোক। কিন্তু সরকার নানা অজুহাত দেখিয়ে তাঁর মুক্তির বিষয়টি বিলম্বিত করছে। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে যখন বন্দী ছিলেন, তখন তিনি বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। এমন অনেক দৃষ্টান্ত রয়েছে।’ রিজভী আরও বলেন, খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে অন্ধকার গুহা থেকে মুক্ত করেছেন। অথচ তাঁকে ভয়ংকর পরিণতির দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে।

খালেদা জিয়াকে দ্রুত মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ঢাকা জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে ঢাকা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি মো. সালাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় প্রমুখ।

উল্লেখ, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন। তাঁর শারীরিক নানা জটিলতার মধ্যে এ মুহূর্তে লিভারের সমস্যাই সবচেয়ে প্রকট। মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকদের পরামর্শ হচ্ছে, খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে বিদেশে কোনো ‘অ্যাডভান্স সেন্টারে’ নেওয়া প্রয়োজন। কারণ, এখানকার হাসপাতালগুলো যথেষ্ট যন্ত্রপাতিসমৃদ্ধ নয়। এ ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য বা জার্মানির কোনো হাসপাতাল হতে পারে।
এ ছাড়া খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কেউ যাতে গুজব ছড়িয়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে না পারে, সে জন্য সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে পুলিশকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে দেশজুড়ে গোয়েন্দা তৎপরতাও বাড়ানো হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) একাধিক সূত্র মঙ্গলবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার ২ দিন পর মামলা

ইউনিক প্রতিবেদক, কুমিল্লা :
কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মো. সোহেলকে গুলি করে হত্যার ঘটনার ২ দিন পর মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে কোতোয়ালি মডেল থানায় ওই মামলা করা হয়। কাউন্সিলর সোহেলের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।
মামলায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার আসামিরা হলেন কুমিল্লা নগরের সুজানগর বৌ বাজার এলাকার শাহ আলম (২৮), নবগ্রাম এলাকার সোহেল ওরফে জেল সোহেল (২৮), সুজানগর পানির ট্যাংকি এলাকার মো. সাব্বির হোসেন (২৮), সুজানগর পূর্বপাড়া বৌ বাজার এলাকার সুমন (৩২), তেলিকোনা এলাকার আশিকুর রহমান ওরফে রকি (৩২), সুজানগর পূর্বপাড়া এলাকার আলম (৩৫), জিসান মিয়া (২৮), সংরাইশের মাসুম(৩৯), নবগ্রামের সায়মন(৩০) ও সুজানগরের রনি (৩২)।
মামলার এজাহারে বলা হয়, গত সোমবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কুমিল্লা নগরের পাথুরিয়া পাড়া এলাকার থ্রিস্টার এন্টারপ্রাইজ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ঢুকে আসামিরা কাউন্সিলর মো. সোহেল, তাঁর সহযোগী হরিপদ সাহা, কাউন্সিলরের অনুসারী মাজেদুল হক, মো. রাসেল মিয়া, মো. জুয়েল মিয়া, আওয়াল হোসেন রিজু ও সোহেল চৌধুরীকে গুলি করে। তাঁদের হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কাউন্সিলর মো. সোহেল ও তাঁর সহযোগী হরিপদ সাহাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।
কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনওয়ারুল আজিম মামলা দায়েরের খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কাউন্সিলর সোহেলের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করা এ মামলা দায়ের করেছেন। আমরা আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

মোল্লাহাটে ছিনতাইকারী আটক ও মোটরসাইকেল উদ্ধার

ইউনিক প্রতিবেদক, মোল্লাহাট :

বাগেরহাটের মোল্লাহাট থানা পুলিশের অভিযানে আফজাল মোল্লা (১৯) নামে এক ছিনতাইকারী আটক ও ছিনতাইকৃত মোটরসাইকেল উদ্ধার হয়েছে। সোমবার রাত ৭ টার দিকে উপজেলাধীন জয়ডিহি মা ফিলিং স্টেশনের সামনে মহাসড়ক থেকে উক্ত মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের ঘটনায় ওই রাতেই ছিনতাইকারীকে আটক ও মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। আটক আফজাল মোল্লা উপজেলার কাহালপুর পশ্চিম পাড়া এলাকার মোল্লা গোলাম মোস্তফার ছেলে।
এ ঘটনায় মামলা রুজুসহ আটক ছিনতাইকারীকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
মোল্লাহাট থানা অফিসার ইনচার্জ সোমেন দাশ ও মামলা সূত্র জানা যায়, মটর সাইকেল মালিক মোঃ রুহুল আমিন মোল্লা ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেখে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে ফেনী জেলা থেকে একটি আর ওয়ান ভাইভ (জ-১৫ ঠ৩) মটর সাইকেল ২ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকায় ক্রয় করে। ২২ তারিখ রাত ৭ টার সময় মোল্লাহাট থানাধীন জয়ডিহি মোড় পার হয়ে মা ফিলিং স্টেশনের সামনে পাঁকা রাস্তার উপর পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা ২জন আসামী বাদীর মটর সাইকেলটি ক্রস করে সামনে এসে বাদীর রাস্তা গতিরোধ করে। আসামীরা বাদীকে তার মটর সাইকেল থেকে নামতে বলে। বাদী নামতে রাজি না হলে আসামীরা তাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে বাদীর (জ-১৫ ঠ৩) মটর সাইকেলটি ছিনিয়ে নেয়। বাদীর দায়ের করা এজাহার প্রাপ্ত হয়ে মোল্লাহাট থানা পুলিশ সাড়াসী অভিযান পরিচালনা করে একই রংয়ের গাড়ীসহ আলফাজ মোল্লা (১৯)কে কাহালপুর পশ্চিশপাড়া গ্রাম থেকে আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী জানায় তাঁর সহিত গাড়িটি আসামীর নিজের। সে আরও জানায় ছিনতাই হওয়া মটরসাইকেলটি আসামীর নিজ বাড়ীর বাঁশ ঝাড়ের ভিতর লুকানো আছে। আসামীর দেওয়া তথ্য মতে ছিনাতাই হওয়া মটর সাইকেলটি সোমবার দিবাগত রাত ১.৪৫ টার দিকে উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার আসামীর বিরুদ্ধে মামলা রুজুর পর আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।