জিকে শামীমের সহযোগী ফজলুল করিমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

চট্টগ্রাম ব্যুরো: বহুল আলোচিত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) দুর্নীতি মামলার পলাতক আসামি জিকে শামীমের সহযোগী ফজলুল করিম চৌধুরী স্বপন তিন কোটি টাকার প্রতারণার একটি মামলায় আদালতে জামিনের পর পুনরায় সাক্ষী গ্রহণের সময় উপস্থিত না থাকায় তার বিরুদ্ধে আবারো গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম মহানগর ২য় যুগ্ন দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক নুরে আলম ভূঁইয়া এ আদেশ জারি করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায় তিন কোটি টাকার চেক প্রতারণার মামলায় চট্টগ্রাম মহানগর ২য় যুগ্ন দায়রা জজ আদালতের বিচারাধীন ২৪৭২/২০১৮ নং মামলায় ফজলুল করিম চৌধুরী স্বপন জামিন পাওয়ার পর বাদী পক্ষের আইনজীবী আসামি জামিনের পর পলাতক হওয়ার আশঙ্কা আদালতকে অবহিত করে সাক্ষী গ্রহণের আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত বাদী পক্ষের আবেদন মঞ্জুর করেন। আদালতে সাক্ষী গ্রহণের সময় আসামি ফজলুল করিম চৌধুরী স্বপন আদালতে উপস্থিত না থাকায় আদালত আসামির বিরুদ্ধে পুনরায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট প্রকৃতি চৌধুরী ছোটন প্রতিবেদককে জানান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দুর্নীতি বিরোধী শুদ্ধি অভিযানে গ্রেফতার কথিত যুবলীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া শামীমকে (জিকে শামীম) ও ফজলুল করিম চৌধুরী স্বপনের বিরুদ্ধে ভুয়া তথ্য প্রদান করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ষষ্ঠ একাডেমিক ভবন নির্মাণের কাজ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে দুদক চট্টগ্রাম -২ কর্তৃক মামলা নং-০২, তাং-২২/১১/২০২০ দায়ের করা হলে ১ নং আসামীকে গ্রেপ্তার দেখানো হলেও ২নং আসামী দুদককের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

তিনি আরো জানান অদ্য দুদকের দায়েরকৃত মামলার পলাতক আসামী ফজলুল করিম চৌধুরী স্বপন চেক প্রতারণার মামলায় চট্টগ্রাম মহানগর ২য় যুগ্ন দায়রা জজ আদালতের আত্মসমর্পণ করলে আমরা বিষয়টি দুদকের কোর্ট ইন্সপেক্টর ইমরান হোসেন ও জি আরও আব্দুল লতিফকে অবহিত করার পরও তারা পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তারের কোন প্রকার পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় আসামি চেক প্রতারণার মামলায় সাক্ষ্য প্রদান না করে পালিয়ে যান।

আপনার মতামত জানানঃ