নবীগঞ্জে দু’পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নিহত ১, পুলিশসহ আহত ২০

মিজানুর রহমান সোহেল নবীগঞ্জঃ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ বিবদমান দু’পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে সবুর আলী নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এতে পুলিশ কনষ্টেবলসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। প্রায় ২০/২৫টি বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়।
শনিবার সকালে পুর্ব শত্র“তার জের ধরে নবীগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের কানাইপুর গ্রামের আব্দুল বারিকের পক্ষের লোকজন ও সাবেক মেম্বার ফরজ আলীর লোকজনের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র সংর্ঘষ বাধেঁ। সংঘর্ষে পিকল, লাটিসোটাসহ ইটপাটকেল ব্যবহার করা হয়। উক্ত সংঘর্ষে কানাইপুর গ্রামের মৃত তকদির আলীর ছেলে সবুর আলী সহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়। ২০/২৫টি বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থ গিয়ে সংর্ঘষ নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টাকালে ১ জন কনষ্টেবল আহত হয়। স্থানীয় লোকজন আহত সবুর আলীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। অন্যান্য আহতদের নবীগঞ্জ, হবিগঞ্জ হাসপাতালসহ প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সবুর আলী নিহতের খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। পুলিশের গ্রেফতার এড়াতে প্রতিপক্ষের লোকজন বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যায়। এদিকে পুলিশ নিহত সবুর আলীর ছুরতহাল তৈরী শেষে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ মর্গে প্রেরন করেছে।
এলাকায় উত্তোপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ এসএম আতাউর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

আপনার মতামত জানানঃ