২৬ ফেব্রুয়ারি টিকা ক্যাম্পেইনের লক্ষ্য শ্রমজীবী মানুষ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী, টিকা নিতে যা যা লাগবে।

ইউনিক প্রতিবেদক :

‘আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে এক কোটি মানুষকে করোনা টিকা দিতে চায় সরকার। সেদিন টিকাদানের মূল লক্ষ্য শ্রমজীবী মানুষ। কারণ, তাদের অনেকেই এখনও টিকা নেননি।’ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনসে (বিসিপিএস) সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা একদিনে এক কোটি মানুষকে টিকা দিতে চাই। বিশেষ করে শ্রমজীবী মানুষকে। কারণ, শ্রমজীবীদের অনেকেই এখনও টিকা নেননি।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘২৬ তারিখের পরও টিকা কার্যক্রম চলবে। তখন দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে। তাই এখনও যারা টিকা নেননি, দ্রুত নিয়ে নেন। ২৬ ফেব্রুয়ারি দেশের সব ইউনিয়নে টিকা দেওয়া হবে। কেন্দ্রের নাম ইউনিয়ন পরিষদ থেকে জানিয়ে দেওয়া হবে। ওই দিন ভোটার আইডি কার্ড, জন্মনিবন্ধন সনদ নিয়ে গেলেই টিকা পাবেন নাগরিকরা। এছাড়া যাদের ভোটার আইডি কার্ড, জন্মনিবন্ধন নেই, তারা নিজের ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর দিয়েও টিকা নিতে পারবেন। মোবাইল না থাকলে তার নাম-ঠিকানা নিয়ে টিকা দেওয়া হবে।’

১২ বছরের কম বয়সী শিশুদের টিকা দেওয়ার বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শিশুদের টিকা দেওয়ার বিষয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনও অনুমোদন দেয়নি। অনুমোদন পেলে দেওয়া হবে। এখন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের মাস্ক পরতে হবে।’

এখন করোনা পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেকটা ভালো জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘গতকাল (সোমবার) সংক্রমণ এবং আক্রান্তের সংখ্যা কম ছিল। তাই আমরা আজ  থেকে স্কুল-কলেজ খুলে দিয়েছি।’