মার্কিং স্থাপন, শুরু হয়নি উদ্ধার কাজ

মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ায় সিমেন্টের কাচামাল বোঝাই কার্গো জাহাজ ডুবি
আবু হোসাইন সুমন, মোংলা প্রতিনিধিঃ মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়া এলাকায় প্রায় ৮শ মেট্টিক টন স্লাগ (সিমেন্ট তৈরির কাচামাল) বোঝাই একটি কার্গো জাহাজ ডুবে গেছে। বিদেশী জাহাজের সাথে ধাক্কা লেগে তলা ফেটে রবিবার রাত ৯টার দিকে কার্গো জাহাজটি নদীতে ডুবে যায়। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। বন্দর চ্যানেলে ডুবে যাওয়া জাহাজটি উদ্ধারে এখন পর্যন্ত কোন তৎপরতা শুরু করেনি মালিক পক্ষ। বন্দরের হারবার বিভাগ বলছে জাহাজটি মুল চ্যানেলের বাহিরে ডুবেছে। এতে চ্যানেল ঝুকিমুক্ত ও নিরাপদ রয়েছে।
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার বিভাগ জানায়, বন্দরের পশুর চ্যানেলের হাড়বাড়িয়ার ৪ নম্বর এ্যাংকোরেজে অবস্থানরত এম,ভি ‘আতিকিএসবি’ নামক বিদেশী জাহাজ থেকে প্রায় ৮শ মে: টন স্লাগ-বাল্ক (সিমেন্ট তৈরির কাজে জাহাজে আমদানীকৃত ঢালাই পণ্য) বোঝাই করে কার্গো জাহাজ এম,ভি সেবা রবিবার রাতে ছেড়ে যাওয়ার সময় বিদেশী ওই জাহাজের সাথে ধাক্কা লাগে। ধাক্কায় কার্গো জাহাজটির তলা ফেলে গেলে কার্গো জাহাজের মাস্টার নজরুল ইসলাম জাহাজটি দ্রুত চালিয়ে মুল চ্যানেলের বাহিরে চরের দিকে চালাতে থাকে। চরের কাছাকাছি যেতেই জাহাজটি পুরোপুরি নদীতে নিমজ্জিত হয়। কার্গো জাহাজজের মাস্টার নজরুল ইসলাম বলেন, খুলনার রুপসাস্থ শুনসিং সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর ৮শ মে: টন স্লাগ নিয়ে রবিবার রাত ৯টার দিকে বিদেশী জাহাজটির গা/পাশ থেকে কার্গো জাহাজটি ছাড়লে পানির প্রচন্ড ¯্রােতের টানে বিদেশী জাহাজের সাথে আমার কার্গোর ধাক্কা লাগে। এতে সঙ্গে সঙ্গে কার্গোটির তলা ফেলে যায়। আমি দ্রুত জাহাজটি চরের দিকে চালিয়ে নিয়ে যাই। চরের কাছাকাছি যাওয়ার আগেই জাহাজটি পুরোপুরি নদীতে ডুবে যায়। ওই জাহাজে আমিসহ থাকা ৯ জন ষ্টাফ সাতরিয়ে পার্শ্ববর্তী অপর আরেকটি কার্গোতে আশ্রয় নিই। পরে মালিক পক্ষ খবর পেয়ে সোমবার সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় ডুবরিদের দিয়ে ডুবন্ত জাহাজটিতে মার্কিং স্থাপন করেছেন। বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার ওলিউল্লাহ বলেন, কার্গো জাহাজটি মুল চ্যানেলের বাহিরে ডুবেছে, ফলে চ্যানেল ঝুকিমুক্ত, সচল ও নিরাপদ রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ইতিমধ্যে কার্গো জাহাজ মালিককে দ্রুত জাহাজটি উদ্ধারের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