মাদক-ভূমিদস্যু-সন্ত্রাসীদের যুবলীগে জায়গা নেই : শেখ সোহেল

ইউনিক প্রতিনিধি : ‘আমি শক্ত ভাষায় একটি কথা বলতে চাই। যারা পরিবেশ নষ্ট করবে তাদের যুবলীগে কোনো জায়গা থাকবে না। আর একটি বিশেষ কথা মাদক, ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী আগামীতে যারা নেতৃত্বে আসবে এ যুবলীগে তাদের কোনো জায়গা হবে না। খুলনাসহ বিভাগের ১০ জেলার যুবলীগ নেতাদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতাদের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বিসিবি পরিচালক বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র শেখ সোহেল উদ্দিন এ কথা বলেন। শুক্রবার দুপুরে খুলনার একটি অভিজাত হোটেলে বিভাগীয় এ সভার আয়োজন করে মহানগর ও জেলা যুবলীগ। এ সময় সভায় অংশ নেওয়া যুবলীগ নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা ঈমানের দিকে শক্ত থাকবেন। আপনাদের কোনো কার্যকলাপের জন্য আমার কিংবা এ বিভাগে যারা দায়িত্বে আছেন তাদের গায়ে দাগ যেন না লাগে। এ জায়গায় পরিষ্কার থাকবেন। সাংগঠনিক কাজে সহযোগিতা করবেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ এমপি, ইঞ্জিনিয়ার মৃণাল কান্তি জোদ্দার ও মো. আনোয়ার হোসেন। সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুব্রত পাল। সঞ্চালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকোট ড. মো. শামীম আল সাইফুল সোহাগ, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী ও আন্তর্জাতিক সম্পাদক কাজী সারোয়ার হোসেন। সভার সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুর রহমান পলাশ ও মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা দেলোয়ার শাহাজাদা, অ্যাডভোকেট নবিরুজ্জামান বাবু, এনামুল হক সোহাগ, বাবলু রহমান বাবলু, কাজী বশির আহম্মেদ, ভিপি মিরান, তারিক আল মামুন প্রমুখ। যুবলীগের বিভাগীয় মতবিনিময় সভায় সংগঠন পরিচালনায় প্রতিবন্ধকতা ও উত্তোরণের পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করেন কেন্দ্রীয় নেতারা। এ সময় তারা বর্তমান প্রেক্ষাপটে যুবলীগের ভূমিকা নিয়েও দিকনির্দেশনা দেন। যুবলীগকে তৃণমূলে আরও সুসংগঠিত গতিশীল করার আহ্বান জানান নেতারা। সভায় মহানগর ও খুলনা বিভগের ১০ জেলা ইউনিটের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও দপ্তর সম্পাদকরা অংশ নেন।

আপনার মতামত জানানঃ