ঘুষ গ্রহণের অগিযোগে সাব-রেজিস্ট্রারসহ ৪ জন বরখাস্ত

ইউনিক ডেস্ক : ঘুষ নেয়াসহ বিভিন্ন অভিযোগে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমারসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্তের জন্য সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া অন্য কর্মচারীরা হলেন, অফিসের দায়িত্বরত মহরার আব্দুস সালাম, নকল নবিশ সুমন আহম্মেদ ও দৈনিক মজুরীর চুক্তিতে অফিস সহায়ক আনিছুর রহমান।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে, জেলা রেজিষ্ট্রার আবুল কালাম মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জেলা রেজিষ্ট্রার স্বাক্ষরিত এক পত্রে তাদের ৪ জনকে বরখাস্ত করে বিভাগীয় শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আদেশপত্রটি শাহজাদপুরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

জেলা রেজিস্ট্রার জানান, জমিদাতা ও দলিল গ্রহীতার সমস্যায় ফেলে অবাধে ঘুষ বাণিজ্য, দালাল চক্রের দৌরাত্ব বৃদ্ধিতে সহায়তা, জমির প্রকৃত বাজার মূল্য কম দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি দেয়ার অভিযোগ আসে। এছাড়া, কতিপয় অসাধু দলিল লেখকের সঙ্গে ঘুষের ভাগবাটোয়ারা, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুমতি ছাড়া দলিল সম্পাদন বন্ধ রেখে অফিসে সংবাদ সন্মেলন ও গাছ বিক্রির অভিযোগে সাব রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাসসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত হয়। তদন্তে দোষী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়।

গেল ১৫ই আগস্ট ঘুষ গ্রহণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। এতে, ক্ষুব্ধ হয়ে সাব-রেজিস্ট্রার সুব্রত কুমার দাস গেল ১লা সেপ্টেম্বর অফিস চলাকালীন সময়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অনুমতি ছাড়াই নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন।

অভিযোগের বিষয়ে, সুব্রত দাস বলেন, ‘এই অফিসের কিছু অসাধু দলিল লেখক আমাকে সামাজিকভাবে হেয়-প্রতিপন্ন করতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ করেছে।’

আপনার মতামত জানানঃ