কৃষি জমি বিপন্ন করে বালু উত্তোলনকারী ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে -নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি

ফুলতলা অফিসঃ সাবেক মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি বলেছেন, বাঁচতে হলে বৃক্ষের আবাদ বাড়াতে হবে। বৃক্ষ একদিকে অক্সিজেন ফ্যাক্টরী, অন্যদিকে কাঠ ও ফল তথা আহার জোগায়। বৃক্ষের আবাদ বাড়াতে কৃষি যোগ্য জমিতে নার্সারীর প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। এ অঞ্চলে শিল্পপতিদের  কারণে কৃষি যোগ্য জমি দিন দিন কমে যাচ্ছে। আবার এক শ্রেণির ভ‚মি দস্যুরা কৃষি জমি ক্রয় করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে স্বল্পমূল্যে পাশের জমি দখল করছে। কৃষি জমি বিপন্ন করে বালু উত্তোলনকারী ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শুক্রবার সকাল ১০টায় খুলনার ফুলতলা বেজেরঙাঙ্গা বাসষ্টান্ড চত্বরে অনুষ্ঠিত ফলদ বৃক্ষ মেলা ও সেমিনারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ফুলতলা আয়োজিত ও নার্সারী মালিক সমিতির ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত ইউএনও অনিমেষ বিশ্বাস। স্বাগত বক্তৃতা করেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোছাঃ রীনা খাতুন। নার্সারী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবুল বাশারের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা ফেরদৌস নিশা, মুক্তিযোদ্ধা কামন্ডার কাজী জাফর উদ্দিন, ওসি মোঃ মনিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার শাহাবুদ্দিন জিপ্পী। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আসলাম খান, প্রফুল্ল কুমার চক্রবর্তী, মৃনাল হাজরা, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি শামসুল আলম খোকন, প্রেসক্লাব সভাপতি তাপস কুমার বিশ্বাস, সহকারী অধ্যাপক মোঃ নেছার উদ্দিন, মোল্যা হেদায়েত হোসেন লিটু, শাহিদুল মোল্যা, রবীন বসু, গোলাম সরোয়ার মুন্সী, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা শেখ হারুন অর রশিদ, মঞ্জুরুল আলম, সাইফুল ইসলাম, চামেলী মল্লিক প্রমুখ।

আপনার মতামত জানানঃ