কবিগুরুর স্মৃতি বিজড়িত দক্ষিণডিহিই আমাদের গর্ব -সাবেক মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি// খুলনার ফুলতলা উপজেলাধীন কবিগুরুর স্মৃতিধন্য শ্বশুরবাড়ি রবীন্দ্র কমপ্লেক্সে শুরু হলো ৩দিন ব্যাপী ১৬১তম রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী ও লোকমেলা। রোববার বিকাল সাড়ে ৪টায় বেলুন উড়িয়ে ও ফিতা কেটে তিন দিনব্যাপী লোকজ মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। খুলনা জেলা প্রশাসন আয়োজিত রবীন্দ্র কমপ্লেক্সের ছবেদা তলায় মৃণালিনী মঞ্চের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি। এ সময় তিনি বলেছেন, কবিগুরুর স্মৃতি বিজড়িত দক্ষিণডিহি আমাদের গর্ব। এর মাধ্যমে আমাদের সম্মান ও পরিচিতি বৃদ্ধি পেয়েছে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কোন অঞ্চল কোন গোষ্ঠীর কোন সম্প্রদায়ের নয়। তিনি গোটা জাতির, গোটা বিশ্বের কবি। তার শ্বশুরবাড়ি রবীন্দ্র কমপ্লেক্সকে খুব শীগ্রই আধুনিক ও পূর্ণাঙ্গ কমপ্লেক্সে রূপ দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। খুলনা জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব অসীম কুমার দে, পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত ডিআইজি মোঃ ওলিয়ার রহমান, ফুলতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আকরাম হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মুকুল কুমার মৈত্র, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন ফুলতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ওসি মোঃ ইলিয়াস তালুকদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মৃনাল হাজরা, ফুলতলা ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবুল বাসার। “রবীন্দ্র সাহিত্যে সম্প্রীতি ও মানবতাবোধ” শীর্ষক আলোচনা করেন শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. রফিকউল্লাহ খান। অনুষ্ঠান উপস্থাপন করেন মিনা মিজানুর রহমান, অনুপম মিত্র ও রাদিয়া ইসলাম। পরে ফুলতলার স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় উদ্বোধনী সঙ্গীত, কবিতা আবৃতি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

মোংলায় ইউপি মেম্বার জাহাঙ্গীর মল্লিকের বিরুদ্ধে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

মোংলায় ইউপি মেম্বার জাহাঙ্গীর মল্লিকের বিরুদ্ধে গ্রামবাসীর মানববন্ধন, জমি ফেরতসহ অপকর্মের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ভুক্তভোগীদের
মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ মোংলায় ইউপি মেম্বার জাহাঙ্গীর মল্লিকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন ভুক্তভোগী হিন্দু, মুসলিম এবং খ্রিস্টান পরিবারের বিভিন্ন বয়সের লোকজন। মেম্বার জাহাঙ্গীরের অত্যাচার-নির্যাতন থেকে পরিত্রাণ পেতে ও তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে রবিবার সকালে এ মানববন্ধন করেন মালগাজী গ্রামবাসী। সকাল ১০ টায় উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের চৌকিদার মোড়ে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে ভুক্তভোগী কোহিনুর বেগম বলেন, জাহাঙ্গীর মেম্বার আমার জমিজমা দখল ও জমি থেকে বেআইনিভাবে বালু উত্তোলন করে ৫০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এসবের প্রতিবাদ করলে সে তার বাহিনী নিয়ে আমাদের মারধরসহ হত্যার হুমকি দিয়ে আসছেন। আমরা অসহায় গ্রামবাসী মেম্বার জাহাঙ্গীরের প্যানেল চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণসহ তার নানা অপকর্মের বিচারের দাবী জানাচ্ছি। ভুক্তভোগী মারিয়া সরকার বলেন, আমাকে মিথ্যা বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমাকে নির্যাতনসহ আমার ১০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন ইউপি মেম্বর জাহাঙ্গীর। তার বিরুদ্ধে বর্তমানে একটি ধর্ষণ মামলাও রয়েছে। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে মেম্বার জাহাঙ্গীরের সকল অপকর্মে বিচারের দাবী জানাচ্ছি। উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন বলেন, জাহাঙ্গীর মেম্বারের বাবা সাত্তার মল্লিক একজন রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী ছিলেন। সেই যুদ্ধাপরাধীর ছেলে জাহাঙ্গীর মেম্বরও পাকিস্তানী দোসরদের মতই নির্যাতন চালাচ্ছেন মালগাজী গ্রাম জুড়ে। তার নির্যাতনে গ্রামের সাধারণ লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। নব্য আওয়ামী লীগ জাহাঙ্গীর মেম্বারের দলীয় পদ থেকে বহিষ্কারের জন্য উর্ধতন নেতৃবৃন্দের প্রতি দাবী জানাচ্ছি। মেম্বারের ষড়যন্ত্রে প্রায় ২ কোটি টাকার জমি খুইয়ে সর্বশাম্ত হয়ে পড়া ভুক্তভোগী জমির মালিক নরোত্তম বিশ্বাস মানববন্ধনে বলেন, ক্ষমতার দাপটে আমার বাবা কৃষ্ণপদ বিশ্বাসকে কব্জায় নিয়ে আমার নিজ ও আমার ছোট ভাই প্রেমানন্দ বিশ্বাসের দলিল নামীয় জমি জবর দখল এবং বিক্রি করে ২ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন জাহাঙ্গীর মেম্বার। আমি আমাদের দুই ভাইয়ের জমি ফেরতসহ তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।
জাহাঙ্গীর মল্লিক উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও একই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার বলেন, ইউপি মেম্বার জাহাঙ্গীর মল্লিকের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের তদন্তে সত্যতা পেলে তার মেম্বার পদের বিষয়েও সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হবে।

