মোংলায় গাছে ঝুলন্ত এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : মোংলায় গাছে ঝুলন্ত স্বপন মন্ডল (৫০) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে শহরতলীর কানাইনগর গ্রামের মামা সুরেশ বিশ্বাসের বাড়ীর পুকুর পাড়ের একটি গাছে রশি দিয়ে ফাঁস লাগানো ঝুলে থাকা স্বপন মন্ডলের (৫০) লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

তবে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা মতে এটি আত্মহত্যা বলে জানিয়েছেন মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী। তিনি বলেন, আপতত আত্মহত্যা বলেই মনে হচ্ছে। ময়না তদন্তের পরই স্পষ্ট হওয়া যাবে আত্মহত্যা নাকি অন্যকিছু। এছাড়া আত্মীয়-পরিজনের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধও থাকতে পারে তাই এ বিষয়টিও আমরা তদন্ত করে দেখবো।
এদিকে এ নিয়ে স্বপনের আত্মীয় ও স্থানীয়দের মাঝে জমিজমা সংক্রান্ত পরস্পর বিরোধী বক্তব্যও রয়েছে।
এদিকে স্বপনের বৃদ্ধা মা বলেন, রাতে স্বপন তার কাছেই ঘুমিয়ে ছিলেন, গভীর রাতে পাশ থেকে কখন যে উঠে গেছে তা তিনি টের পাননি। সকালে দেখা গেছে ছেলের লাশ গাছে ঝুলে আছে। তবে কেউ তাকে মারেনি, মাথায় সমস্যা ছিল তাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলেও দাবী তার মার।

উল্লেখ্য, জন্মসূত্রে স্বপন মন্ডল উপজেলার চাঁদপাই ইউনিয়নের কালীকাবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা। তবে র্দীঘ ৩০ বছর যাবৎ ভারতে যাওয়া-আসা ও সেখানে বসবাস করার ফলে তার রয়েছে ভারতের নাগরিকত্ব। গত তিন মাস আগে সে ভারত থেকে মোংলায় তার পৈত্তিক বাড়ীতে বেড়াতে আসেন। বেড়াতে এসে থাকতেন তার মামা জীতেন ঘোষামীর বাড়ীতে। আর ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায় আরেক মামা সুরেশ বিশ্বাসের বাড়ীর গাছে।

আপনার মতামত জানানঃ