কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার ২ দিন পর মামলা

ইউনিক প্রতিবেদক, কুমিল্লা :
কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মো. সোহেলকে গুলি করে হত্যার ঘটনার ২ দিন পর মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে কোতোয়ালি মডেল থানায় ওই মামলা করা হয়। কাউন্সিলর সোহেলের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।
মামলায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলার আসামিরা হলেন কুমিল্লা নগরের সুজানগর বৌ বাজার এলাকার শাহ আলম (২৮), নবগ্রাম এলাকার সোহেল ওরফে জেল সোহেল (২৮), সুজানগর পানির ট্যাংকি এলাকার মো. সাব্বির হোসেন (২৮), সুজানগর পূর্বপাড়া বৌ বাজার এলাকার সুমন (৩২), তেলিকোনা এলাকার আশিকুর রহমান ওরফে রকি (৩২), সুজানগর পূর্বপাড়া এলাকার আলম (৩৫), জিসান মিয়া (২৮), সংরাইশের মাসুম(৩৯), নবগ্রামের সায়মন(৩০) ও সুজানগরের রনি (৩২)।
মামলার এজাহারে বলা হয়, গত সোমবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কুমিল্লা নগরের পাথুরিয়া পাড়া এলাকার থ্রিস্টার এন্টারপ্রাইজ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ঢুকে আসামিরা কাউন্সিলর মো. সোহেল, তাঁর সহযোগী হরিপদ সাহা, কাউন্সিলরের অনুসারী মাজেদুল হক, মো. রাসেল মিয়া, মো. জুয়েল মিয়া, আওয়াল হোসেন রিজু ও সোহেল চৌধুরীকে গুলি করে। তাঁদের হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কাউন্সিলর মো. সোহেল ও তাঁর সহযোগী হরিপদ সাহাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।
কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনওয়ারুল আজিম মামলা দায়েরের খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কাউন্সিলর সোহেলের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করা এ মামলা দায়ের করেছেন। আমরা আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

আপনার মতামত জানানঃ