ফুলতলায় ঘেরের মাছ লুট থানায় অভিযোগ

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি// ফুলতলায় শনিবার সকালে গাড়াখোলা গ্রামের সেকেন্দার আবু জাফর এর ঘেরের লক্ষাধিক টাকার মাছ লুট এবং ঘের পাড়ের কলাগাছ কেটে ক্ষতিসাধন করে। এ ব্যাপারে ফুলতলা থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

অভিযোগে জানা গেছে, গাড়াখোলা এলাকার ইয়াসিন সরদার ও তার সহযোগী মূসাসহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন সেকেন্দার আবু জাফর এর ঘেরের লক্ষাধিক টাকার মাছ লুট এবং ঘের পাড়ের কলাগাছ কেটে ক্ষতিসাধন করে। বিষয়টি জানতে গেলে ইয়াছিন ও মূসা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ও মারতে উদ্যত হয় এবং বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এ ব্যাপারে ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইলিয়াস তালুকদার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফুলতলায় স্বরস্বতীর মূর্তির মাথা কাটার কথা আদালতে স্বীকার করেছে অনিক

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি// ফুলতলা এম এম কলেজ সার্বজনীন পূজা মন্দিরের দেবী স্বরস্বতীর মূর্তির মাথা কেটে নেয়ার সময় হাতে নাতে আটক অনিক মন্ডল আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। এলাকায় শান্তি শৃংঙ্খলা বজায় রাখতে শনিবার বিকালে মন্দির চত্ত¡রে কমিউনিটি বিট পুলিশের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নিরঞ্জন কুমার রায় বলেন, ফুলতলা এম এম কলেজ সার্বজনীন পূজা মন্দিরে স্বরস্বতী মূর্তির মাথা কেটে নেয়ার ঘটনায় থানায় দায়েরকৃত মামলায় আটক অনিক মন্ডলকে শনিবার দুপুরে খুলনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট নয়ন বিশ্বাস এর আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আসামী অনিক মন্ডল দেবীর মাথা কেটে নেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে। পরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। এদিকে এলাকায় শান্তি শৃংঙ্খলা বজায় রাখতে শনিবার বিকালে মন্দির চত্ত¡রে কমিউনিটি বিট পুলিশের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবোধ কুমার বসুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওসি মোঃ ইলিয়াস তালুকদার, হিন্দু মহাজোটের জেলা সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক প্রশান্ত কুন্ডু, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি গৌতম কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক সনজিৎ বসু, অজয় সাহা, ইউপি সদস্য জিএম ইমদাদুল হক মিটুল, ডালিয়া বেগম, রায়হান সরদার প্রমুখ। প্রসঙ্গতঃ শুক্রবার দুপুরে ফুলতলা এম এম কলেজ সার্বজনীন পূজা মন্দিরের দেবী স্বরস্বতীর মূর্তির মাথা কেটে নেয়ার সময় হাতে নাতে আটক হয় অনিক মন্ডল। সে যশোর অভয়নগর উপজেলার ধুলগ্রামের অসীম মন্ডলের পুত্র।

 

দক্ষিণডিহিতে রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী’র তিন দিনের অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন আজ

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি// বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬১ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে খুলনার ফুলতলা উপজেলার দক্ষিণডিহিস্থ ‘রবীন্দ্র কমপ্লেক্সে’-এ খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী আলোচনা সভা, লোকমেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধন আজ (০৮-০৫-২২, রোববার)। বিকাল ৪টায় মৃণালিনী মঞ্চে জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি । মুখ্য আলোচক থাকবেন শেখ হাসিনা বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. রফিকউল্লাহ খান। বিশেষ অতিথি থাকবেন সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব অসীম কুমার দে, ফুলতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আকরাম হোসেন। স্বাগত বক্তৃতা করবেন ইউএনও সাদিয়া আফরিন।

২য় দিন জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি থাকবেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইসমাইল হোসেন, এনসিডি মুখ্য আলোচক হিসাবে উপস্থিত থাকবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক মুহম্মদ নুরুল হুদা। বিশেষ অতিথি থাকবেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার মোঃ মাসুদুর রহমান ভুঞা, সরকারি ব্রজলাল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শরীফ আতিকুজ্জামান, খুলনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহাবুব হাসান, বিপিএম।

সমাপনী দিনে জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সাবেক সচিব মিস আকতারী মমতাজ। মুখ্য আলোচক হিসাবে উপস্থিত থাকবেন বিশিষ্ট লেখক ও রবীন্দ্র গবেষক অধ্যাপক অসিতবরণ ঘোষ। বিশেষ অতিথি থাকবেন আযম খান সরকারি কমার্স কলেজর অধ্যক্ষ প্রফেসর কার্তিক চন্দ্র বিশ্বাস, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর খুলনার আঞ্চলিক পরিচালক মিস আফরোজা খান মিতা, খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম। এছাড়াও প্রতিদিন আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও লোকমেলা অনুষ্ঠিত হবে।