বটিয়াঘাটার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা ওমর ফারুক আর নেই

বটিয়াঘাটা : সকলকে অশ্রুসিক্ত করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন বটিয়াঘাটার অগ্রজ সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওমর ফারুক (৭৫)। তিনি সোমবার রাত ৯ টার দিকে শ্বাসকষ্ট জনিত কারনে মৃত্যুবরণ করেন। ( ইন্না- —- রাজিউন)। জীবদ্দশায় তিনি ১ স্ত্রী, ৪ পুত্র ও ৫ কন্যা সন্তান সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। সোমবার রাতেই সে বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়লে সঙ্গে সঙ্গে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় মৃত্যুবরন করেন। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে ওই রাতেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, সরকারি কর্মকর্তা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ মরহুমের বাড়ীতে ছুঁটে যান। গতকাল মঙ্গলবার বাদজোহর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ের সামনে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তার মরদেহ আনলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নজরুল ইসলাম ও থানার ওসি মোঃ রবিউল কবিরের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকশ দল জাতীয় পতাকা আচ্ছাদন পূর্বক গার্ড অব অনার প্রদান করেন। পরবর্তীতে তার বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের উপর এক স্মৃতিচারণ আলোচনা শেষে কেন্দ্রীয় উপজেলা ঈদগাহ্ ময়দানে জানাযা শেষে কেন্দ্রীয় গোরস্থানে সমাহিত করা হয়। সকল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা শেখ হারুনুর রশিদ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সরদার মাহাবুবার রহমান, মহানগর কমান্ডার অধ্যাঃ আলমগীর হোসেন, মহানগর বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আফজালুর রহমান, জেলা আ’লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান জামাল, সাবেক ত্রান ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক এ্যাড. নিমাই চন্দ্র রায়, সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. নবকুমার চক্রবর্তী, উপজেলা চেয়ারম্যান ও আ’লীগের সভাপতি মোঃ আশরাফুল আলম খান, ইউপি চেয়ারম্যান মনোরঞ্জন মন্ডল, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ আফজাল হোসেন ও বিনয় কৃষ্ণ সরকার, ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় নিতাই গাইন ও চঞ্চলা মন্ডল, ওসি (তদন্ত) মোস্তফা হাবিবুল্লাহ, জেলা বিএনপি নেতা সুলতান মাহমুদ, উপজেলা বিএনপির সভাপতি খাইরুল ইসলাম জনি খান, সম্পাদক ফারুক খন্দকার, জাতীয় পার্টির উপজেলা সভাপতি মোঃ মতোওয়ালী শেখ, সম্পাদক এ্যাড. প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রতাপ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রজিৎ টিকাদার, জেলা যুবলীগ নেতা সরদার জাকির হোসেন ও জামিল খান, বীরমুক্তিযোদ্ধা যথাক্রমে নিরঞ্জন রায়, কার্তিক বিশ্বাস, আব্দুল মান্নান সরদার, দেলোয়ার হোসেন, জিয়াউর রহমান জিকু, মোঃ কামরুল ইসলাম, নির্মল অধিকারী, জাপা নেতা সাদ্দাম হোসেন, সাংবাদিক আহসান কবির সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

আপনার মতামত জানানঃ